ডিজিটাল, 30 সেপ্টেম্বর, কলকাতা:

ভারতে নিশ্চিত করোনায় আক্রান্তের হার মোট আক্রান্তের সংখ্যার তুলনায় শতাংশের হিসেবে ক্রমশ কমছে। বর্তমানে দেশে মোট আক্রান্তের মধ্যে কেবল ১৫.১১ শতাংশই নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত। নিশ্চিতভাবে আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লক্ষ ৪০ হাজার ৪৪১।

দেশে ১ আগস্ট নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের হার ৩৩.৩২ শতাংশ থেকে কমে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়ে দাঁড়িয়েছে ১৫.১১ শতাংশে।

ভারতে আরোগ্য লাভের হার ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার ফলে এই হার আজ ৮৩.৩৩ শতাংশে পৌঁছেছে। গত ২৪ ঘন্টায় ৮৬,৪২৮ জন আরোগ্য লাভ করেছেন এবং হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন।

দেশে আরোগ্য লাভের সংখ্যা বর্তমানে ৫১ লক্ষ ৮৭ হাজার ৮২৫। একইভাবে, নিশ্চিত আক্রান্তের সংখ্যার তুলনায় সুস্থতার সংখ্যা ৪২ লক্ষ ৪৭ হাজার ৩৮৪ হয়েছে। আরোগ্য লাভের সংখ্যা ক্রমশ বাড়তে থাকায় আক্রান্তের সংখ্যা ও আরোগ্য লাভের মধ্যে ফারাক লাগাতার বাড়ছে।

দেশে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা নিরন্তর কমতে থাকায় ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই সংখ্যা ১০ লক্ষের নিচে নেমে এসেছে।

নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তদের ৭৬ শতাংশের বেশি ১০টি রাজ্য থেকে। এগুলি হল – মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, কেরল, অন্ধ্রপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, ওড়িশা, আসাম, ছত্তিশগড় ও তেলেঙ্গানা।

সর্বাধিক ২ লক্ষ ৬০ হাজারের বেশি নিশ্চিত করোনায় আক্রান্ত রোগী রয়েছেন মহারাষ্ট্র থেকে।

‘টেস্ট, ট্র্যাক, ট্রেস, ট্রিট’ ও টেকনলজি সংক্রান্ত কৌশল অনুসরণের ফলে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে আরোগ্য লাভের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে।

১৪টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজারের কম।

মোট আরোগ্য লাভের ৭৮ শতাংশই ১০টি রাজ্য / কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল থেকে। এর মধ্যে ১০ লক্ষের বেশি করোনা রোগী আরোগ্য লাভ করেছেন মহারাষ্ট্র থেকে। অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে আরোগ্য লাভের সংখ্যা ৬ লক্ষের বেশি।

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় ৮০,৪৭২ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন।

নতুন করে আক্রান্তদের ৭৬ শতাংশই ১০টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল থেকে। মহারাষ্ট্র থেকেই সর্বাধিক প্রায় ১৫ হাজার আক্রান্তের খবর মিলেছে। কর্ণাটক থেকে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজারের বেশি।

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় ১,১৭৯ জন করোনাজনিত কারণে মারা গেছেন।

এর মধ্যে প্রায় ৮৫ শতাংশই মারা গেছেন ১০টি রাজ্য / কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল থেকে। এগুলি হল – মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, পাঞ্জাব, তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, দিল্লি, ছত্তিশগড়, মধ্যপ্রদেশ ও অন্ধ্রপ্রদেশ।

করোনাজনিত কারণে গত ২৪ ঘন্টায় মৃতদের ৩৬ শতাংশই বা ৪৩০ জন মহারাষ্ট্রের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *