দেশ যথাযথ মর্যাদা ও শ্রদ্ধার সঙ্গে জাতীয় যুব দিবস পালন করেছে। যুব সমাজকে গঠনমূলক কাজে ঝাঁপিয়ে পড়ার মন্ত্রে দীক্ষিত করেছিলেন স্বামী বিবেকানন্দ একটা সময়ে। সম্প্রতি, যুব সমাজের কৃতিত্বের একটি নজির গড়লেন আইআইটি খড়গপুরের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এক প্রাক্তনী, বর্তমানে বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইন্সটিটিউট অফ সায়েন্সের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড অটোমেশন বিভাগের সহকারি অধ্যাপক ডঃ অরিন্দম খান। ‘কম্পিউটেশনাল জিওমেট্রি’ বা ‘গণনামূলক জ্যামিতি’তে একটি যথাযথ অ্যালগোরিদম বা পরিভাষা প্রয়োগে সফল হয়েছেন তিনি।

‘কম্পিউটেশনাল জিওমেট্রি’, ‘অ্যাপ্রক্সিমেশন অ্যালগোরিদম্স’ বা আনুমানিক পরিভাষা এবং ‘কম্বিনেটরিয়াল অপটিমাইজেশনে’র ক্ষেত্রে মৌলিক বিষয়টি হল সর্বাধিক স্বতন্ত্র চতুর্ভুজ সমূহ, ইংরেজিতে যাকে বলা হয় ‘ম্যাক্সিমাম ইন্ডিপেন্ডেন্ট সেট অফ রেক্ট্যাঙ্গেলস’ (এমআইএসআর)। এই জ্যামিতিতে একটি সমতলের ওপর চতুর্ভূজসমূহ রাখা থাকে (সম্ভাব্য একের ওপর অপর)। এইরকম ক্ষেত্রে সমাধানকারীকে সর্বাধিক সংখ্যক একের ওপর অপর করা যাবে না এমন চতুর্ভূজসমূহ খুঁজে বের করতে হয়।

এই বিশেষ জ্যামিতিটির একাধিক প্রয়োগ আছে যেমন- ম্যাপ লেবেলিং, ডেটা মাইনিং এবং রিসোর্স অ্যালোকেশন। এছাড়া, ‘থিওরেটিক্যাল কম্পিউটার সায়েন্স’ এবং ‘ডিসক্রিট জিওমেট্রি’ বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ জ্যামিতির সঙ্গে এর নিবিড় যোগসূত্র রয়েছে।

এই জ্যামিতির সুষম সমাধান ছিল এতদিন অধরা। তাই গবেষকরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন এর যথাযথ সমাধান খোঁজার। ডঃ অরিন্দম খান এবং তাঁর সহযোগী মধুসূদন রেড্ডি এবং চিলি, জার্মানি এবং পোল্যান্ডে তাঁদের সহযোগীরা যাঁরা রয়েছেন, তাঁরা এই কঠিন সমস্যার সমাধানে একটি কার্যকরী ‘অ্যালগোরিদম’ বা পরিভাষা আবিষ্কার করেছেন।

কম্পিউটার সায়েন্সের অন্যতম সেরা সম্মেলন ‘এসিএম-এসআইএএম সিম্পোজিয়াম অন ডিসক্রিট অ্যালগোরিদমস’ (এসওডিএ) ২০২২-এ এই ফলাফলটি প্রকাশ হতে চলেছে। এই কাজের পরে পরেই তাঁরা এই ফলাফলে আরও উন্নতি সাধন করেছেন এবং একটি কার্যকরী অ্যালগোরিদম বা পরিভাষা খুঁজে পেয়েছেন যা এ ক্ষেত্রে সন্তোষজনক সমাধানের কাছাকাছি চলে এসেছে।

প্রসঙ্গত, ডঃ খান জার্মানির টিইউ মিউনিখ-স্থিত ইন্সটিটিউট ফর ইনফরমেটিক্স-এর ‘অ্যালগোরিদমস অ্যান্ড কমপ্লেকসিটি চেয়ারে’র গবেষক। তিনি আমেরিকার আটলান্টা শহরের জর্জিয়া ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজির স্কুল অফ কম্পিউটার সায়েন্স থেকে ‘অ্যালগোরিদমস, কম্বিনেটোরিক্স অ্যান্ড অপটিমাইজেশন’ বিষয়ে পিএইচডি করেছেন। তিনি কলকাতার ইন্ডিয়ান স্ট্যটিসটিক্যাল ইন্সটিটিউটেও অতীতে পড়িয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *