কেন্দ্রীয় পরিবেশ এবং বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী ভূপেন্দর যাদব দেশের বনাঞ্চল সম্পর্কিত সর্বেক্ষণ রিপোর্ট ‘ ইন্ডিয়া স্টেট অফ ফরেস্ট রিপোর্ট ২০২১ প্রকাশ করেছে। ফরেস্ট সার্ভে অফ ইন্ডিয়া এই রিপোর্টটি তৈরি করেছে। যা তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে।

রিপোর্ট প্রকাশের পর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান, দেশের মোট বন ও বৃক্ষের পরিমাণ ৮০.৯ মিলিয়ন হেক্টর, যা দেশের ভৌগলিক আয়তনের ২৪.২৬ শতাংশ। তিনি জানান যে, ২০১৯ সালের সর্বেক্ষণের তুলনায় দেশের মোট বন ও গাছের পরিমাণ ২,২৬১ বর্গ কিলোমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যোগ করেন যে, বর্তমান মূল্যায়ন অনুযায়ী দেশের ১৭ টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মোট ভৌগোলিক অঞ্চলের ৩৩ শতাংশের বেশি বনভূমি রয়েছে।

ইন্ডিয়া স্টেট অফ ফরেস্ট রিপোর্ট-২০২১ অনুযায়ী, বনের আচ্ছাদন, গাছের আচ্ছাদন, ম্যানগ্রোভ কভার, ক্রমবর্ধমান বিষয়সমূহ, বনাঞ্চলে কার্বন স্টক, বনাঞ্চলে আগুনের পর্যবেক্ষণ, বাঘ সংরক্ষণ এলাকায় বনের আচ্ছাদন এবং ভারতীয় জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত বিষয়গুলি নিয়ে তথ্য প্রদান করে।

উল্লেখ্য, দেশের মোট বন ও বৃক্ষের পরিমাণ ৮০.০৯ মিলিয়ন হেক্টর। যা দেশের ভৌগোলিক আয়তনের ২৪.৬২ শতাংশ। ২০১৯ সালের মূল্যায়নের তুলনায় দেশের মোট বন ও বৃক্ষের পরিমাণ ২,২৬১ বর্গ কিলোমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। এরমধ্যে, ১,৫৪০ বর্গ কিলোমিটার এবং এরমধ্যে বৃক্ষের আয়তন ৭২১ বর্গ কিলোমিটার।
গভীর ও ঘন বনের পাশাপাশি খোলা বনের ক্ষেত্রে আয়তন বৃদ্ধি পরিলক্ষিত হয়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশে ৬৪৭ বর্গ কিলোমিটার, তেলেঙ্গানায় ৬৩২ বর্গ কিলোমিটার এবং ওড়িশায় ৫৩৭ বর্গ কিলোমিটার বনাঞ্চল বৃদ্ধি পেয়েছে।
অঞ্চল অনুযায়ী দেশের বৃহত্তম বনভূমি রয়েছে মধ্যপ্রদেশে। এরপরের তালিকায় রয়েছে অরুণাচল প্রদেশ, ছত্রিশগড়, ওড়িশা এবং মহারাষ্ট্র। মোট ভৌগোলিক এলাকার শতাংশ হিসেবে বনাঞ্চলের ক্ষেত্রে শীর্ষ পাঁচটি রাজ্য হচ্ছে, মিজোরাম (৮৪.৫৩ শতাংশ), অরুণাচল প্রদেশ (৭৯.৩৩ শতাংশ), মেঘালয় ( ৭৬.০০ শতাংশ), মনিপুর ( ৭৪.৩৪ শতাংশ) এবং নাগাল্যান্ড ( ৭৩.৯০ শতাংশ)।
১৭ টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ভৌগলিক এলাকার ৩৩ শতাংশের বেশি বনভূমির আওতায় রয়েছে। এই রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গুলির মধ্যে রয়েছে লাক্ষাদ্বীপ, মিজোরাম, আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ অরুণাচল প্রদেশ এবং মেঘালয়। অন্যদিকে পাঁচটি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ৭৫ শতাংশের বেশি বনভূমি রয়েছে। এছাড়াও মনিপুর নাগাল্যান্ড ত্রিপুরা গোয়া কেরালা সিকিম উত্তরাখান্ড ছত্রিশগড় দাদরা ও নগর হাভেলি এবং দমন ও দিউ আসাম ওড়িশায় বনভূমি রয়েছে ৩৩ থেকে ৭৫ শতাংশের মতো।
দেশে মোট ম্যানগ্রোভ অঞ্চলের পরিমাণ ৪,৯৯২ বর্গ কিলোমিটার। যে তিনটি রাজ্যে সর্বোচ্চ বেশি ম্যানগ্রোভ অঞ্চল রয়েছে সেগুলি হচ্ছে, ওড়িশা ( ৮ বর্গ কিলোমিটার), মহারাষ্ট্র ( ৪ বর্গ কিলোমিটার) এবং কর্ণাটক ( ৩ বর্গ কিলোমিটার)।
বনাঞ্চলে মোট কার্বন স্টকের পরিমাণ ৭,২০৪ মিলিয়ন টন।

সূত্র: পি আই বি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *