ওয়েবডেস্ক, ২৪ জুলাই,২০২০, কলকাতাঃ

জাহাজ চলাচল মন্ত্রক অভ্যন্তরীণ জলপথ পরিবহনকে পরিপূরক, পরিবেশ বান্ধব এবং স্বল্পমূল্যের পরিবহন ব্যবস্থা হিসেবে তুলে ধরার জন্য ভারত সরকারের দৃষ্টিভঙ্গী বিচার করে জলপথ ব্যবহারের ভাড়ায় ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রাথমিকভাবে ৩ বছরের জন্য এই ভাড়া ছাড় দেওয়া  হবে।


    কেন্দ্রীয় জাহাজ চলাচল মন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী শ্রী মনসুখ মান্ডভ্য বলেছেন, দেশে বর্তমানে মোট পণ্যবাহী যানবাহনের মধ্যে মাত্র ২ শতাংশ জলপথ দিয়ে চলাচল করে। জলপথে এই ভাড়া ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্তে শিল্প সংস্থাগুলি তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী জাতীয় জলপথ ব্যবহারে আগ্রহী হয়ে উঠবে বলে মনে করা হচ্ছে। এই জলপথ পরিবহন যথেষ্টই পরিবেশ বান্ধব এবং সস্তা। এতে খরচও কম লাগে। এই ভাড়া ছাড়ের ফলে অন্যান্য পরিবহন ব্যবস্থাগুলির ওপর নির্ভরশীলতা যেমন কমিয়ে আনবে তেমনই সহজে ব্যবসায় উৎসাহ যোগাবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।


    জাতীয় জলপথে জাহাজের মাধ্যমে পণ্য পরিবহনের জন্য এই ভাড়া প্রযোজ্য ছিল। বর্তমানে অভ্যন্তরীণ জলপথ পরিবহণ কর্তৃপক্ষ  অভ্যন্তরীণ পণ্যবাহী জাহাজ চলাচলের জন্য প্রতি কিলোমিটারে ‘গড় নিবন্ধিত টনেজ’ অর্থাৎ টনের হিসাবে জাহাজের উপর ধার্য শুল্ক  অনুযায়ী ০.০২ টাকা এবং অভ্যন্তরীণ ক্রুজ ভেসেলের জন্য প্রতি কিলোমিটারে ০.০৫ টাকা জল পথের ভাড়া হিসেবে আদায় করে থাকে।


    এই সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফলে অভ্যন্তরীণ পণ্যবাহী জাহাজ চলাচল বৃদ্ধি পাবে। এতে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড এবং সামগ্রিক অঞ্চলের উন্নয়ন সম্ভবপর হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *