কলকাতা

এক্সক্লুসিভ সঞ্জয় দাস

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, ১০ জুলাই, কলকাতা: ব্যাংকের বর্তমান পরিস্থিতি দেশের করোনা পরিস্থিতির নিরিখে বর্ণনা করলেন আইবকের রাজ্য সম্পাদক সঞ্জয় দাস। তার এক্সক্লুসিভ এই বক্তব্যে প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ জিনিসকে তুলে ধরলেন সর্বসমক্ষে, যাতে দেশের অন্যতম চালিকাশক্তি ব্যাংক কর্মচারীরা সুরক্ষিত থেকে দেশের চাকা চালু রাখতে পারে। সঞ্জয়বাবু জানালেন,

‘কন্টেইনমেন্ট জোনে ও ব্যাংক খোলা। অল ইন্ডিয়া ব্যাংক অফিসার্স কনফেডারেশন ও সংযুক্ত মোর্চার তরফ থেকে বার বার বলা সত্ত্বেও উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। ব্যাংকে প্রচুর পরিমানে সংক্রমণ হচ্ছে।যেহেতু ব্যাংকে খুব ভীড় হচ্ছে, সেহেতু ভীড় সামলানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার অভাব।ব্যাংকের কর্মচারীদের পক্ষে ভীড় সামলানো সম্ভব না, বা অনেক ক্ষেত্রে ভিড় সামলাতে গিয়ে কর্মীরা গালাগালির সম্মুখীন হচ্ছেন।
করোনা চিহ্নিত হওয়ার পর ও ব্রাঞ্চ খোলা থাকছে।
স্টেট লেভেল ব্যাংকার্স কমিটি এবং মুখ্যমন্ত্রীকেও দরবার করেছি, ব্যাংকের কাজ তাকে অবিচ্ছিন্ন ভাবে চালিয়ে নিয়ে যেতে গেলে ;

১.কাজের সময় কমিয়ে ১০টা থেকে ২ টো করতে হবে যাতে করে সংক্রমণের হার কমে।

২. যে ব্রাঞ্চে করোনা চিহ্নিত হচ্ছে সেখানে সমস্ত কর্মচারীর যতক্ষণ না টেস্ট হচ্ছে ততক্ষণ ব্রাঞ্চ বন্ধ রাখাটাই বুদ্ধিমানের কাজ। এ ক্ষেত্রে গ্রাহকরা সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচতে পারে।

৩. গ্রাহকদের অনুরোধ করতে হবে যাতে তারা ডিজিটাল প্লাটফর্ম ই বেশি ব্যবহার করে।

৪. প্রতিটি ব্যাংকেই “ওয়ার্ক ফ্রম হোম” আবার চালু করতে হবে যাতে কিছু কর্মী সংক্রামিত হলেও যাতে অন্য গ্রুপ ব্যাংক চালাতে পারে। অন্যথায় যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে ব্যাংকিং ব্যবস্থা ভেঙে পড়তে পারে।
কৃষি ঋণ এবং GECL লোন দেওয়ার এইটাই সময়। তাই ব্যাংকগুলোকে চালু রাখে
কেন্দ্রীয় সরকার এবং রাজ্য সরকারের প্রকল্প গুলোকে বাস্তিবায়িত করতে দিন আমাদের। আমরা গ্রাহকদের কাছে নিরবিচ্ছিন্ন সেবা দিতে অঙ্গীকার বদ্ধ, আমরা অর্থনীতির মেরুদন্ড।আমাদের কাজ করতে দিন।’


“করোণা থেকে মুক্তি পেতে সাই বাবার যজ্ঞ”

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, 6 জুলাই, 2020, কলকাতা: সারা বিশ্ব যখন কোরোনা কে নিয়ে চিন্তিত। সেখানেই উত্তর কলকাতার রূপবানী অঞ্চলের এক সাই ভক্ত শ্রীমতি রশ্মি জয়শয়াল উদ্যোগ নিয়ে তার পারিপার্শ্বিক কিছু মহিলাদের সঙ্গে করে নিজেরা করলেন সাই বাবার নামে এক হোম।যাতে ঈশ্বর সকলকে এই কঠিন পরিস্থিতি থেকে মুক্তি দেন। ওঁম সাই রাম।

লাল হলো বিজয়গড়

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, 29 জুন,2020,কলকাতা: মার্চ মাস থেকে লকডাউন প্রক্রিয়া চালু থাকলেও যাদবপুরে বিজয়গড় অঞ্চল করোনার অধরা ছিল। কিন্তু গতকাল বেশি সংখ্যায় মানুষ আক্রান্ত হওয়ার ফলে বিজয়গড় বাজার তিন দিনের জন্য বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে সূত্র মতে জানা গেছে।
এলাকার বহু মানুষ, যুবক, বৃদ্ধদের মধ্যে করোনা সম্বন্ধে ভীতি বাড়তে থাকলেও করোণাকে নিয়ে অবহেলা করছেন এখনও বহু মানুষ। এমনটাই মন্তব্য অঞ্চলের কিছু ব্যক্তিদের।
যদিও কলকাতা পুরসভার ৯৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং মেয়র পারিষদ দেবব্রত মজুমদারের সক্রিয় উদ্যোগে এলাকার পরিষ্কার পরিছন্নতা এবং সুযোগ-সুবিধা অব্যাহত রয়েছে। তা সত্ত্বেও কিছু মানুষের উদাসীনতার জন্য হয়তো আগামী দিনে বিপদ আরো বাড়তে পারে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

রনি রায় স্মরণে রক্তদান শিবির

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, ৭জুন, কলকাতা: চিত্রসাংবাদিক রনি রায় জীবদ্দশায় সবাইকে এগিয়ে চলার জন্য, সবাইকে ভালো রাখার জন্য, সবার সুখ-দুঃখের সাথী হতে মরণপণ করে চলছিলেন। সদ্যপ্রয়াত সেই রনি রায়ের স্মৃতিতে বারাসাত সমন্বয় আয়োজন করেছে এক রক্তদান শিবিরের। আগামী ১৪ জুন, রবিবার, বেলা ১০ টায় এই রক্তদান শিবির থেকে সংগৃহীত রক্ত থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত শিশুদের জন্য।


চেনা-অচেনা যেকোনো মানুষের দুর্দশা এবং অন্যান্য প্রয়োজনে তিনি ঝাঁপিয়ে পড়তেন, তার স্মৃতিতে এই রক্তদান শিবির নিঃসন্দেহে রনি রায়ের বিদেহী আত্মার প্রতি এক অনন্য শ্রদ্ধা প্রদর্শন।

বিক্ষোভে অভিভাবকরা

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, 1জুন,কলকাতা: লকডাউন এর মধ্যেই দক্ষিণ কলকাতার রানী কুঠির জি ডি বিড়লা স্কুলের সামনে আজ অভিভাবকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। তাদের অভিযোগ, স্কুলের মাইনার কিছু অংশ কম করলেও লকডাউন পরিস্থিতিতে স্কুল কর্তৃপক্ষ বাস, ল্যাবরেটরি, এক্সট্রা কারিকুলাম একটিভিটি সহ বেশ কিছু বিষয় তাদের নির্ধারিত ফিস নিয়ে যাচ্ছেন। এর প্রতিবাদে তারা কর্তৃপক্ষের কাছে একটি মেমোরেন্ডাম দেওয়ার কথাও ঠিক করেছেন।

প্রশ্ন হচ্ছে লকডাউন, আম পান সহ অন্য একটি পরিস্থিতিতে রাজ্য যখন বেহাল রাজ্য যখন স্কুল কর্তৃপক্ষকে মানবিক হতে বলছেন তখন এমন প্রতিবাদ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন সাধারণ মানুষ।

সাহায্যের হাত বাড়ালো “বিশ্ব বিবেক তীর্থ”


শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক,২১ এপ্রিল, কলকাতা: সারা পৃথিবী জুড়ে করোনা মহামারীর ভয়াল গ্রাস। পশ্চিমবঙ্গ তথা ভারতবর্ষও তার থেকে রেহাই পায়নি। এমতাবস্থায়, সাধারণ মানুষের সাহায্যের জন্য মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে ১০০০০ টাকা আর্থিক সাহায্য পৌছে দিল সমাজসেবী সংস্থা “বিশ্ব বিবেক তীর্থ”। একথা জানালেন সংস্থার অন্যতম প্রধান কর্ণধার অশোক কুমার ঘোষ। তিনি জানান সারা বছর ব্যাপী বিভিন্ন সমাজকল্যাণমূলক কাজে এই সংগঠন দীর্ঘ বছর ধরে কাজ করে আসছে। আজ এই সংক্রামনের ভয়াবহতায় মানব সেবায় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়াতেও তার ব্যাতিক্রম হয়নি।

রক্তদান করলো ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, ৯ এপ্রিল, কলকাতা: করোনা সংক্রমনের ভয়ে যখন দেশ তথা সারা পৃথিবী কাঁপছে, সেই সময় সারা ভারতের ব্যাংক কর্মীরা দেশের আর্থিক ব্যবস্থাকে সচল রাখতে দারুন ঝুঁকি নিয়েও ব্যাংক ব্যবস্থা চালু করে রেখেছিলেন। আজ আরেক বিপদের সম্মুখীন আমাদের রাজ্য। গরম বাড়ার সাথে সাথে দেখা দিয়েছে রক্তের অভাব।

ফিনান্সিয়াল আর্মি এখনও বসে নেই।
এক বিশেষ মুহূর্ত যখন ব্লাড ব্যাংক গুলোতে রক্তের ভাড়ার শূন্য, সে সময়ে ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া অফিসার্স এসোসিয়েশন এগিয়ে এসেছে lockdown এর মধ্যেও। আমরা জানি রক্তের চাহিদা সারা বছর। গরম কালে এমনিতেই চাহিদা তুঙ্গে, অন্যদিকে করোনার আক্রমণে রক্তদান শিবির হতে পারছে না। থ্যালাসেমিয়া রুগী থেকে শুরু করে অন্যান্য অনেকে রুগীরা আজ রক্তের অভাবে বিপন্ন। তাই রক্তদান শিবির করার প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া অফিসার্স সংগঠন কোঠারী ব্লাড ব্যাংকে গিয়ে রক্তদান করে আসতে রাজি হয়। সরকারি নিয়ম মেনে ২০ জন ব্যাংক অফিসার রক্তদান করেন।

AIBOC’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় দাস জানালেন, এই lockdown এ যখন সবাই ঘরে, সে সময় ব্যাংক অফিসাররা নিয়মিত অফিসে গিয়ে ভীড় ঠাসা ব্রাঞ্চে পরিষেবা দেবার পরও রক্তদানের মতো মহৎ কাজ করতে পেরে আনন্দিত।

শিকেয় উঠলো লকডাউন

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, ৪ এপ্রিল, কলকাতা: লকডাউনকে শিকেয় তুলে প্রায় হাজার খানেক মানুষ সকাল থেকে বেলা সাড়ে দশটা অবধি জমায়েত করেছিল বিনে পয়সায় এক ট্রে ডিম সংগ্রহ করার তাগিদে। ঘটনাটি যাদবপুরের বিজয়গড় অঞ্চলের। স্থানীয় এক বাসিন্দা যিনি একটি পোল্ট্রি ফার্মে কর্মরত তিনি আজ সকাল থেকে নিজের ফ্লাটের সামনেই বিনে পয়সায় প্রত্যেকটি মানুষকে এক ট্রে করে ডিম দেওয়ার জন্য এগিয়ে আসেন। ভিড় জমে যায় প্রায় হাজার খানেক মানুষ।


উপস্থিত সচেতন মানুষেরা এই ব্যাপারটিকে কোনমতে মেনে নিতে পারেননি। উপস্থিত পুলিশের এক কর্মী বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও গাদাগাদি ভীড় বাড়তেই থাকে। অবশেষে বেলা সাড়ে দশটার সময় পুলিশ এসে এই বিতরণ প্রনালী বন্ধ করে এবং বিতরনকারীকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় থানায়।
রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যেখানে করোনা নিয়ে এতটা সক্রিয়, সেখানে প্রশ্ন হচ্ছে সকাল থেকে এতক্ষণ অবধি এই বিপজ্জনক বিতরণ প্রনালী প্রশাসন-রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের কি করে নজর এড়িয়ে গেল সাধারণ মানুষের জিজ্ঞাসা সেটিই।

সেতুবন্ধন এগিয়ে গেল আরেক ধাপ



শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, ২ এপ্রিল, কলকাতা: মানুষ মানুষেরই জন্য। তাই সারা দেশ লক গাউন এর আওতায় এসে করোনা মহামারী থেকে বাঁচার পথ খুঁজছে, তখন একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ” ইন্দো বাংলা সেতু বন্ধন” র কলকাতার শাখার তরফ থেকে আজ দমদম দুর্গানগরে একটি মহৎ কাজ সম্পুর্ন করেন। সংগঠনের সহ সম্পাদক, কলকাতার ইন্দো বাংলা সেতু বন্ধন পরিবারের হরেন দাস মহাশয় এবং তার স্ত্রী পুতুল রানী দাস মিত্র মহোদয়ার সক্রিয় উদ্যোগে দু’দিনব্যাপী ২৫০ জন দরিদ্র মানুষের মধ্যে খাদ্যবস্তু বিতরণ করা হয়।
অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে দরিদ্র মানুষের মধ্যে দু কিলো করে চাল, আটা, আলু, পিয়াজ, সয়াবিন প্রভৃতি বিতরণ করা হয়। এই মহৎ প্রচেষ্টায় যুক্ত ছিলেন ‘খোয়াই সাহিত্য বাসর’ এর সদস্যরা। উপস্থিত ছিলেন আশীষ ঘোষ, বাপি হাজরা, আরতী দাস, নির্মল দাস, সুভদ্রা দাস প্রমূখ মানবদরদী ব্যক্তিবর্গ। আগরতলা থেকে ইন্দো বাংলা সেতুবন্ধন-এর প্রাণ পাখি এবং লেখিকা অজন্তা দেব বর্মন আজ টেলিফোনে সমস্ত সদস্য-সদস্যাদের শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। উল্লেখ করা যেতে পারে অজন্তা দেব বর্মন শুধু কলকাতা-আগরতলার একটি পরিচিত নাম নয়। শিল্প সংস্কৃতি জগতে বাংলাদেশেও তার যথেষ্ট পরিচিতি রয়েছে। ব্যক্তিগত কারণে এই মহতী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে না পেরে আক্ষেপ জ্ঞাপন করেছেন তিনি।

এবার কি ধাক্কা বাম শিবিরে?

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,7 মার্চ,কলকাতা: পুরসভা নির্বাচনের আগেই চিড় ধরল বাম শিবিরে। কলকাতা পুরসভার ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের সিপিএম শরিক বিপ্লবী বাংলা কংগ্রেসের বর্তমান কাউন্সিলর রিতা চৌধুরী আজ তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করলেন । আজ কলকাতার পুরসভা অধিবেশন শেষে মেয়র ফিরহাদ হাকিম এর ঘরে গিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের দলীয় পতাকা হাতে তুলে নিলেন। উপস্থিত ছিলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম ও সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়।
রিতা দেবী অভিযোগ করেন দলে যোগ্য সম্মান পাচ্ছিলেন না। তিনি বলেন, মানুষের জন্য কাজ করতে চান, মানুষের হয়ে কাজ করতে চান । সিপিএমের শরিক দলে থেকে তার এই কাজ করার ক্ষেত্রে বিভিন্নভাবে বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছিলেন, তাই তিনি সিপিএমের শরীক ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন । তিনি মনে করছেন যে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার ফলে তিনি মানুষের সঙ্গে আরও বেশি করে মিশতে পারবেন এবং তাদের জন্য কাজ করতে পারবেন।
রাজনৈতিক মেরুকরণে পুরভোটের ঠিক আগেই এই ধরনের যোগদান তৃণমূলের ঘাঁটি শক্ত করল, নাকি সিপিএমের কোনো ক্ষতি হলো? সেটাই এখন দেখার।
কলকাতা পুরসভার এই পর্যায়ের শেষ অধিবেশনের দিন সিপিএমের শরীফ থেকে তৃণমূলে যোগ দেওয়া কিভাবে দেখবেন সাধারণ মানুষ? তবে রিতা দেবী বলেন ২০২০ পুরসভা নির্বাচনে তিনি পদপ্রার্থী হবেন কিনা তা ঠিক করবেন তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্ব।

স্বচ্ছন্দের জীবনযাত্রায় আবাসিক কমপ্লেক্স



শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, ২৪ ফেব্রুয়ারি, কলকাতা: আবাসিক কমপ্লেক্স বা হাউসিং সোসাইটির জীবনধারণের মানকে আরো সহজতর করতে বাজারে একটি অ্যাপ নিয়ে এলো “The 360” (www.the360.in) । আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে সংস্থার সিইও অমিতাভ রায় এবং সেলস-মার্কেটিং এর কর্ণধার শিবশঙ্কর রাই একগুচ্ছ প্রতিশ্রুতির কথা ঘোষণা করলেন । সাংবাদিক সম্মেলনে অমিতাভবাবু দাবি করেন, ব্যবস্থাপনা, প্রশাসনিক কাজকর্ম, হিসাবরক্ষণ এবং আবাসিকদের হিত সাধনের কাজ দেখার জন্য তারা এই অ্যাপটি বাজারে নিয়ে এসেছেন। তিনি আরো দাবি করেন, এই অ্যাপটি যদি কোন আবাসন ব্যবহার করেন তবে আবাসিক প্রতি মাসিক খরচ পড়বে সর্বোচ্চ কুড়ি টাকা ।

তিনি আরো জানান, আগামী দিনে বয়স্ক মানুষদের কথা মাথায় রেখে তারা আরেকটি বিশেষ অ্যাপ চালু করতে চলেছেন। যাতে বৃদ্ধাবস্থায় তারা বিভিন্ন হসপিটাল এবং অন্যান্য হিতকরী সুযোগ সুবিধা গুলো সেই অ্যাপের মাধ্যমে পেতে পারেন। উল্লেখ করা যেতে পারে, স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বেশ কয়েকটি অ্যাপ দেশে এবং শহরের বিভিন্ন জায়গায় ইতিমধ্যেই যথেষ্ট সক্রিয় ভাবে সফল হয়েছে । এখন দেখার অ্যাপ এই শহরের আবাসিক কমপ্লেক্স হাউসিং সোসাইটিগুলোকে কতটা সুযোগ-সুবিধা দিতে পারে।

পরিবেশ রক্ষায় সদর্থক পদক্ষেপ

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, 17 ফেব্রুয়ারী,কলকাতা: গত ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, যাদবপুর ইউথ অ্যাডভেঞ্চারের এবং Andulpota Aqua Farmers welfare society এর যৌথ উদ্যোগে, ইন্ডিয়ান রেড ক্রস সোসাইটির সহায়তায় পরিবেশ সচেতনতা মূলক একটি ‘সাইকেল অভিযান’ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছিল। এই সাইকেল চালকরা যাদবপুর থেকে আন্দুলপোটা, বসিরহাট পর্যন্ত মিছিল করে যাবেন।
যাত্রাপথে ছোট ছোট পথসভায় জল সংরক্ষণ, প্লাস্টিক বর্জনের আহ্বান জানান সাইকেল আরোহীরা। তারা রাস্তার পাশে গাছ লাগিয়ে “গাছ লাগান, প্রাণ বাঁচান” এর ওপর বক্তব্য রাখেন।


সন্ধ্যার মুখে আন্দুলপোটা গ্রামে পোঁছুলে গ্রামের মানুষেরা এঁদের উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান।
১৬ সকাল অর্থাৎ দ্বিতীয় দিনের অনুষ্ঠানে ১০ টায় পরিবেশ সচেতনতা এবং থ্যালাসেমিয়ার ওপর এক আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করেন ডা. শ্যামল বরণ মুখার্জি, সম্পাদক, ইন্ডিয়ান রেড ক্রস সোসাইটি, খ্যাতনামা পর্বতারোহী শ্রী স্তিমিত শিমানী, বিশিষ্ট সমাজসেবী শ্রী পার্থ পাল।

পুরো অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন জনাব সাহেব আলী মণ্ডল । তাঁর বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে জানা যায় এই অঞ্চলের মৎস্য চাষীদের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে “যাদবপুর ইউথ অ্যাডভেঞ্চারে”র এবং Angulpota Aqua Farmers welfare society এর আন্তরিক সহযোগিতায় কিভাবে সুন্দরবন অঞ্চলের বনভূমি সংরক্ষণে বন সৃজন সচেতনতা সদর্থক ভূমিকা নিয়েছে।

অনুষ্ঠানের অন্তিম পর্বে আর্থ সামাজিক উন্নয়নের সামান্য স্মারক হিসেবে ৪০০ জন দুঃস্থ মানুষের হাতে শাড়ী এবং লুঙ্গি তুলে দেওয়া হয়।

রক্ত দিল “শিরিন বাগ”

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, ১৬ ফেব্রুয়ারি, কলকাতা: আজ কলকাতার রাজাবাজারে ৩০ জানুয়ারি থেকে এনআরসি এসিআর এবং সিএএ’র বিরুদ্ধে ধর্নার মঞ্চ থেকে সকালে এক রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয়েছিল । প্রায় ১৩৫ জন নারী-পুরুষ স্বেচ্ছায় রক্তদান করেন। অনুষ্ঠান উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবী শাহিন জাহিদ, আফজাল ইলাহি, আহ্বায়ক, United Forum for National Integration, প্রমূখ।

সন্ধ্যায় এই ধর্না মঞ্চ থেকে এনআরসি এনসিআর এর বিরুদ্ধে গর্জে ওঠেন সমাজসেবী অলি মন্ডল, প্রাক্তন আমলা জাহির মহম্মদ, সমাজসেবী মাজিদ আখতার প্রমূখ।
অলি মন্ডল তার বক্তব্যে বলেন, আমরা কোনো ভাবেই এনআরসি এনসিআর মানছি না। আমি শিল্প-সংস্কৃতির সাথে জড়িত। আমার যে রেকর্ডিং স্টুডিও রয়েছে সেখানে জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে সবাই রেকর্ডিং করতে আসে। জাতীয় সংহতির অন্যতম নিদর্শন সেটি। আজ এই ধর্না মঞ্চে সব ধর্মের মানুষই উপস্থিত থেকে প্রতিবাদ জানিয়ে এটাই প্রমাণ করেছেন যে আমরা এক এবং অভিন্ন। তিনি আরো বলেন, নরেন্দ্র মোদি যে জনপ্রিয়তা হারিয়েছেন তার প্রমাণ পরপর তিনটি রাজ্যের বিধানসভা তার দলের বিপুল পরাজয়। তাই সত্ত্বেও তিনি এনআরসির পক্ষে সওয়াল করছেন।

ধর্না মঞ্চে এবং দর্শকাসনে মহিলাদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্য করার মতো। মহিলাদের তরফ থেকে আওয়াজ ওঠে, আমরা দাবি করছি নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহ তাদের নিজেদের ধর্মের প্রমাণ দিন। তারপর আমরা বলব। কোথাও আওয়াজ উঠল ১৩০ কোটি ভারতবাসী সংবিধান রক্ষার জন্য ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। স্বাধীনতার ৭০ বছর পর এই প্রথম একটি আইনকে কেন্দ্র করে জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে সমস্ত মানুষ আজ এক ছাতার নিচে। তার জন্য অবশ্যই ধন্যবাদ পেতে পারেন নরেন্দ্র মোদি।

সম্প্রীতির নিদর্শন “রামায়ণের সারাংশ”

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, ১১ ফেব্রুয়ারি, কলকাতা: আগেই তিনি কোরআন লিখেছেন আলুমুনিয়ামের চাদরে, নাম তুলেছিলেন গ্রিনিজ বুকে। এবারে লিখলেন “রামায়ণের সারাংশ”। লেখা হয়েছে উর্দু ও রোমান ইংরেজীতে যাতে আরও বেশী মানুষ রামায়ণের কাহিনী জানতে পারেন। অসাধারণ ভাবে বর্ননা করলেন রামের বনবাসের পূর্ববর্তী ও পরবর্তী ঘটনাগুলো। ভ্রাতৃত্বের এক নিদর্শন বলে বর্ণনা করলেন ভূমিকাকে। সাথে সমালোচনা করলেন সম্রাট শাহজাহান পুত্র ঔরঙ্গজেবের কার্যক্রম। যেখানে তিনি ভাইদের হত্যা করে সিংহাসনে বসেছিলেন।
আজকের ভারতবর্ষে যখন সাম্প্রদায়িকতা মাথা তুলেছে, তখন এমন একটি পদক্ষেপকে সবাইকেই কুর্নিশ জানাতে হবে। কারন, রামায়ণের সারাংশের লেখক একজন মুসলমান। মেটিয়াব্রুজের শিক্ষক সিরাজ হুসেইন।


আজ কলকাতা প্রেসক্লাবে আন্তরিকতায় ভরপুর “রামায়ণের সারাংশ” প্রকাশ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাকিল আনসারী, আতিফ আলি কাদরী, অরুন জ্যোতি ভিক্ষু, হিন্দু সন্ন্যাসী প্রমুখ।

বিজ্ঞাপণ

কলকাতায় ধ্যান উৎসব

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, ১০ ফেব্রুয়ারি, কলকাতা: ধ্যানের মাধ্যমে শরীর গঠন ও মনের শুদ্ধিকরণ হয়। যার ফলে সমাজে বিশুদ্ধ পরিবেশ সৃষ্টি হবে। প্রাচীন ভারতীয় মনীষীদের মাধ্যমে নিজেদের মনকে নিয়ন্ত্রণে রাখতেন এভাবেই। বর্তমানে বহু সংগঠন এই ধ্যান অভ্যাসকে জনপ্রিয় করে তুলতে বিভিন্ন ওয়ার্কশপের আয়োজন করছে।
হার্টফুলনেস এবং সিপিডিআর এর যৌথ উদ্যোগে আগামী ১৪, ১৫ এবং ১৬ ফেব্রুয়ারী কলকাতার বিরলা সভাপতি সভাঘরে সন্ধ্যা ৬ টা থেকে ৮টা এই অভ্যাস কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। এই উপলক্ষে সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চিত্রাভিনেত্রী পাপিয়া অধিকারী, হার্টফুলনেস এর পক্ষে কিংশুক চক্রবর্তী এবং অবশ্যই সিপিডিআরএর সর্বভারতীয় সম্পাদক বিপ্লব ঘোষ প্রমুখ। আজ সাংবাদিক সম্মেলনের শেষে ১০ মিনিটের ধ্যান অভ্যাসের আয়োজন করা হয়েছিল

স্বামীজীর ১৫৮ তম জন্মজয়ন্তীতে…

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক কলকাতা: স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৮ তম জন্ম জয়ন্তী তৎসহ সংস্থার ৩০ তম বর্ষ উদযাপন উপলক্ষ্যে আয়োজিত ১ মাস ব্যাপী বিবিধ কর্মসূচী সাড়ম্বরে পালন করে “বিশ্ব বিবেক তীর্থ”।

১২ জানুয়ারি যুগাচার্য্য মানব প্রেমিক সন্ন্যাসী স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৮ তম পূণ্য জন্মদিন  উপলক্ষ্যে বাদ্যযন্ত্র সহ শতাধিক ব্যক্তির উপস্থিতিতে বিবেকানন্দের ছবি এবং বাণী সম্বলিত সুসজ্জিত এক শোভাযাত্রা বিজয়গড় ও তদসন্নিহিত অঞ্চলের পরিক্রমা করে। শোভাযাত্রা শুরু হয় সংস্থার শাখা কার্যালয় ৮/৫৯/২ বিজয়গড় থেকে এবং পরিসমাপ্তি হয় বিজয়গড় ময়দানে। সমগ্র পথযাত্রায় সংস্থার সদস্য দ্বারা দেশাত্মবোধক এবং স্বামীজীর প্রিয় সংগীত পরিবেশিত হয়।

১৯ জানুয়ারি সম্পূর্ণ বিনাব্যায়ে কলকাতা লায়ন্স নেত্র নিকেতনের সহায়তায় উনিশতম বর্ষ প্রাথমিক চক্ষু পরীক্ষা ও ছানি নির্ণায়ক শিবির পরিচালিত হয়। পশ্চিম পুটিয়ারীস্থিত ব্যানার্জী পাড়া অবৈতনিক পৌর প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অঞ্চলের ৯৮ জন ব্যাক্তি এই পরিষেবা গ্রহণ করেছে।

২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে বিজয়গড় আদর্শ বিদ্যালয়ে অত্যন্ত উৎসাহ ও উদ্দীপনার সাথে নবম বার্ষিকী ছোটোদের বসে আঁকো ও হস্তাক্ষর  প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হ’ল । বিষয় ও বয়স ভিত্তিক এই প্রতিযগিতায় ৪৯ জন শিশু প্রতিযোগী সানন্দে অংশগ্রহণ করেছে।

বিজ্ঞাপণ

‘জীব সেবা’ এবং ‘তরুণ তীর্থ’ আজ যেন সমার্থক

১২ জানুয়ারি, শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, কলকাতা: “জীবে প্রেম করে যেই জন, সেই জন সেবিছে ঈশ্বর” সেই বাণীকেই অনুসরণ করে ‘তরুন তীর্থ’, উত্তর কলকাতার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৮ তম জন্মদিবস উপলক্ষ্যে আয়োজন করে এক সামাজিক অনুষ্ঠানের।সকালে রক্তদান ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা শিবির। সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও সাথে শিশুদের বিদ্যার সরঞ্জাম ও দুঃস্থদের কম্বল বিতরণ আয়োজন করেছেন তারা।


এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় বিধায়ক স্মিতা বক্সী, প্রাক্তন বিধায়ক সঞ্জয় বক্সী, উত্তর কলকাতা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি সৌম্য বক্সী, রাজ্যের প্রাক্তন তৃণমূল ছাত্র পরিষদ সাধারন সম্পাদক তমোঘ্ন ঘোষ, বরো চেয়ারম্যান জীবন সাহা সহ স্থানীয় পুর প্রতিনিধি, সংগঠনের সভাপতি প্রবন্ধ রায়, সম্পাদক গোপাল সাহা সহ অসংখ্য সাধারন মানুষ।
এদিনের বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত চলচ্চিত্র অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়।অতিথিরা প্রত্যেকেই এই উদ্যোগের জন্য সংস্থার সদস্যদের অভিনন্দন জানান।

নিন্দায় ঐক্যবদ্ধ নাগরিক সমাজ

১ জানুয়ারি, শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, কলকাতা: ঐক্যবদ্ধ নাগরিক সমাজ আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে উত্তর প্রদেশের হিংসা ও খুনের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে। কবি ও সমাজসেবী প্রসুন চোধুরী ওখানকার ঘটনাগুলো হিটলারের শাসনের সাথে তুলনা করেন। বিধানসভায় নাম না করে রাজ্যপালের বক্তব্যের নিন্দা করেন। জামায়াতে ইসলামীর আব্দুর রফিক বলেন, ইজরায়েল ও ফিলিস্তিনের মত উত্তর প্রদেশের পরিস্থিতি। কেন্দ্র যেভাবে উত্তর প্রদেশ সরকারকে সমর্থন করছে, তাতে মনে হয় উভয়ই গনতন্ত্রের কন্ঠ রোধ করতে চাইছে। এদিন উত্তর প্রদেশে হত বাংলার ছেলে সিরাজুল ইসলামের কাকা ও ভাই ও উপস্থিত ছিলেন। ‘বদ্ধভূমি উত্তর প্রদেশ’ শির্ষক সাংবাদিক সম্মেলনে নিন্দার বক্তব্য রাখেন কন্ঠ শিল্পী প্রতুল মুখোপাধ্যায়, বৌদ্ধ সন্যাসী ড. অরুণ জ্যোতি ভিক্ষু, বিশ্বকোষ পরিষদ এর পার্থ সেনগুপ্ত, শিখ ধর্মের প্রতিনিধি বচন সিং সরল প্রমূখ।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে আজও উত্তাল কলকাতা

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক 30 ডিসেম্বর, কলকাতা : আজ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের যৌথ উদ্যোগে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন(CAA) ও জাতীয় নাগরিক পঞ্জির(NRC) বিরুদ্ধে কলেজ স্কোয়ার থেকে ধর্মতলার রানী রাসমণি এভিনিউ পর্যন্ত একটি বিশাল বিক্ষোভ পদযাত্রা করা হয়। পদযাত্রা শেষে একটি অবস্থান বিক্ষোভও করা হয়। এই অবস্থান বিক্ষোভে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র প্রতিনিধিরা বক্তব্য রাখেন।
তাদের কথায়, ছাত্র সমাজ মনে করে দেশের বেকারত্ব দূরীকরণে ও অর্থনৈতিক মন্দার হাল ফেরাতে ব্যর্থ সরকার সাধারণ মানুষের মনোযোগ ঘোরাতে এবং ধর্মীয় মেরুকরন করতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ব্যাবহার করতে চাইছে। NRC ও NPR এর নামে সাধারণ মানুষকে অযথা হয়রানি দেশের অর্থনৈতিক ও শিক্ষা ব্যবস্থাপনায় চরম আঘাত হানবে বলে মনে করে তারা। উত্তরপ্রদেশে শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলনকারীদের উপর রাষ্ট্রীয় গণহত্যা এবং মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের ‘বদলা’ নেয়ার মানসিকতাকে আজকের সমাবেশ থেকে তীব্রভাবে ধিক্কার জানান হয় ।
পোশাক দেখে প্রধানমন্ত্রীর আন্দোলনকারীদের চেনার মন্তব্যের জন্য দেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায় হুমকির সম্মুখীন বলে মনে করেন ছাত্র সমাজ।
সরকার অবিলম্বে এই আইন বাতিল না করলে লাগাতার ছাত্র আন্দোলন চলতে থাকবে বলে ঘোষণা করে বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র প্রতিনিধিরা।

Deepa Das, Shubhabori Web desk, 12 December, Kolkata: Yesterday evening Revolutionary Students’ Front (RSF) and All India Students Association (AISA) had jointly organised a Torch rally against CAB-NRC-NPR, which was started from Jadavpur university gate number 4. This program was organised under the leadership of Sagun Hembrane, Rudra Prabhakar Das, Abhijit Sarkar, Saumendu Mitra of AISA ,Piyush Dutta, Sresta Saswati, Ritam Majhi, Srijan Dutta, Saurabh Banerjee of RSF .
The really passed through the campus and road approaching towards gate number 4 was blocked by the agitators . They burnt replica of CAB and the rally back to Jadavpur university campus . The speakers criticize the role of BJP government and opposed Citizenship Amendment Bill, NCR and NPR.

পুড়ল প্রতিকি বিল

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ১১ ডিসেম্বর,কলকাতাঃ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল গত সোমবারই লোকসভায় পেশ হয়েছে এবং বিলটি সেখান থেকে পাসও হয়েছে। বিলটি আজ বুধবার রাজ্যসভায় যখনই পেশ হয়েছে ঠিক সেই সময় কলকাতায় প্রেসক্লাবের সামনে সেই সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে প্রতিকী সংশোধনী বিলটি আগুনে পুড়ালো স্বরাজ ইন্ডিয়ার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কমিটি। উপস্থিত ছিলেন ইমানুল হক, অভিক সাহা ,মনিরুল ইসলাম, হাফিজুর রহমান। তাদের সবার বক্তব্যে একটা জিনিসই বারবার উঠে এসেছে সংশোধনী বিলটি সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক, অর্থনৈতিক সমস্যা থেকে দেশবাসীর দৃষ্টি ঘোরাতে এই বিলটি আনা হয়েছে, তারা অমিত সাহাকে হিটলারের সঙ্গে তুলনা করেন। তারা দেশের সমস্ত নাগরিককে এই বিলের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলতে বলেন এবং আগামী দিনে এই বিলের বিরুদ্ধে তারা দীর্ঘ আন্দোলনের পথে যাবার হুমকি দেন।

জে ইউ এইচএ’র প্রতিবাদ কর্মসূচি

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ১১ ডিসেম্বর,কলকাতাঃ “নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল মুসলমান বিরোধী নয়। বরঞ্চ এটিকে বলা যেতে পারে সংবিধানবিরোধী।” আজ কলকাতা প্রেসক্লাবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে জমিয়াতে উলামায়ে হিন্দের পক্ষে জনাব সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী এভাবেই তার মতামত ব্যক্ত করলেন। আপাতত স্পষ্টবাদী এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ এবং অবশ্যই রাজ্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী জানালেন, তাদের কেন্দ্রীয় কমিটি এই বিল নিয়ে প্রতিবাদ জানাতে তিন দফা কর্মসূচী হাতে নিয়েছে।
কর্মসূচির প্রথম দফায় আগামী ১৩ তারিখ ‘প্রতিবাদ দিবস’ হিসেবে পালন করবে। সমস্ত মসজিদগুলোতে জুম্মার নামাজের আগে বা পরে তারা প্রতিবাদ জানাবেন। মাদ্রাসা এবং ক্লাবগুলোতে একইভাবে প্রতিবাদ সংঘটিত হবে। তবে তিনি স্পষ্ট করে বলেন যে তাদের এই প্রতিবাদ হবে শান্তিপূর্ণ এবং শৃঙ্খলাপূর্ন। প্রতিবাদের আরেকটি পর্যায়ে তারা তাদের প্রতিবাদপত্র জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এর মাধ্যমে ভারতের রাষ্ট্রপতির কাছে পৌঁছে দেবেন।সাথে চলতে থাকবে রাস্তার ধারে ছোট ছোট মিটিং, মিছিল প্রভৃতি। আগামী ২২ তারিখ কলকাতার রানী রাসমণি এভিনিউতে এক বিশাল জনসভা কবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, এই বিলটি সংসদে পেশ করার এক মাস আগে অন্তত কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত ছিল সমস্ত রাজনৈতিক দলের কাছে সেটি পাঠিয়ে দেওয়া। তিনি আরও বলেন, ভারতে মুসলমানরা বিজেপি বা আরএসএস এর দয়াতে বাস করছেন না। শুরুতেই তিনি স্পষ্ট করে দেন, এটি জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের সংবাদিক সম্মেলন, তৃণমূল কংগ্রেসের নয়। যদিও তিনি তৃণমূল সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত একজন মন্ত্রী।

আক্রান্ত সংবিধান-আক্রান্ত মানবাধিকার

দীপা দাস, শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক১০ ডিসেম্বর, কলকাতা: গতকাল যাদবপুরের বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবেকানন্দ হলে মানবাধিকার ভয়েস ‘আক্রান্ত সংবিধান-আক্রান্ত মানবাধিকার’ শীর্ষক একটি সভার আয়োজন করেছিল। এই সভায় মালিণী ভট্টাচার্য, কল্লাল বসু, নন্দিনী মুখোপাধ্যায়, শ্রাবণী সেনগুপ্ত, পুরুষোত্তম ভট্টাচার্য্য, সুগতা মুন্সী উপস্থিত ছিলেন।

সমস্ত বক্তাগন ভারতীয় সংবিধান এবং মানবাধিকারকে বর্ণনা করেন।
মালিনী ভট্টাচার্য্য বলেন, আজকের জীবনে ফ্যাসিবাদ মানুষের অধিকারকে হত্যা করেছে।

আয়েশার প্রতিবাদ সভা

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, দীপা দাস, ৬ ডিসেম্বর, কলকাতা: আজ অল ইন্ডিয়া স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন/আয়েশা মৌলালী যুব কেন্দের কাছে একটি পথ সভার আয়োজন করে। উক্ত পথ সভায় উপস্থিত ছিলেন সণেন্দু মিএ, রাজ্য সম্পাদক, নীলাশিষ বোস রাজ্য সভাপতি, অন্বেসা রায় এবং অন্যান্যরা। সভার আলোচ্য বিষয় ছিলো বাবরি মসজিদ। সভা শেষে আন্দোলনকারীরা ধর্মতলা থেকে আগত ১৮ টি বাম সংগঠনের সংযুক্ত মিছিলে যোগ দেয়। মিছিলটি শেষ হয় রাজাবাজারে গিয়ে।

আমরা বাঙালির দালাল–গর্গ

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক, ৫ ডিসেম্বর, কলকাতা: সরকারি কাজে ১০০% এবং বেসরকারি ক্ষেত্রে ৯০% বাংলায় বঙ্গ সন্তানদের জন্য সংরক্ষিত রাখতে হবে। এমনটাই দাবি করলেন এক ঝাঁক বাংলার তরুণ। নিজের হাতে তৈরি করা বাংলা পক্ষের মূল কান্ডারী গর্গ চ্যাটার্জি উদাহরণ সহযোগে বলেন, অন্যান্য রাজ্যে যদি সেই রাজ্যের অধিবাসীদের সংরক্ষণ দিতে পারে, তাহলে পশ্চিম বাংলায় কেন হবে না? তিনি বলেন, ডাক্তারি এবং ইঞ্জিনিয়ারিং এর প্রবেশিকায় ডোমিসাইল-বি রাজ্য সরকারকে উঠিয়ে নিতে হবে। এরফলে বাংলার ছেলে মেয়েদের সুযোগের পথ অনেকটাই খুলে যাবে। তিনি প্রশ্ন তোলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বলছেন তিনি এনআরসি হতে দেবেন না। তাহলে সে রাজ্য প্রশাসনিক আবার এন পি আর করার জন্য নাগরিকদেরও উৎসাহ যোগাচ্ছেন কিভাবে? যেখানে সাধারণ মানুষ মনে করে এনবিআর হচ্ছে এনআরসির প্রথম পদক্ষেপ। তিনি আরো বলেন, আগামী ১৯ তারিখ তাদের প্রথম জাতীয় সম্মেলন কলকাতায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। তবে স্থান এবং সময় এখনো তারা নির্ধারণ করে উঠতে পারেননি।

পরিবেশ রক্ষায় “ফ্রাইডে ফর ফিউচার”

দেবরঞ্জন চৌধুরী,শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ২৯ নভেম্বর, কলকাতা: ফ্রাইডে ফর ফিউচার আজ মহাবোধি সোসাইটি হলে “মানবিক পরিবেশ ও মানব অস্তিত্বের বিপর্যয় শীর্ষক” একটি আলোচনা সভার আয়োজন করে। উক্ত আলোচনা সভায় সংগঠনের তরফ থেকে প্রদীপ দত্ত সহ আরো অনেকে অংশগ্রহণ করেন।
তাপসী বারিক, অয়ন অগ্রহারি সহ অন্যান্য ছাত্রছাত্রীরা আজ পরিবেশ রক্ষার বিষয়ে শপথ গ্রহণ করেন এবং যেকোন স্থানে গাছ কাটা হলে তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার করেন। পুলিশি বাধা সত্বেও “যশোর গাছ বাঁচাও আন্দোলনের কর্মীরা” কিভাবে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে তার ওপর আলোচনা হয় এবং প্রত্যেক কর্মীকে সাধুবাদ জানানো হয়।
সভা শেষে উদ্যোক্তারা জানান, আগামীকাল কাঁচরাপাড়া স্টেশন সন্নিকটস্থ কাঁপা মোড় থেকে পরিবেশ রক্ষা ও গাছ বাঁচানোর দাবিতে একটি পদযাত্রা আয়োজন করা হবে এবং উক্ত পদযাত্রায় সকলকে অংশগ্রহণ করার আবেদন জানানো হয়।

তৃণমূল শিক্ষাবন্ধু সমিতির বিজয় মিছিল

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, দীপা দাস ২৮ নভেম্বর, কলকাতা: আজ সারা বাংলা তৃণমূল শিক্ষাবন্ধু সমিতি (এসবিটিএসএস) যাদবপুর ইউনিভার্সিটি শাখা, এসবিটিএসএস অফিস থেকে বিধানসভার উপনির্বাচনে কালিগঞ্জে, করিমপুর ও খড়গপুরে টিএমসির বিজয় উদযাপনের জন্য বিনয় সিংহের (সভাপতি / এসবিটিএসএস) নেতৃত্বে, গোপাল দাস এবং অন্যদের সহযোগিতায় শতাধিক মানুষের একটি বিজয় মিছিলের আয়োজন করেছিল।
মিছিলে সমর্থকরা স্লোগান তোলেন, “এই বাংলার মাটিতে বিজেপির ঠাই নাই, এনআরসি মানছি না-এনআরসি পুড়িয়ে দাও, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জিন্দাবাদ।”

মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরো ক্যাম্পাস ঘুরে বেলা চারটা নাগাদ অরবিন্দ ভবনে পৌঁছোয়। যেখানে বিনয় সিংহ তাঁর বক্তৃতায় উল্লেখ করেন, কেন্দ্রীয় সরকারভোট ব্যাংক অর্জনের জন্য হিন্দু ও মুসলিমের মধ্যে বিভাজন করে শাসন করতে চাইছেন। তিনি দাবী করেছেন, ডিমানিটাইজেশন হ’ল সরকারের বড় ব্যর্থতা। মহারাষ্ট্রে প্রচুর প্রচেষ্টার পরেও বিজেপি সরকার গঠন করতে পারেনি।

সমীক্ষার ফল প্রকাশ করল WASS

শুভবরি ওয়েবডেস্ক, ২৬ নভেম্বর কলকাতা: আসামে এনআরসির কুফল এবং তার প্রেক্ষিতে একটি ছয়দিনের সমীক্ষা করেছিল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন WASS । আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে সংগঠনের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন আহ্বায়ক নিশা বিশ্বাস এবং প্রমূখ । নিশা বলেন, এনআরসি সেবা কেন্দ্র বাস্তবিকভাবে অল্প শিক্ষিত কর্মীরা নিযুক্ত আছেন। তার ফলে পদবী এবং নাম নিয়ে বিভ্রান্তি এবং নাম বাদ পড়ছে অনেক নাগরিকের। তিনি দাবি করেন, অন্তত ২১ জন এনআরসি বিচারককে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে যারা সরকারি পক্ষের মতামত গ্রহণ করেননি। তিনি দাবি করেন, দেশের অন্য কোন রাজ্যে আর যেন এনআরসি না হয় আসামে তো কখনোই নয়। তিনি প্রস্তাবিত নাগরিকত্ব বিল ও প্রত্যাহারের দাবি করেন। নিজেদের নাগরিক প্রমাণ করতে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এবং বিপর্যস্ত নারীদের কথা তুলে ধরেন সংবাদমাধ্যমের কাছে।

JU students protest against JNU lathi charge


Dipa Das, Shubhabori web-desk,20 Nov, Kolkata: FAS ,DSF, PDSF, SFI had jointly organised a rally under the leadership of Aritra Majumder, Sambhab Chaki, Avuigyan Samanta, Kajuri majumder (all DSF/JU), Saunak Mukherjee, Ronit Mukherjee of FAS/JU, Arijit Pal, SFI/JU, Shilpak Mukherjee, Bandana Mandal of PDSF, from Jadavpur University campus play ground, to protest against Lathi charge on JNUSU’s rally by police during their “Parliament march” on 18, 2019 .
The Rally passed through university campus and moved towords Jadavpur police station & back. During rally students raised slogans, like-“Gore tolo barricade,” “BJPr birudhe lorte hobe aksathe”, “chhatro mere desh prem, Delhi Police shame” etc.

কলকাতায় শ্রী শ্রী রবিশঙ্করজী

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,19নভেম্বর,কলকাতা: কথায় বলে, গীতা পাঠেই মানব মুক্তি, গীতা ই মানব জীবন। এবার যদি গীতার ১৭ তম অধ্যায় নিয়ে শ্রী শ্রী রবিশঙ্কর বিশ্লেষণ করেন, তবে তার গুরুত্ব এবং গ্রহণযোগ্যতা আরো বেড়ে যায়।
এমনটাই হতে চলেছে আগামী ৩০ নভেম্বর ও ১ ডিসেম্বর কলকাতার নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে। আসানসোলের একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যোগ দেবার আগে শ্রী শ্রী রবিশঙ্করজী ৩ টি সেশনে তিনি গীতার ১৭ তম অধ্যায় বিশ্লেষণ করবেন। আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে একথা জানান স্বামী শ্রদ্ধানন্দজী, সিনিয়র আর্ট অফ লিভিং শিক্ষক। সাথে ছিলেন কোঅর্ডিনেটর শিক্ষক সৌমী মিত্র প্রমুখ।
স্বামী শ্রদ্ধানন্দজী বলেন, আমরা ২০০৬ সালে সিলভার জুবিলী উদযাপন করেছি বেঙ্গালুরুতে। মানব জীবনে ধ্যানের গুরুত্ব অপরিসীম। কারণ, শরীর মনের মধ্যে বাস করে। তাই মনকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারলেই সুস্থ ও সুখী থাকা যায়। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, স্বাস্থ্য সীমার নিরিখে পশ্চিম বাংলার স্থান ৪র্থ ( ১২ টি রাজ্যে সমীক্ষার নিরিখে)।

https://youtu.be/pcOeXHbTCJM


উল্লেখ্য, ৭০০ বিনা বেতনের স্কুল রয়েছে আর্ট অফ লিভিং এর এবং পৃথিবীর ১৫৬ টি দেশে এর শাখা রয়েছে।

অবস্থানে যুব তৃণমূল

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,11নভেম্বর,কলকাতা: আজ কলকাতার গান্ধী মুর্তির পাদদেশে যুব তৃণমূলের পক্ষ থেকে এক অবস্থানের আয়োজন করা হয়। এদিন সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আমরা সব ভাষাকে সম্মান করি। কিন্তু বাংলা ভাষাকে অবমাননার বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই চলবে। সম্প্রতি জে ই ই পরীক্ষায় গুজরাটি ভাষাকে অন্তর্ভুক্তি করা এবং অন্য ভাষা গুলোকে সেখানে না রাখায় তীব্র নিন্দা করেন তিনি। তিনি প্রশ্ন তোলেন, জে ই ই পরীক্ষার প্রশ্নপত্র বাংলাতে কেন করা হবে না, যেখানে দেশের ১নম্বর বিশ্ববিদ্যালয় কলকাতায়? বাংলাতে বলতে লিখতে না পারলে এর মর্ম কি বুঝবে? তিনি আরো বলেন, যদি জয়েন্টে বাংলা স্বীকৃতি না পায় তবে বাংলা তার অধিকার বুঝে নেবে। তিনি বলেন, প্রতি শনি ও রবিবার ব্লকে ব্লকে বাংলা ভাষার স্বীকৃতির দাবিতে যুব কর্মীরা মিছিল করবে।
এদিনের অবস্থানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় প্রমুখ তৃনমূল নেতৃত্ব।

মানবতার মুক্তিদূত হযরত মুহাম্মদ

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ৮নভেম্বর,কলকাতাঃ জামায়াতে ইসলামী হিন্দ এর পক্ষ থেকে আজ কলকাতা প্রেসক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছিল। এখানে উপস্থিত ছিলেন মৌলানা আব্দুল রফিক, রাজ্য সভাপতি, শাহাদাত মাসুম, সম্পাদক, রহমত আলী খান, প্রাক্তন সভাপতি প্রমূখ।
সাংবাদিক সম্মেলনে আব্দুল রফিক সাহেব বলেন, দেশে সাম্প্রতিক কালে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট হয়েছে অনেকভাবে। সম্প্রীতি রক্ষার জন্য সরকারও যথেষ্টভাবে সচেষ্ট হন নি । তিনি বলেন, এ রাজ্য যারা সম্প্রীতির কথা বলতেন, আজ তাদের গলায় অন্য সুর শোনা যাচ্ছে। কোন ধর্মেই পিটিয়ে মারাকে সমর্থন করে না । জামায়াত ইসলামী মনে করে, দেশ তথা রাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে হযরত মোহাম্মদ সাহেবের বাণী মানব সমাজে এক বিশেষ ভূমিকা পালন করবে। সেই কারণে আগামী 9 থেকে 24 নভেম্বর “মানবতার মুক্তিদূত হযরত মুহাম্মদ” এই শীর্ষকে তারা পুস্তক বিলি, সভা, সমাবেশ, লিফলেট বিলি প্রভৃতির আয়োজন করেছে রাজ্যব্যাপী।

অবস্থানে সারা ভারত বিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারী কনফেডারেশন

দীপা দাস, শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ৭ নভেম্বর, কলকাতা: আজ সারা ভারত বিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারী কনফেডারেশন এর আহ্বানে খসড়া নয়া জাতীয় শিক্ষানীতি প্রত্যাহার, ইউ.জি.সি স্কেল, পরিচালন সমিতিতে কর্মচারী প্রতিনিধিত্ব, নয়া পেনসন স্কীম বাতিল প্রভৃতি দাবীতে এবং রাজ্যে বিশ্ববিদ্যালয় কর্মীদের বেতন সংশোধন, বকেয়া ডি. এ সহ অন্যান্য দাবীতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অরবিন্দ ভবনের গাড়ি বারান্দায় ২ঘন্টা ব্যপী অবস্থান সমাবেশে বক্তব্য রাখেন যাদবপুর ইউনিভার্সিটি কর্মচারী সংসদের সাধারণ সম্পাদক কমরেড জিতেন সিং, জেসিএ কার্যকরী সভাপতি বিশ্বনাথ রাহা, সর্বভারতীয় নেতা শ্যামল ভট্টাচার্য, পেনশনার অ্যাসোসিয়েশন এর পক্ষে অসীম চ্যাটার্জি, জুটা সম্পাদক অধ্যাপক পার্থপ্রতিম রায় এবং ওয়েবকুটা সাধারণ সম্পাদক ও এ. আই. ফুকটো সভাপতি অধ্যাপক কেশব ভট্টাচার্য ।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন যাদবপুর ইউনিভার্সিটি কর্মচারী সংসদের সভাপতি কমরেড মনিকা সাহা ।

পথে নামলেন কয়েক হাজার শিক্ষক শিক্ষিকা

ছবি লিসা দাস

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, নম্রতা ঘোষ, 6নভেম্বর,কলকাতা: বেতন বৃদ্ধির দাবিতে পথে নামলেন কয়েক হাজার প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা। দুপুর দুটো নাগাদ যাদবপুর 8b বাস স্ট্যান্ড থেকে শুরু হয় এই মহামিছিল। উস্থি, বীরভূম, বর্ধমান,দক্ষিণ 24 পরগনা সহ বিভিন্ন জেলার প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষকবৃন্দ এই মিছিলে অংশগ্রহণ করেন। পূর্বেও তারা বেতন বৃদ্ধির দাবিতে দীর্ঘদিন অনশনরত ছিলেন। অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন অনেক শিক্ষক-শিক্ষিকা। পরে রাজ্য তাদের দাবি মেনে বেতন বৃদ্ধি করলেও তা ঠিকমতো কার্যকরী করা হচ্ছে না বলেই তাদের দাবি। 2014-15 সালে যারা নতুন শিক্ষকতা শুরু করেছেন তাদের

সাথে দীর্ঘদিন শিক্ষকতার সাথে যুক্ত শিক্ষকদের বেতন সমপরিমাণ, তারা চান ‘ সিনিয়রিটি ‘ মেনে বেতন মাত্রা তৈরি হোক। গানে স্লোগানে তাদের এই সমবেত দাবি তারা পৌঁছে দিতে চান মুখ্যমন্ত্রী এবং শিক্ষামন্ত্রীর কাছে।একজন শিক্ষিকা জানান জগদ্ধাত্রী পূজার ছুটি থাকার জন্যই তারা এই দিনটি বেছে নিয়েছেন মহা মিছিলের জন্য। তারা কেউই চান না চলতি দিনে তাদের কারণে স্কুলের পড়াশোনা ব্যাহত হোক।

জগদ্ধাত্রী পুজোয় শ্যাম পার্ক

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,৫নভেম্বর, বৈশালী দে, কলকাতাঃ এবার ৪৪ তম বর্ষে পদার্পন করলো স্কোয়ার আ্যথলেটিক ক্লাব শ্যাম পার্কের সার্বজনীন জগদ্ধাত্রী পুজো। নারায়ণ পালের তৈরি ২২ ফুটের প্রতিমাতে প্রতিবারের মতো এবারও রয়েছে সাবেকী আয়নার ছোয়া।

পুজোর শুভ উদ্বোধনে আজ উপস্হিত ছিলেন নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা , প্রাক্তন রাজ্যপাল মাননীয়া শ্যামল কুমার সেন, ৮ নং ওয়ার্ডের পৌর প্রতিনিধি পার্থ মিত্র ও অন্যান্যরা।

যাদবপুরের রেশে আজ মিছিলে অবরুদ্ধ

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,20সেপ্টেম্বর,কলকাতা: গতকাল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে হাঙ্গামার প্রতিবাদে আজ দুপুরে এস এফ আই, কলকাতার একটি মিছিল গোলপার্ক থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের রাস্তা দিয়ে বের হয়।

এ ভি বি পি বিরোধী শ্লোগানে ভরপুর এই মিছিলটির পেছনেই যাত্রীবাহী গাড়ির মিছিল দেখল এই শহর আর একবার। ফলে যাদবপুর ৮বি বাসস্ট্যান্ড কিছুক্ষণের জন্যে প্রায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে।

বঙ্গ প্রয়াস

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,17সেপ্টেম্বর,কলকাতা: সত্যিই তো পদ্ম সেরা দুর্গাপূজা হয় না, আজ কলকাতা প্রেসক্লাবে “বঙ্গ প্রয়াস” আরেকবার আমাদের স্মরণ করিয়ে দিলেন। বঙ্গদেশের প্রথম নিবেদন ‘শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি শারদ সম্মান’ । এই অংশে তারা তৃতীয়া, চতুর্থী, পঞ্চমী, ষষ্ঠী এই চারদিন দশটি বারোয়ারি দুর্গাপূজা যারা সাবেকিয়ানা, ঐতিহ্য এবং আভিজাত্যকে বজায় রেখে বহুদিন ধরে সনাতনী বারোয়ারি পুজোর গরিমাকে বহন করে চলেছেন, তাদের বিশেষ সম্মানে ভূষিত করবেন। এছাড়া, ৩০ টি আবাসনের মধ্য থেকে নির্বাচন করবেন শ্রেষ্ঠ প্রতিমা, প্রতিমা শিল্পী, শ্রেষ্ঠ পরিবেশ এবং আজকের দশভূজা। আজকে তারা পাশে পেয়ে গেছেন বেশকিছু প্রসিদ্ধ শিল্পী, সাংবাদিক, সাহিত্যিক এবং সমাজের অন্যান্য ক্ষেত্রে বিদগ্ধ গুণীজনকে। আশা করা যায়, আগামী দিনগুলোতে শারদীয়াযর উৎসব অনেক আনন্দময় হয়ে থাকবে।

অবসর নিয়েছি, কিন্তু ক্লান্ত হইনি

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ৯ সেপ্টেম্বর, বৈশালী দে, কলকাতাঃ অবসর নিয়েও যে তারা ক্লান্ত নয়, একথা প্রমান করতেই পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার দায়িত্ব নিজেদের কাঁধে নিয়ে নতুন উদ্যোগের পথে এবার প্রবীণ নাগরিকরা।

সাম্প্রতি ৬ জন অবসর প্রাপ্ত প্রবীণ ভারতীয় জয় করতে চলেছেন আফ্রিকার কিলিমানঞ্জারো পর্বতশৃঙ্গ (১৯৩৪০ ফুট)। আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক বৈঠক করে সেকথা জানানো হয় মিশন “Retired But Not Tired”-এর পক্ষ থেকে।

আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর তারা এই অভিযান শুরু করতে চলেছেন এবং, ২৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে তারা দেশে ফিরবেন বলে জানান। এই অভিযানে অংশগ্রহণ করতে চলেছেন করুনা প্রসাদ মিত্র (৬৫), অমলেন্দু বিশ্বাস (৬৬), অরিন্দম দও (৬৩), সঞ্জয় যাদব (৬০), কমলা বিশ্বাস (৬১) ও নীলিমা দত্ত (৬২)।

প্রতারিত হলেন প্রযোজক

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, 5 সেপ্টেম্বর,কলকাতা:

সিনেমা তৈরি করলেন একজন । আর তার সম্পূর্ণ কৃতিত্ব নিয়ে অন্য একজন বাজিমাত করলেন। সিনেমার প্রযোজক তরুন রানাকে একপ্রকার বোকা বানিয়ে তার সিনেমা ” অন্দর কাহিনী ” (৯০ মিনিট) কে পরিচালক অর্ণব মিধ্যা একের পর এক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শন করালেন। পরিচালকের দাবি সিনেমাটি সারাদেশে মোট ৩৬ টি জায়গায় পুরস্কৃত হয়েছে । কিন্তু যার অর্থে নির্মিত এই সিনেমা তিনি এর বিন্দুবিসর্গ জানেন না।
আশ্চর্যের বিষয়, ফিল্ম সেন্সর বোর্ডের সার্টিফিকেটে প্রযোজক সংস্থার, প্রযোজকের নাম থাকলেও উল্লিখিত ৩৬ টি উৎসবে কতৃপক্ষের নজরে আসেনি। অবশেষে প্রযোজক জানতে পারলেন সেই ভয়ঙ্কর দিনটির কথা। তিল তিল করে জমানো অর্থ তৈরি তার সিনেমাটির মুক্তি পেতে চলেছে ৬ সেপ্টেম্বর কলকাতার বিভিন্ন হলে। এবার তিনি দেরি করেননি। তার বিশ্বাসকে মাটিতে গুড়িয়ে দিয়ে এন এফ ডি সিতে কর্মরত পরিচালক অর্ণব মিধ্যা যাকে তিনি সন্তান স্নেহে সিনেমা তৈরি করার জন্য অর্থ দিয়েছিলেন, সেই সিনেমাটি প্রদর্শন বন্ধ করার জন্য জেলা দায়রা আদালত থেকে একটি স্থগিতাদেশ নিয়ে আসলেন। আজ গোধূলি বেলায় কলকাতা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে এই মর্মস্পর্শী ঘটনা প্রত্যক্ষ করলেন সংবাদমাধ্যমের কর্মীরা।


একটি প্রশ্ন; নিজের প্রযোজনায় তৈরি সিনেমা কোন পরিস্থিতিতে বন্ধ করার জন্য নিজেই আদালতে আদেশ নিয়ে আসেন কি কেউ??? –হ্যাঁ। কথা বলতে দ্বিধা নেই, চরম অবিশ্বাসের বাতাবরণে এমনটাই করতে হয়েছিল প্রযোজকক।
কতদিন এভাবে প্রযোজকরা প্রতারণার শিকার হবে? কিছুদিন আগে এভাবেই প্রচারণার শিকার হয়েছিলেন ত্রিপুরার অজন্তা দেব বর্মন এবং তপন বর্মন মহাশয়। স্বঘোষিত পরিচালক প্রদীপ ঘোষ অজন্তা দেব বর্মনের প্রযোজিত ছবি :ভাটার টানে’ নাম পাল্টে করে দেন ‘রিফিউজি’। ইউ টিউবে প্রচুর তার দর্শক হয়েছে। কিন্তু অজন্তা দেবী এবং তপনবাবু যথেষ্ট সজ্জন মানুষ হওয়ার কারণে প্রদীপ ঘোষের মতো পরিচালকরা প্রযোজক হিসেবে নিজের নাম প্রচার করে ইউ টিউবে অর্থ উপার্জনের পথে চলেছেন। এখন আমাদের সিনেমার বিভিন্ন সংগঠন ‌ কি পথে চলে ,আমরা সেটিই দেখার অপেক্ষা।


অবশেষে স্বস্তি

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,17 আগস্ট,কলকাতা: ১৬ এপ্রিল ২০০৮, কোলকাতা কাঁকুড়গাছি স্থিত শ্রী শ্রী স্বামী স্বরূপানন্দ পরমহংসদেবের পূন্য সমাধি স্থান। তার কাছেই খুন হয়ে যান চার চারটি মানুষ তার মধ্যে ছিলেন আশ্রমের পরিচালনার দায়িত্ব প্রাপ্ত সঙ্গীতা দেবী। ঠিক দু বছর পর অর্থাৎ ২০১০ সাল ৪ জুন। একটি পত্রিকার একটি বিজ্ঞাপন দেখে সচকিত হয়ে ওঠেন সর্বভারতীয় অখন্ড সংগঠন। দেখা যায় একটি বিজ্ঞপ্তিতে এই পবিত্র স্থানের প্রবেড নেওয়ার জন্য একজন আদালতের শরণাপন্ন হয়েছেন। তিনি তপন কুমার গুপ্ত ওরফে দাদামনি।
ঘটনার সূত্রপাত এখানে অখন্ড সংগঠনের সদস্য এ বিজ্ঞাপনের প্রেক্ষিতে আদালতের শরণাপন্ন হন। কারণ, স্বামী স্বরূপানন্দ পরমহংস পরিচালনার দায়িত্ব কাউকে দিলেও, গুরুগিরি করার দায়িত্ব কাউকে দেননি। তিনি প্রচলিত গুরু পদ্ধতির সংস্কার সাধন করেছিলেন। বিধি অনুযায়ী তিনি বলেছেন, তারপর গোষ্ঠীতে আর কেউ গুরু থাকবে না। কিন্তু দীক্ষা দেবার ব্যবস্থা থাকবে, ব্যক্তিগত গুরু কেউ থাকবেন না। দীক্ষা দান বিষয়টি প্রকাশ্যে হবে, একসঙ্গে তিনজন আচার্য মন্ত্রগুরু শিষ্য করে দেবেন। ধারাবাহিক গুরুর কোন প্রয়োজন নেই বলেই তিনি বলে গিয়েছিলেন।এমতাবস্থায়, সর্বভারতীয় সর্বভারতীয় সভাপতি জ্যোতির্ময় সেন এবং শিলিগুড়ি মন্ডল এর সম্পাদক অমলেন্দু সরকার আদালতের শরণাপন্ন হয় (সুট নাম্বার ১১/২০১১)। শিয়ালদহ আদালতের অ্যাডিশনাল ডিস্ট্রিক জজ মামলাটি নিষ্পত্তি করেন। গত ২৫ জুলাই ২০১৯ আদালত মামলাটি খারিজ করে দেন। অর্থাৎ তপন কুমার গুপ্ত কে প্রবেড দেননি আদালত।

https://youtu.be/Y7zkpJ_PwyM


এভাবেই হয়তো যুগে যুগে ধর্ম পুরুষরা তাদের ধর্ম সংগঠনকে এবং তাদের ভক্ত এবং আশ্রিত সৎ মানুষদের ধর্মাচরণ করার জন্য সুনির্দিষ্ট প্রদর্শন করেন। আজকে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বিস্তারিত জানালেন সংগঠনের সংগঠনের আইনি পরামর্শদাতা হরেন্দ্র নাথ মন্ডল এবং কমিটি মেম্বার কৃষ্ণ চন্দ্র দেবনাথ। সাথে ছিলেন আশীষ সরকার, প্রণব রায় প্রমূখ।

এবার পথে চিত্রগ্রাহকরা

শুভবরি ডিজিটাল ,10 আগস্ট,কলকাতা: সময় পাল্টেছে, পাল্টেছে আমাদের জীবনযাত্রাও। সামাজিক রীতি নীতি গুলো একই ভাবে পাল্টে এক নতুন দিক আমাদের সামনে তুলে ধরেছে।
বিয়ের রীতি নীতি গুলো বিয়ের ঠিক আগে কন্যাপক্ষ বা বরপক্ষ দুপক্ষই দেখে নিতে চায় ভিডিওগ্রাফির মাধ্যমে। যদিও আগেকার রীতি অনুযায়ী বিয়ের ফটোগ্রাফিকে একটি প্রমাণ স্বরূপ গণ্য করা হতো। এই ফটোগ্রাফিকে কেন্দ্র করে বেশ কিছু নব্য যুবক এবং মধ্যবয়সী যারা ফটোগ্রাফি এবং ভিডিওগ্রাফিতে হাত পাকিয়েছেন, তারা এই প্রি-ম্যারেজ ভিডিওগ্রাফি করে জীবিকা নির্বাহ করছেন। কিন্তু বাদ সেধেছে একটি বিশেষ এবং বিখ্যাত কোম্পানির নিষেধাজ্ঞা। তাদের রেকর্ড করা গান ওই ভিডিওগ্রাফিতে বিনে পয়সায় ব্যবহার করা যাবে না। তার জন্য তারা ১২ হাজার টাকা করে বাৎসরিক লাইসেন্স ফি হিসেবে দাবি করেছেন। আজ কলকাতা প্রেসক্লাবে এ বিষয়ে ওয়েস্ট বেঙ্গল ফটোগ্রাফি ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখার আগে কলকাতার ক্যামেরা পাড়া বা মেট্রো গলি থেকে কয়েক হাজার সদস্য-সদস্যাদের নিয়ে মেয়ো রোড গান্ধী মূর্তির নিচে এসে জমায়েত হযন। তারপর কলকাতা প্রেসক্লাবে শুরু হয় তাদের জীবন যন্ত্রণার গাঁথা।এই সব কিছুর আয়োজনের সামনে অবশ্যই রয়েছে ‘বিশ্ব ফটোগ্রাফি দিবস’।আগামী ১৯ আগস্ট চন্দননগরের রবীন্দ্রভবনে এই দিনটি তারা পালন করতে চলেছেন। এ প্রসঙ্গে সংস্থার সম্পাদক অভিজিৎ ব্যানার্জি বলেন, রাজ্যে যেমন কন্যাশ্রী শিক্ষাশ্রী যুবশ্রী রয়েছে তেমনি চিত্রগ্রাহকশ্রী ও চাই। তার দাবি রাজ্যে ৭০ হাজারেরও বেশি চিত্রগ্রাহক রয়েছেন। তাদের স্বাস্থ্য বীমার ব্যবস্থা করুক রাজ্য সরকার। তিনি আরো দাবি করেন রাজ্যের ১৯ টি জেলাতে তাদের সংগঠন বিস্তৃত হয়েছে মাত্র দশ মাস এর মধ্যেই। ইতিমধ্যে তাদের সাথে আজ যোগ দিয়েছিলেন ঝাড়খন্ড ফটোগ্রফিক অ্যাসোসিয়েশন সেন্টার এর নেতৃস্থানীয় বাপী ঘোষাল।


আগামী ১৯ তারিখের ওই অনুষ্ঠানে তারা আমন্ত্রণ জানিয়েছেন রাজ্যের তথ্য এবং সম্প্রচার মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন। এছাড়া খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এবং আরো অনেক শাসক দলের মন্ত্রী এবং নেতৃবৃন্দকে। তারা ট্যাবলো সাজিয়েছেন “সেভ ওয়াটার সেভ লাইফ স্লোগানকে মাথায় রেখে।

নেতাজি ইন্ডোর মাতবে সম্প্রতির আবহে

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,8আগস্ট,কলকাতা: “কাজ করো, নাম জব করো, আর ভাগ করে খাও”- আজকের এই অস্থির পরিস্থিতিতে গুরু নানক জীর ৫৫০ তম জন্মবর্ষে আবারো সে ধ্বনি শোনা যাবে ১১ আগস্ট নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে।
আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে শ্রী গুরু সিং সভা, কলকাতার পক্ষ থেকে এই অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করলেন সংস্থার সাধারণ সম্পাদক প্রীত পাল সিং, সরল সিং বচ্চন এবং আরো গুণীজনেরা।
প্রীত পাল সিং বলেন, ১ আগস্ট পাকিস্তানের লারকানা থেকে একটি দল ভারতে পৌঁছেছে। তারা দেশের বিভিন্ন স্থান ঘুরে আগামী ২৫ আগস্ট কলকাতায় আসবেন এবং ২৬ তারিখ তারা কলকাতার ডানলপ এবং হরিশ মুখার্জি রোডে “শ্রী গুরু সিং সভায়” অবস্থান করবেন।


১১ অগাস্ট মুখ্য অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিরোমনি প্রবন্ধ কমিটি, অমৃতসরের প্রেসিডেন্ট গোবিন্দ সিং জী। এ ছাড়া ধর্মীয় বক্তব্য রাখবেন শ্রদ্ধেয় মানসিং জী। বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৩টে অবধি চলবে এই অনুষ্ঠান।

পেপার পরিবেশের জন্য অপকারী নয়

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,3জুলাই,কলকাতা: ছোটবেলা থেকেই আমরা জেনে আসছি যে কাগজ তৈরির জন্য প্রয়োজন হয় কাঠ এবং সেই কাঠের জন্য গাছ কাটতে হয় বিপুল পরিমাণে। সম্প্রতি এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই ধারণাকে সম্পূর্ণ ভুল বলে দাবি করেছেন ক্যালকাটা পেপার ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন ।
তাদের কথায় কাগজ তৈরির জন্য শুধু মাত্র ১৫% কাঠের প্রয়োজন হয় এবং ৮৫% প্রয়োজন হয় অন্যান্য জিনিসের । এই যে ভুল ধারনা মানুষের মন থেকে দূরীকরণের জন্য আগামী ১আগস্ট তারা “পেপার ডে” হিসাবে পালন করবেন। এদিন তারা বিভিন্ন স্কুল-কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রছাত্রীদের এই বিষয় সম্পর্কে অবগত করবেন। তারা দাবি করেন যে সমস্ত পেপার বা কাগজ তৈরির কারখানা গুলি আছে এবং সেখানে কাগজ তৈরির জন্য যে কাঠের প্রয়োজন তা তারা নিজেদের জায়গাতেই গাছ উৎপাদন করেন। অতএব কাগজ নষ্ট করলেই যে পরিবেশ দূষিত হয় এই ভুল ধারণা থেকে মানুষকে মুক্ত করতে হবে।

সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন এস পি টি এর সভাপতি সাজ্জন কুমার গোয়েঙ্কা, সি পি টি এর এর সভাপতি গোপাল সাহা, অল ইন্ডিয়া পেপার ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন এর কৃষ্ণেন্দু ভট্টাচার্য। ইতিমধ্যেই তারা কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে ১ আগস্ট ন্যাশনাল পেপার হিসাবে ঘোষণা করার আর্জি জানান।

সংযুক্তির ৫০ বছর



শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,19জুলাই,কলকাতা: ১৯ জুলাই ভারতের ব্যাঙ্কের রাষ্ট্রীয়করনের ৫০ বছর পূর্তি পালন করে অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অফিসার্স কনফেডারেশন । আজ তাই কলকাতায় সংগঠনের রাজ্য শাখার সবাই ব্যাঙ্কের সংযুক্তিকরণ এবং বেসরকারীকরনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হন, তৈরি করেন ‘মানব শৃঙ্খল’ । সংগঠনের পশ্চিমবঙ্গ শাখার সম্পাদক সঞ্জয় দাস এই ব্যাপারে একান্ত সাক্ষাৎকারে সবিস্তারে জানালেন:

https://youtu.be/Lz3A6PsRQFg

শুভ উদ্যোগে কড়া খবর



শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,১৬জুলাই,কলকাতা: কড়া খবর পত্রিকার উদ্যোগে আয়োজিত অরণ্য সপ্তাহ পালন অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যবনপাল সিদ্ধার্থ ববারি সহ অন্যান্য গুণিজন । ১৬ জুলাই এই অনুষ্ঠানে গাছের চারা বিতরণ করা হয়। জল সংরক্ষণের বিষয়ে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক আশীষ চক্রবর্তী ।সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন পত্রিকার সম্পাদক কৃষ্ণ কুমার পাত্র ।

সন্তোষ মিত্র স্কোয়ার-এ সোনার দুর্গা

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ১৩ জুলাই, কলকাতা : সাবেকিআনা থেকে থিম পুজো। কালের নিয়ম অনুযায়ী বদলেছে মায়ের সাজপোশাক। উত্তর কলকাতার সন্তোষ মিত্র স্কোয়ার বরাবরই দিয়ে আসছে পূজো প্রস্তুতিতে। এবারের চমক হলো সোনার প্রতিমা। প্রায় ৫০ কেজি সোনা দিয়ে তৈরি হবে দুর্গা মুর্তি। যার আনুমানিক বাজারমূল্য ১৭ কোটি টাকা। প্রতিমার উচ্চতা ১২ ফুট। চমক রয়েছে মন্দির নির্মানে। এবারের আকর্ষণ মায়াপুরের প্রস্তাবিত মন্দির । প্রতিমা শিল্পী মিন্টু পাল। মন্ডপসজ্জায় দীপক ঘোষ। মণ্ডপটির অন্দরসজ্জা হবে কাচ দিয়ে । প্রায় ১০ টন কাঁচ এতে কাজে লাগানো হবে। তবে কোন সংস্থা এই সোনার প্রতিমার দায়ীত্ব নিয়েছে সে বিষয়ে কিছু বলতে চাননি ক্লাব কতৃপক্ষ।
এক সাংবাদিক সম্মেলনে একথা জানান সন্তোষ মিত্র স্কোয়ারের পূজা কমিটির উদ্যোক্তারা । উপস্থিত ছিলেন সভাপতি প্রদীপ ঘোষ, সম্পাদক সজল ঘোষ প্রমুখ।

Terapanth Mahila Mandal

Shubhabori, 12 July, Kolkata:
Akhil Bharatiyo Terapanth Mahila Mandal, is working for women empowerment, and spiritual upliftment for last 45 years. In the eve of birth centenary of Mahapragyaji( 10 th Guru ofJain Terapanth Dharma Sangha) they are organising a seminar on ” Happy and Harmonious Family”. The South Kolkata unit of the organization today held a press meet to announce their ensueing programme, at press club kolkata.
During the press meet Smt Kumud kachara, National President, Smt Neelam Sethia, General Secretary explained their views on the subject. Tomorrow the seminar would be organized at Kalamandir from 9 am. International trainer Rahul kapur Jain and other dignitaries would address the gathering . Here is some highlights of the press meet:

https://youtu.be/MYtZ1bHXXTU

আন্দোলনের পথে উস্থি



শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,10জুন ,কলকাতা : আবার উস্থি প্রাইমারি টিচার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন আন্দোলনের মুখে। আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে সংগঠনের সম্পাদিকা পৃথা বিশ্বাস জানালেন যে, বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে তার জানতে পারছেন , “যেভাবে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর সাথে কথা হয়েছিল তার সাথে সংবাদমাধ্যমে প্রচারিত শিক্ষকদের পে স্কেল স্থির করার যে প্রক্রিয়া এই দুটির মধ্যে তারা মিল পাচ্ছেন না ।” সেক্ষেত্রে তাদের আরোও একটি দাবী যে, “মাদ্রাসা শিক্ষকদের পে স্কেলের সাথে প্রাইমারি শিক্ষকদের পে স্কেল যাতে মিলিয়ে দেওয়া না হয়। ” তারা আরোও দাবী করেছেন যে গত লোকসভা নির্বাচনের আগে আগেই যে চোদ্দজন প্রাইমারি শিক্ষককে দুর দুরন্তে বদলি করা হয়েছিল তাদের অবিলম্বে ফিরিয়ে আনতে হবে । এই দাবীতে তারা আগামী 12জুলাই বিকাশ ভবনের সামনে দুপুর 12টা থেকে অবস্থান বিক্ষোভ করবেন। তিনি যোগ করেন এই অবস্থান ভিক্ষোভ তাদের চলতে থাকবে যতদিন না এই দুটো দাবী মেনে নেওয়া হচ্ছে। এদিন তিনি আরো দাবী করেন গত জুন মাসে যে বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছিল তাতে প্রায় 70হাজার শিক্ষক শিক্ষিকা এসেছিলেন এখানে তার থেকে বেশী শিক্ষক আসতে পারেন। তবে সঠিক সংখ্যা সম্পর্কে তিনি অবহিত নন । তবে তারা দির্ঘ্য বিক্ষোভ সমাবেশে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিয়েই যাচ্ছেন বলে জানা গেছে ।

STF production

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,9জুলাই,কলকাতা: আগামী ১৫ অগষ্ট কলকাতায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে সর্ট ফিল্ম ফেষ্টিভেল হচ্ছে। আজ এক সাংবাদিক সন্মেলনে অভিনেতা ফাল্গুনী চ্যাটার্জী, কৃষ্নেন্দু চ্যাটার্জী, কর্মকর্তা শুভ্র জানান, অনামী পরিচালকদের উৎসাহিত করাই এই ফেষ্টিভেলের উদ্দেশ্য। বিজেতাদের পুরস্কারের আর্থিক রাশি রাখা হয়েছে। এছাড়া, স্মারক-মানপত্র ও দেওয়া হবে বিজেতাদের। শুভ্র নিজে একজন নবীন চিত্রনির্মাতা। আজ এক নবীন ও প্রবীণ পরিচালকের গুরুত্বপূর্ন বিশ্লেষন আপনাদের সামনে:

জল সঙ্কটে আশার কিরণ



শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, 3জুলাই, কলকাতা : সংবাদ মাধ্যমে দেশব্যাপী সম্ভাব্য জল সঙ্কট সম্নে আসতেই আশার আলো দেখাচ্ছে CMERI টেকনোলজি । সংস্থার ডিরেক্টর হরিশ হিরনী বলেন, আমাদের তৈরি মেশিনের মাধ্যমে তিনটি পদ্ধতিতে জল পরিশোধন করা যাবে। ব্যবহৃত জলকে পরিশোধন করে বহু রাষ্ট্র ব্যবহার করছে । আমরা একই পদ্ধতিতে জল শোধন করতে সক্ষম হয়েছি। জল থেকে আয়রন আর্সেনিক এবং ফ্লোরাইড দূরীকরণের কাজ গ্রামাঞ্চলে সফলতার সাথে এগিয়ে চলেছে । আয়রন দূরীকরণের প্রজেক্ট এ এখনো পর্যন্ত 2017সাল থেকে 25000 গ্রাম উপকৃত হয়েছে । আনন্দের বিষয় একমাত্র বিহার সরকার CSIR প্রযুক্তিকে ব্যবহার করবার কথা সাধারণ মানুষকে অবহিত করেছেন। এদিন SARVO TECHNOLOGIES LTD হরিয়ানা এবং ISW INDUSTRIES , হাওড়া এই দুই কম্পানির সাথে মৌ সাক্ষরিত হয়।

এক টাকাতেই সদস্যপদ





শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,১জুলাই ,কলকাতাঃ দশ দিনের মধ্যে দ্বিতীয়বার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি বঙ্গীয় চলচিত্র পরিষদ। বিএমএস এর অন্তর্ভুক্ত কলকাতা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনকে সাথে নিয়ে তরুন বিজেপি নেতা শঙ্কুদেব পাণ্ডা বলেন, ‘এটা কোন রাজনীতির লড়াই নয়, এটা টালিগঞ্জ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির রুটিরোজগারের লড়াই।’ তিনি আরও বলেন, “EIMP&CO র মতো সংগঠন এবং তার সভাপতি বৈদ্য দে আজ আমাদের সাথে রয়েছেন, রয়েছেন পরিচালক – প্রযোজক মিলন ভৌমিকও । তাই আগামী দিনে প্রতিভাধর – গুনি মানুষেরা যাতে টলিউডে নিশ্চিন্তে সিনেমায় কাজ করতে পারেন । আমরা সেটা নিশ্চিত করতে চাই।” প্রবীণ পরিচালক মিলন ভৌমিক বলেন,’ ‘ দাঙ্গ’ , ‘ভবিষ্যতের ভুত’ এর মত সিনেমা এরাজ্যে মুক্তি পেতে বাঁধা পাচ্ছে। এই অবস্থার থেকে বেড়িয়ে আসা দরকার ।’ আজ উল্লেখ্যযোগ্য ভাবে মাত্র ১ টাকা দিয়ে বঙ্গীয় চলচিত্র পরিষদের সদস্যপদে নিযুক্তি দেওয়া শুরু হল স্পট বয় বাপি ব্যানার্জিকে দিয়ে । শঙ্কু বাবু বলেন , ‘ আমরা সবাই রাজা আমাদেরই রাজার রাজত্বে’।




মেশিন ফেরত অভিযান 

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ২৮ জুন, কলকাতা : 

অল ইন্ডিয়া ফেয়ার প্রাইস শপ ডিলার্স ফেডারেশন পশ্চিমবঙ্গ শাখা আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে রেশন ডিলারদের অভাব অভিযোগ সহ তাদের দাবিদাওয়া সম্পর্কে জানান। সাংবাদিক সম্মেলনে

উপস্থিত সাধারণ সম্পাদক বিশ্বম্ভর বসু দাবী করেন – 

চাল গম চিনির ক্ষেত্রে কুইন্টাল প্রতি 250 টাকা হারে কমিশন দিতে হবে।

রেশন ডিলারদের নূন্যতম ত্রিশহাজার টাকা মাসিক আয়ের গ্যারান্টি দিতে হবে।

বিগত সাড়ে তিন বছরের ১৬ টাকা হারে বকেয়া কমিশন পরিশোধ করতে হবে।

এম আর এলাকায় ধারাবাহিকভাবে বরাদ্ধের থেকে কম আটা সরবরাহ করা যাবে না।

বর্তমানে রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে আধারিকরনের দায়িত্ব রেশন ডিলারদের উপর চাপিয়ে দেওয়া যাবে না।

হ্যান্ডেলিং লস প্রথা তুলে দিতে হবে, সহ আরো কিছু দাবীতে আগামী রা জুলাই কলকাতার খাদ্যভবনে ই-পস ও স্ক্যানার মেশিন ফেরৎ অভিযান করবেন।

তিনি বলেন এই রাজ্যে 20,278টি রেশন ই-পস মেশিন ও স্ক্যানার আছে । তারা সবাই যে এই অভিযানে সামিল হবেন ।

এই ফেরৎ অভিযান যে সম্পূর্ণ শান্তিপুর্ণ হবে তা তিনি দাবী করেন।

 রাজ্য স্তরের তাদের সহযোগী সংগঠন হল – ওয়েস্ট বেঙ্গল এম আর ডিলার্স এসোসিয়েশন,

অল বেঙ্গল ফেয়ার প্রাইস শপ ডিলার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন,

বেঙ্গল ফেয়ার প্রাইস শপ ডিলার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন  এবং পশ্চিমবঙ্গ জাতীয়তাবাদী এম আর ডিলার্স এসোসিয়েশন।

বিপদজ্জনক বাড়ী ভেঙে ফেলা হবে  

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ২৩ জুন ,দেবাঞ্জন দাস, কলকাতা: 

বর্ষার সময়ে বহু বিপদজ্জনক বাড়ী ভেঙে পরে। কলকাতা পৌরসভার অধিবেশনে শনিবার বিপজ্জনক বাড়ী ভেঙে ফেলার কথা বললেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম।  এ প্রসঙ্গে কলকাতার ২৯ নং এর পৌরপিতা প্রকাশ উপাধ্যায় জানতে চান, তার নিজের ওয়ার্ড ছাড়াও আরোও অন্যান্য ওয়ার্ডে জীর্ণ বাড়ীর সংখ্যা অনেক। বর্ষার সময়ে এই বাড়ীগুলি ভেঙে পড়ার আগে পৌরসভা কি কোনো ব্যবস্থা নেবে ? উত্তরে মেয়র বলেন, “এই বাড়ীগুলো বর্ষার আগেই বাড়ী ভেঙে ফেলা হবে। তার জন্য এখন থেকেই বিপদজজনক বাড়ী চিন্হিত করা হচ্ছে । কিন্তু কিছু ক্ষেত্রে বাড়ীতে বসবাসকারিরা বার বার নোটিস দেওয়া সত্ত্বেও ওই স্থান থেকে সরে যাচ্ছেন না । এক্ষেত্রে তারা যদি সরতে না চান তার জন্য তার ওখানেই অস্থায়ী কাঠামো তৈরি করে দেওয়া হবে। তারপরে ঐ বাড়ী ভাঙা হবে।”

টলিউডেও ফুটল ফুল

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,22জুন,কলকাতা: রাজ্য বিজেপির অপ্রতিরোধ্য ধারা এবার টলিউডে ও পদ্মফুল ফোটালো। পথ চলা শুরু’ বঙ্গীয় চলচ্চিত্র পরিষদ’ এর। Kolkata Film Industries Workers Union কে সঙ্গে নিয়ে এই পরিষদ তাদের প্রথম সাংবাদিক সন্মেলনে হাজির করেছিল বর্ষিয়ান অভিনেতা বিশ্বজিৎ চ্যাটার্জীকে। উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা বিশ্বপ্রিয় রায়চৌধুরী, শঙ্কুদেব পন্ডা, Kolkata Film Industries workers union এর সাধারণ সম্পাদক টুলটুল রায় প্রমুখ।
নির্দিষ্ট একটি প্রযোজনা সংস্থা দীর্ঘ ছ’মাস ধরে কলাকূশলীদের বকেয়া আটকে রেখেছেন। যদিও এই সাংবাদিক সন্মেলনের কথা জেনে গতকাল রাতে চেক্ দিয়ে দিয়েছে। কিন্তু  হাতে এখনো টাকা পায়নি। যদি আগামী ৭ দিনের মধ্যে তারা বকেয়া না পায়, তাহলে ইমপা অফিসের সামনেই অনশনে বসবেন। প্রয়োজনে তাদের এই অরাজনৈতিক সংগঠনটি বাংলা চলচ্চিত্রের স্বার্থে সব ধরনের আন্দোলনে যেতেও প্রস্তুত। বিজেপির বিশ্বপ্রিয় রায়চৌধুরী বলেন, রাজ্যে সমস্ত বিভাগেই রাজনীতিকরন চলছে। সিন্ডিকেট রাজ টলিউডকেও ঘিরে রেখেছে।

অথ: পুরুষ কথা 

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,17 জুন,কলকাতা: 

অধিকাংশ পুরুষ মানুষই জানেন না International Mens’ Day কবে। তারা জানেন না মানুষ বা পুরুষ হিসাবে তাদের অধিকার কতটা।আজ আয়ুস্মান নামে একটি স্বেচ্ছাসেবি সংস্থা, যারা দীর্ঘদিন ধরে শিশু-বাবা-মা এর মধ্যে একটি সেতু বন্ধনের কাজ করে চলেছেন, তাদের এক সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখছিলেন বিশিষ্ট ডাক্তার অদৃজা রহমান মুখার্জি। উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবী নন্দিনী ভট্টাচার্য , সংস্থার কর্নধার অভিজিৎ মিত্র প্রমুখ। ডা.অদৃজা রহমান মুখার্জি তার সাবলীল বক্তব্যে বলেন, পুরুষ অর্থাৎ বাবা তিনি নিজেও কিন্তু সন্তানকে লালন পালন করতে পারেন।  বলা হয়  একজন বাবা  ১০০ জন শিক্ষকের সমান। কিন্তু  অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তিনি তার অধিকারের কথা বলতে পারেন না, যা পারেন মেয়েরা। তিনি দাবী করেন ৭০% জুভেনাইল কেস আসছে সেই পরিবার থেকে  যেখানে বাবা অথবা মা যেকোন একজনের কাছে যেসব সন্তান বড় হচ্ছে। তাদের মধ্যে অপরাধ প্রবনতা আসতে পারে এবং আত্মহত্যার প্রবণতা বাড়তে পারে । 

১৯৭২ সালে আমেরিকাতে নিক্সান সরকার জুন মাসের তৃতীয় রবিবার তারা International Father’s day হিসাবে পালন করেছিলেন। পরবর্তীকালে  আমেরিকা, ভারত, বাংলাদেশ এবং আরও কয়েকটি দেশ এই দিনটিকে পালন করে আসছে। বক্তাদের বক্তব্যে গুরুতর এক তথ্য সামনে এল। ১.৩৬ মিলিয়ন মানুষ যারা বিবাহ বিচ্ছিন্ন  হয়ে  থাকেন, তার একটা প্রভাব সন্তানদের ওপর ভয়াবহ ভাবে পড়ছে ।

আজ Issue in Father Child Relation & Parental Alienation শীর্ষক একটি ডকুমেন্টারিও দেখানো হয় । বাস্তবে পুরুষ ও মহিলা সমন্বয়ে একটি সুস্থ্য স্বাভাবিক শিশু পৃথিবীতে বাস করুক এটিই তাদের মুল উদ্দেশ্য।

মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি ডাক্তারদের

শুভাবরি ওয়েব ডেস্ক,13জুন, কলকাতা : রাজ্যে আন্দোলনরত ডাক্তারদের আন্দোলনকে সমর্থন জানালো ন্যাশনাল মেডিকোস অরগানাইজেশন। আজ সংবাদ মাধ্যমে তাদের সমর্থন জানিয়ে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ডা. সোমনাথ সরকার বলেন, রোগী ও ডাক্তারের মধ্যে যে সেতুবন্ধন এতদিন ছিল সেটা ভেঙে ফেলার চেষ্টা চলছে। রাজ্যে ডাক্তার, আইনজীবী সবাই নির্যাতিত হচ্ছে। যে জুনিয়ার ডাক্তার জীবনে কোন পরীক্ষায় দ্বিতীয় হয়নি, তিনি আক্রান্ত হবার পরেও মুখ্যমন্ত্রী দেখতে যান নি।


এদিনের আলোচনায় উঠে আসে মুখ্যমন্ত্রীর ” বহিরাগত” বলে মন্তব্যটি।
সংস্থার সদস্যরা আগামীকাল কালো ব্যাজ পড়ে প্রতিবাদ জানানোর সাথে রাজ্যপালের সাথেও দেখা করবেন। তারা দাবি করেন: ১) যারা ডাক্তারদের আহত করেছেন, তাদের গ্রেফতার করতে হবে।
২) ঐ দিন যেসব পুলিশ কর্মীরা নিরব দর্শকের ভূমিকায় ছিলেন তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।
৩) সমস্ত হাসপাতালে মজবুত সুরক্ষা ব্যবস্থা চালু করতে হবে।

যেহেতু  মুখ্যমন্ত্রীর হাতে গৃহ মন্ত্রক এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রক রয়েছে তাই এর সমাধান তাকেই করতে হবে। নাহলে পদত্যাগ করতে হবে।

এ কেমন নিয়ম !!

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,10জুন,কলকাতা : খোদ শহরে নিয়মকে কলা দেখিয়ে চলছে নির্মাণ। কলকাতা পুরসভার ৮২ নং ওয়ার্ডে, “দেশের খাবার ” মিষ্টির দোকানের (চেতলা) বিপরীতে একটি নির্মীয়মান বহুতলে এমনটাই নজরে এলো।


মেইন রোড থেকে দেশের খাবারের গলিতে ঢোকার মুখে লিফট সহযোগে এই নির্মান প্রায় ফুটপাত ঘেষে। যদিও চারদিকে টিনের ঘেরাটোপ রয়েছে। কিন্তু ফুটপাত থেকে খুব সামান্য দুরত্বে থাকার ফলে ভবিষ্যতে দুর্ঘটনার সম্ভাবনাকে অস্বীকার করা যাবে না। যদিও পথচলতি মানুষের মতে, পুরসভা নিশ্চয়ই এই নির্মান সন্মন্ধে অবহিত। তাই বেনিয়মে কিছুই হচ্ছে না।

“প্রকৃতি বাঁচাও, পৃথিবী বাঁচাও” – ফিরহাদ হাকিম

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,7জুন ,কলকাতা: বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে আজ কলকাতা পৌরসংস্থাতে আগামী একমাস ব্যাপী কর্মকাণ্ডের সূচনা করা হল। মহানাগরিক ফিরহাদ হাকিম পরিবেশ ও গাছের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে বলেন।এছাড়া শহরের বিভিন্ন জায়গায় গাছে লাগানো, মানুষকে , স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে পরিবেশ নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির কথা উঠে আসে তার কথায়। জানা গেছে প্রতিটি বরোতে পরিবেশ দিবস পালন হবে। উপস্থিত ছিলেন মেয়র পারিষদ দেবাশীষ কুমার সহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ।

ভ্রমণ মেলায় BTF

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ৬জুন, কলকাতাঃ সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচন শেষ এবং সরকার গঠনও সম্পন্ন হয়েছে।বাঙ্গালি আবার তার নিজের মহিমা- নিজের ছন্দে ফিরে চলতে শুরু করেছে । বেঙ্গল ট্যুরিজম ফেস্ট বা বি টি এফ কলকাতার ক্ষুদিরাম অনুশীলন কেন্দ্রে আগামী ৭জুন থেকে তিন দিনের জন্য এক ট্যুরিজম মেলার আয়োজন করেছেন। আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে কনভেনর সন্দিপন বিশ্বাস জানান, এই ট্যুরিজম মেলায় কিছু বিশেষত্ব রয়েছে- তারা নো প্রফিট হিসাবে এই মেলায় অংশগ্রহণ করেন। ছোটো ট্র্যাভেল এজেন্ট যাদের প্রচারের সুযোগ থাকে না তারাও এখানে আসেন। তিনি জানান ১০০ র ওপরে ট্যুরিজম সংস্থা এখানে থাকছে এছাড়া ৭ টি রাজ্য থেকে তাঁদের প্রতিনিধিরা এখানে থাকছেন। উল্লেখ করা যেতে পারে BTF ওয়াল্ড ট্যুরিজম ডে তে অনাথ শিশুদের ও বৃদ্ধাশ্রমের মানুষদের নিয়ে কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় ঘুরিয়ে দেখান । আগামী কাল ১২ টায় এই অনুষ্ঠানের সুচনা। সন্দীপন বাবু জানান, অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন, সাধন পাণ্ডে, ইন্দ্রনীল সেন, প্রবীর ঘোষাল, স্বাগ্নিক চৌধুরী প্রমুখ। এভাবেই দিনে দিনে মেলার শ্রীবৃদ্ধি হোক এই আশাই তিনি করেন।

UN Road Safety Week কলকাতায়

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,11মে ,কলকাতা: পঞ্চম UN Road Safety Week 2019 এর দায়িত্ব এই প্রথমবার পেল কলকাতা । সেটাও আবার ভারতবর্ষের একটি স্থানেই হচ্ছে । ফডারেশন ইন্টারন্যাশনাল অটোমোবাইল সংস্থা এই দায়িত্ব তুলে দিল Motor Sports Association of Eastern India এবং Calcutta Motor Sports Club কে। 6 মে থেকে 12 মে তারা পথ নিরাপত্তা সপ্তাহ পালন করলেন। সম্প্রতি এক সাংবাদিক সম্মেলনে একথা জানান MSAEI এর যুগ্ম সম্পাদক সৌরভ চ্যাটার্জি। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন CMSC এর চেয়ারম্যান রবি কুমার।
সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয় এই সময়ের মধ্যে তারা কলকাতার গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাগুলিতে মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য কাজ করলেন। তাদের দাবি প্রায় 25000 মানুষ তাদের এই প্রচেষ্টাকে বাহবা জানান এবং পথ নিরাপত্তা সন্মন্ধে মতামত ব্যক্ত করেন।
কলকাতা পুলিশেরও সাহায্য পান বলে জানানো হয়। এছাড়া পথচারীদের পক্ষ থেকে আসা পরামর্শ গুলো তারা প্রশাসনের হাতে তুলে দেবেন। এবারের উল্লেখযোগ্য বিষয় হল Woman Leadership । তাদের মহিলা সদস্যরা এতে বিশেষ ভুমিকা পালন করেন বলে জানান সৌরভ বাবু।

নজির গড়লেন জাইদ



শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, 9মে, কলকাতা : নিজে ভোট দেবেন বলে অঙ্গীকার করলেন । পাশপাশি প্রতিবন্ধীদের ভোট দিতে সহযোগীতা করছেন কারী আহমেদ ফাউন্ডেশনের পরিচালক এবং বিশিষ্ট সমাজসেবী জাইদ আনোয়ার মহম্মদ । আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে এই ভাবেই তিনি বাকী পর্যায়গুলিতে ভোটদানের উৎসাহিত করার এক অনন্য চেষ্টা করলেন । হোয়েতো আগামী দিনে আরো কেউ জাইদ সাহেবকে অনুসরণ করবেন। কিন্তু মহত কাজের শুরুটি তিনিই করলেন।
চিত্তরঞ্জন এভিনিউ এভারগ্রিন স্পোর্টিং ক্লাব এন্ড ওয়েলফেয়ার সোসাইটি এবং পাম এভিন্যুউ ফ্রেন্ডস গার্ডেন – এই দুটি সংস্থার হাতে হুইলচেয়ার গুলি তুলে দিয়ে জাইদ আনোয়ার বলেন,” আমার এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা যদি শারীরিক প্রতিবন্ধী এবং বরিষ্ঠ নাগরিকদের ভোট কেন্দ্রে পৌছোতে সাহায্য করে , তবে একজন সুনাগরিক, সমাজসেবী, কারী অহমের ফাউন্ডেশনের পথচলা সার্থক হবে।”
এদিন কারী অহমের ফাউন্ডেশনের সাথে এই অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ড. অরুঞ্জতী ভিক্ষু, শেখ গুলাম রব্বানি প্রমুখ।

কোনো আসন প্রার্থীর জন্য নিশ্চিত নয় – নন্দিনী মুখার্জি

শুভাবরি ডিজিটালডেস্ক , 7 মে, দেবাঞ্জন দাস, কলকাতা : সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচন নিয়ে উতপ্ত হয়ে রয়েছে রাজ্য রাজনীতি । নির্বাচনের প্রথম থেকেই বামেরা নিজেদের হারানো শক্তি ফিরে পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছে । কলকাতা উত্তর ও দক্ষিন এই দুই কেন্দ্রের ভার দিয়েছেন নারী শক্তির হাতে। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা নন্দিনী মুখার্জি রয়েছেন কলকাতা দক্ষিনের এবং কনীনিকা বোস(ঘোষ) রয়েছেন কলকাতা উত্তরের প্রার্থী। প্রার্থীদের সাথে একই সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের প্রাক্তন সাংসদ মালিনী ভট্টাচার্য্য ।
“বিভিন্ন সাংবাদিক সম্মেলনে এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে আমরা প্রশ্নের সম্মুক্ষীণ হচ্ছি যে, আপনার কি জিতবেন ?” সম্মেলনের প্রথমেই বললেন নন্দিনী মুখার্জি। তিনি বলেন, “যে দিন থেকে ভোটের প্রার্থী ঘোষনা হয়েছে তার পর থেকেই মানুষের সাথে কথা বলার চেষ্টা করছি, তাদের দু:খ-কষ্ট বোঝার চেষ্টা করছি । দেখা যাচ্ছে মানুষ খুব সত:স্ফূর্তভাবে আমাদের সাথে কথা বলছে, মিশছে । তারা মনে করছে যে বামপন্থীরাই তাদের একমাত্র বন্ধু। ” দল বদল প্রসঙ্গে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, “ঘোড়া কেনা-বেচা কোনোদিনও পশ্চিমবঙ্গের সংস্কৃতি ছিল না । বর্তমানে কোনো আসন কোনো প্রার্থীর জন্য নিশ্চিত নয়। সাম্প্রদায়িকতা গত আট বছরের ফসল। রাজনৈতিক কার্যকলাপে ধর্মকে যুক্ত করা উচিত নয়।”
তিনি জোর দিয়ে বললেন, “দক্ষিন কলকাতা এমন একজন সাংসদকে খুঁজছে যিনি মানুষের পাশে থাকবেন, সার্বিক উন্নয়নের কথা ভাববেন । “
অন্যদিকে রাজনীতিকে অঙ্কের সমীকরনের তকমা দিতে নারাজ কলকাতা উত্তরের বামপ্রার্থী কনীনিকা বোস। বামফ্রন্ট যে মানুষের অধিকার নিয়ে সারা জীবন লড়াই করে এসেছে সেটা তিনি বার বার বুঝিয়ে দেন। তৃণমূল এবং বিজেপি বিরোধী ভোট যে বামেদের বাক্সে পরবে সে ব্যপারে তিনি আশাবাদী। তার এলাকার প্রায় 90% স্থান ঘুরেছেন বলে তিনি দাবি করেন। প্রতিপক্ষ একটি প্রশ্নে তিনি স্পষ্ট বলেন “লড়াইটা তৃণমূল এবং বিজেপি উভয়ের সাথেই।” কনীনিকা দেবী জনসাধারণের ওপর ভরসা রাখছেন। তিনি বলেন, “নির্বাচকমণ্ডলী স্বাধীনভাবে নিজেদের প্রার্থী বেছে নেবেন এটা আমাদের আশা। “

তৈরী হল “বাংলা বাচাও “

শুভাবরি ডিজিটালডেস্ক,4মে,কলকাতা: এক বছর আগে থেকে পরিকল্পনা এবং পথ চলা শুরু হয়েছিল। আজ সংবাদ মাধ্যমের সামনে নিয়ে সরাসরি হাজির বাংলা বাচাও এর সংযোজকরা। কলকাতা প্রেস ক্লাবে অনিমেষ বিশ্বাস, জয়ন্ত গুহ, দেবপ্রিয় চৌধুরীরা জানালেন অকথিত কথা।
প্রবাসী বাঙ্গালীরা এই রাজ্যের জন্যে তৈরি করেছেন এই সংগঠন। তাদের দাবি, রাজ্যে 42 টি ইউনিটে তাদের 10-15 জন সক্রিয় সদস্য রয়েছেন। জয়ন্ত গুহ দাবি করেন, দক্ষিণ 24 পরগনা ও মুর্শিদাবাদ থেকে অনেক সংখ্যক মুসলমানরা রোজগারের জন্যে অন্য রাজ্যে চলে যাচ্ছে। অজানা কারনে এ রাজ্যে সিনেমা চলতে দেওয়া হয় না। মোদী সরকার যেমন দৃঢ হাতে সমষ্যার মোকাবিলা করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, এ রাজ্যকেও “বাংলা বাচাও” নতুন দিশা দেখাতে কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

অপেক্ষা ফণীর

ওড়িশাতে তাণ্ডব চালিয়ে বাংলা মুখী ‘ ফণী ‘ । প্রহর গুনছে শহর । কলকাতার অন্যতম দুই ব্যস্ত অঞ্চলের ফণী আসার আগে এই মুহুর্তের অবস্থা তুলে ধরলেন আমাদের প্রতিনিধি।

https://youtu.be/VnD1tQ3Sza8

গুরুতর অভিযোগ অধীরের


শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, 2মে , কলকাতা: আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে রীতিমত সাংবাদিক সন্মেলন করে তৃনমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনলেন। তিনি বলেন, দিল্লীর পাওয়ার লবিকে নির্বাচনের আগেই তৃনমূল কব্জা করে নিয়েছেন। যদিও এই লবি কোন দলের সাথে যুক্ত নন বলে অধীর বাবুর দাবি। তবে পক্ষপাতিত্বের দোষে দুষ্ট বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবেকে অপসারনের জন্যে আজ দিল্লী যাচ্ছেন। রাজ্য নির্বাচন আধিকারিককে তৃনমূলের লোক বলে অভিযুক্ত করেন।

মিট দ্যা প্রেসে পার্থ চ্যাটার্জি

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, 27 এপ্রিল,দেবাঞ্জন দাস, কলকাতা : সাংবাদিক সম্মেলনের প্রথমেই সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের মহা সচিব 2019লোকসভা নির্বাচনের কারণ হিসাবে বললেন,” এই নির্বাচনের ফলে বোঝা যাবে সমগ্র জাতি কোন দিকে অগ্রসর হবে , কৃষকরা এগোতে পারবে কিনা , সার্বিক উন্নতি হবে কিনা তা নির্ধারণ করবে এই নির্বাচন।”
তিনি জোর দিয়ে বলেন,” যবে থেকে আমরা ক্ষমতায় এসেছি মমতা ব্যানার্জীর নেতৃত্বে আমরা সারা বছর মানুষের কাছে পৌছে যাচ্ছি। মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার ক্ষুন্য করা হচ্ছে। সারা দেশ জেনে গেছে যে বাংলা থেকে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি শক্তি উঠে আসছে । মমতা ব্যানার্জি ছাড়া দেশ গড়া সম্ভব নয়। মানুষ যেখানেই সমস্যার সম্মুক্ষীণ হবে সেখানেই রুখে দাড়াবে মা মাটি মানুষের সরকার । “
এই কয়েকবছরে উন্নয়ন নিয়ে কোনো প্রশ্ন করতে পারেনি বলে দাবী করেন পার্থ বাবু।
কেন্দ্রীয় সরকার তরুন প্রজন্মের কাছে কোনো নতুন পথ খুজে দিতে পারেনি বলে অভিযোগ করেন তিনি।
তিনি যোগ করেন,”বর্তমানে যেভাবে নির্বাচন চলছে তাতে মানুষের মনে নির্বাচন কমিশন কে নিয়ে প্রশ্ন উঠবে । মমতা বন্দোপাধ্যায় ব্রিগেড থেকে বিজেপি বিরোধী শক্তির যে ডাক দিয়েছেন তাতে তিনি বলেছেন আঞ্চলিক দল গুলিকে একত্রিত করতে । ”
তৃণমূল সরকারের কাজের ফিরিস্তিতে তিনি বলেন, প্রাইমারি স্কুল ,উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, শিক্ষক নিয়োগ বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন থেকে শুরু করে ছাত্র ছাত্রীদের বিদ্যালয় মুখী করে তোলার ভুমিকা তারা ভালো ভাবেই করেছেন বলে দাবী করেন।
তার দাবী ,” মোদীর এখানে বার বার সভা প্রমান করে যে মমতা ব্যানার্জি মোদী বিরোধী শক্তির প্রধান কারিগর। “
ভাটপাড়া উপনির্বাচনে মদন মিত্র র প্রার্থী হওয়া ও জেতা নিয়ে তিনি যে আত্ম বিশ্বাসী সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই

মিট দ্যা প্রেসে সূর্য কান্ত মিশ্র

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, 27এপ্রিল কলকাতা : আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকের মুখোমুখি হলেন সি পি এমের রাজ্য সম্পাদক সূর্য কান্ত মিশ্র। প্রথমেই বামশিবিরের অস্তিত্ব নিয়ে তিনি সরব হন । বি জে পি ও তৃণমূলের যোগসূত্র আছে তা তিনি দাবী করেন। তিনি বলেন, ” তৃণমূল এবং বিজেপি এবারের নির্বাচনে নিজেদের মধ্যে ভোট ভাগাভাগি করে নিয়েছেন। বর্তমানে গনতন্ত্রের উপর হামলা চলছে । প্রধানমন্ত্রী আগের নির্বাচনে যা যা বলেছেন তার বিপরীত ঘটনা ঘটছে । সেরকমই বাংলায় কর্মসংস্থানের বদলে কর্মসঙ্কোচন ঘটছে । NRC ,রাম মন্দির নিয়ে রাজনীতি চলছে ।এই কেন্দ্রীয় সরকার এই নির্বাচনে অপসারিত হবে। বামপন্থী শক্তি বৃদ্ধি পাবে “। তৃণমূলকে আঞ্চলিক দল বলে দাবী করলেও বামপন্থীদের সাংগঠনিক দুর্বলতার জন্য তিনি কিছুটা বিব্রত হন।
বিভিন্ন দলের কর্মীদের ওপর হামলা হলেও বামপন্থীরা প্রধান লক্ষ্য বলে তিনি দাবী করেন ।তিনি বলেন ,”বর্তমানে যদি কোনো দল লড়াইয়ের ময়দানে থাকেন তবে তা বামফ্রন্টই “। কংগ্রেসকে নিয়ে যে তিনি কোনো বিতর্কে যেতে চান না তা তার ভাষণে বার বারই উঠে আসে।
তিনি জোর দিয়ে বলেন যে গত ব্রিগেড বুঝিয়ে দিল যে আমাদের অবস্থান কথায়ে ।

মিট দ্য প্রেসে দিলীপ ঘোষ

শুভাবরি ডিজিটালডেস্ক,25এপ্রিল ,দেবাঞ্জন দাস ,কলকাতা:
সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের সবে তৃতীয় দফা শেষ হয়েছে। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ সদ্য সমাপ্ত 10আসনে নিজেদের চালকের আসনে রাখছেন। এবার পশ্চিমবঙ্গ থেকে 23টি আসন উপহার দেওয়ার কথাও ঘোষনা করেন কলকাতা প্রেস ক্লাব আয়োজিত এই মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে ।
তিনি বলেন, ” এখন বাংলায় হিংসা কলুষিত রাজনীতি চলছে। সাধারণ মানুষের সুরক্ষার জন্যই কেন্দ্রীয় বাহিনী। গত পঞ্চায়েতে যেমন অনেকে মনোনয়ন জমা দিতে পরেন নি। এবারেও ভোট দান থেকে সাধারণ মানুষকে বাধা দেওয়া হচ্ছে।রাজনীতির মধ্যে হিংসা প্রবেশ করেছে।”
কিছুদিন আগে নরেন্দ্র মোদী ব্রিগেডে বলেছিলেন পরিবারতন্ত্রের কথা । তাঁকে ভর করেই সোমেন মিত্র বলেছিলেন, ” মানুষ যদি পরিবারতন্ত্রকে মেনে নেয় তাহলে কিসের অসুবিধা”। সেই প্রসঙ্গে দিলীপ বাবু বলেন, ” আগে মানুষের কাছে কোনো বিকল্প রাস্তা ছিল না, কিন্তু এখন আছে । আগে মমতা বন্দোপাধ্যায় কিছু হলেই সি বি আই তদন্তের কথা বলতেন এবং ভোটের সময়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবি করতেন। তিনি আজ ভয় পাচ্ছেন, উন্নয়ন যদি করে থাকেন তাহলে ভয় পাওয়ার কি আছে?” তিনি বলেন,
পে-কমিশন, চাকরির বাজার, শিল্প সব ক্ষেত্রেই এ রাজ্য পিছিয়ে। আগামী দিনে শিক্ষিত-অশিক্ষিত সবার জন্য যে চাকরির বাজার খুলে যাবে সেটি তিনি দৃঢ়তার সাথে বলেন।
নারদা সারদা নিয়ে যে তার দলই প্রথম এগিয়ে আসেন তার কথায় সেটা স্পষ্ট । রামমন্দির নিয়ে দিলীপ বাবু সুপ্রিম কোর্টের রায়ের ওপর আস্থা রাখছেন।
মোদী হাওয়া যে বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে ভালই উঠেছে বলে তিনি দাবি করেন। তবে কিছু প্রশ্নের উত্তর 23মে তেই যে লুকিয়ে আছে তাও তিনি স্বীকার করে নেন।

মিট দ্যা প্রেসে সোমেন মিত্র

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,24 এপ্রিল ,কলকাতা: আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে চতুর্থ দফা লোকসভা নির্বাচনের আগে মিট দ্যা প্রেসে হাজির ছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র।
তিনি তার ভাষণে স্পষ্ট বলেন ,

” বর্তমানে যে অরাজকতা চলছে তাতে পশ্চিমবঙ্গ তথা ভারতে কংগ্রেস ছাড়া এই মুহুর্তে কোনো বিকল্প নেই । আমাদের নেতা রাহুল গান্ধী কৃষকদের যে ঋণমুক্তির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন সেটা তিনি করে দেখিয়েছেন। ইন্দিরা গান্ধী দারিদ্র দুর করার জন্যে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা সম্পূর্ণ করার জন্যে পরিকল্পনা করেছিলেন। স্বাধীনতার পর থেকে ভারতবর্ষকে কংগ্রেস এগিয়ে নিয়ে গেছে। কিছুদিন আগে অবধি আমরা সাংগঠনিক ভাবে পিছিয়ে থাকলেও এখন তা আর নেই। “
তিনি আরও বলেন, রাহুল গান্ধী যে ন্যায় প্রতিষ্ঠার কথা বলেছেন তার জন্য সাধারণ মানুষকে কেন্দ্রে কংগ্রেস সরকার গঠন করার জন্যে সরকার গঠন করতে হবে।
তিনি বলেন, “আচ্ছে দিন আসেনি, উল্টে অর্থনীতি তলানিতে, কর্মসংস্থান নেই, কৃষকরা আত্মহত্যা করছে। সৈরতন্ত্র শাসনে মানুষ এখন নাজেহাল । দেশের জন্য গান্ধী পরিবার যে ত্যাগ স্বীকার করেছে তা অন্য কোনো দল করেনি ।”

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “আগে সংখ্যালঘু মানুষ আমাদের সাথে না থাকলেও বর্তমানে আমাদের সাথে যোগ দিচ্ছে। “
কেন্দ্রে সরকার গঠনে যদি তৃণমূলের সাথে জোট করতে হয়ে সেক্ষেত্রে সোমেন বাবুর আপত্তি নেই বলেও তিনি জানান। আগামী দিনে বামপন্থীরা একজোট হয়ে প্রার্থী দিতে চাইলে সেক্ষেত্রেও তারা আলোচনায় রাজি।

ক্ষোভে রেশন ডিলাররা

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ১০এপ্রিল ,কলকাতা: কেন্দ্রীয় খাদ্যনীতি এবং খাদ্য সরবরাহ নীতির ফলে রীতিমত বিপদের মুখে PDS ব্যবস্থা। তার সাথে নতুন সংযোজন হল e-POS চালু করার আদেশ।

http://shubhabori.co.in/inshot_20190410_205935564/

আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে All India Fair Price Shop Dealers’ Federation এর সাধারন সম্পাদক বিশ্বম্ভর বসু একথা জানিয়ে বলেন, “সারা দেশে ৫,২৭,৩২২ এবং পশ্চিমবঙ্গে ২০,২৭৮ টি রেশন দোকান আমাদের সদস্য। এই e POS চালু করতে গেলে আগে দোকানের কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিতে হবে। প্রথম দিকে এন ডি এ র শাসনকলে একাংশে নষ্ট করা হয়েছিল PDS ব্যবস্থাকে । এবারও একই পথ নিয়েছে এন ডি এ ।তাই তারা এবারের নির্বাচনে তৃণমূল সরকারের পক্ষ নিতে চলেছেন।

রাষ্ট্রীয় মিথ্লা একলতা সমিতির উরস পালন

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,7এপ্রিল,কলকাতা: সম্প্রতি বড়বাজারে রাজকাট্রাতে জুম্মা পির শাহ উরস করা হয় দরিদ্রদের জন্য । উপস্থিত ছিলেন Yesser Haider ( Trinamool Congress Yuva Leader), Rajesh Sinha ( Burrabazar TMC leader), এবং সমিতির সভাপতি মহ কামার এলাহি।

দক্ষিণ কলকাতা কি মিতার হবে ?



শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ৩১ মার্চ , কলকাতা: ভোটার যুক্তি এবং ভোটারদের চাহিদা মেনেই দ: কলকাতায় প্রার্থী দিয়েছে কংগ্রেস। সংবাদ মধ্যমের সাথে প্রার্থী পরিচয় করতে এসে কংগ্রেস নেতা প্রদীপ ভট্টাচার্য বলেন “মিতা চক্রবর্তী আদ্যন্ত বাঙালী এবং শিক্ষিত মহিলা । আমরা আশা করি এই কেন্দ্র একজন যোগ্য প্রার্থী পেয়ে তার সদ ব্যবহার করবে ।এখানকার ৭৮- ৭৯ টি স্পর্শকাতর বুথে যেন কেন্দ্রীয় বাহিনী রাখা হয়। তার অভিযোগ ৩-৪ টি জেলার এস পি এবং ডি এম দের শাশকদলকে ফোনে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এটি কমিশনকে জানানো হয়েছে। “

সচেতনতায় এ ভি বি পি

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ২৯ মার্চ, কলকাতাঃ অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ ( এ ভি বি পি )আজ এক সাংবাদিক সন্মেলনে নির্বাচনের প্রাক্কালে ভোটারদের প্রতি বার্তা দিল। সংগঠনের রাজ্য সভাপতি সপ্তর্ষী সরকার এ প্রসঙ্গে বলেন, সকাল সকাল ভোটদান পর্ব সারতে হবে। 100% ভোটদান তারা আশা করেন রাজ্যবাসীর কাছে। নোটা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এতে ভোটাররা কখনো উপকৃত হন না। তাই নোটাতে ভোট না দিয়ে পছন্দের কাউকে ভোট দিন। তিনি আরও বলেন, রাজ্যব্যাপী এ বিষয়ে অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ প্রচার চালাচ্ছে।
সাংবাদিক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ এস এস সি আন্দোলনকারীদের পাশে আছে। প্রতিশ্রুতি মত মুখ্যমন্ত্রী কাজ না করলে তারা বৃহত্তর আন্দোলনের পথে যাবেন।।
আজ সাংবাদিক সন্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভারী অনুপ সাহা, কলকাতা সম্পাদক মৃন্ময় দাস, জাতীয় এক্সিকিউটিভ কমিটি সদস্যা পায়েল ধর।

কথা রাখলেন অখিলেশ



শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ২৬মার্চ, দেবাঞ্জন দাস, কলকাতা: গত ১৯জানুয়ারী ব্রিগেড ময়দানে United Indiaর ডাক দিয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায় । সভায় ছিলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী সহ দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের হেভিওয়েট নেতারা। ছিলেন সমাজবাদী পার্টির কাণ্ডারি অখিলেশ যাদবও।

তৃণমূল নেত্রী সেই সভায় মোদী হটাও বার্তা দিয়েছিলেন এবং তার সাথে গলা মিলিয়েছিলেন সব নেতা নেত্রীরাও। সমাজবাদী পার্টি যে তৃণমূলের পক্ষে তা আরেকবার মনে করিয়ে দিলেন দলের রাষ্ট্রীয় উপ সভাপতি কিরণময় নন্দ । ২০১৯র লোকসভা নির্বাচনে তারা পশ্চিমবঙ্গ থেকে মমতা বন্দোপাধ্যায়কে সমর্থন করছেন, ফলে এখানে তারা কোনো প্রার্থী তারা দিচ্ছেন না।
গতকাল এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন “২০১৬ সাল পর্যন্ত আমরা বামেদের সাথে ছিলাম ,কিন্তু তার পর মতবিরোধের দরুন সেখান থেকে বেরিয়ে আসি । দেশে যে রাজনৈতিক বাতাভরন তৈরি হয়েছে , তাতে মোদী বিরোধী ডাক আরোও চরমে উঠেছে । দেশের মানুষের কল্যাণের জন্য দিল্লির মসনদে আর মোদিকে বসানো যাবে না।”
তিনি বলেন, উত্তর প্রদেশে মায়াবতীর বহুজন সমাজবাদী পার্টির সাথে গাঁঠছড়া বেধেছেন তারা । উত্তর প্রদেশে তার দল ৩৬টি আসনে লড়াই করবেন। যদিও সব মিলিয়ে কত আসনে তারা লড়বেন এখন পর্যন্ত তার সঠিক পরিসংখ্যান পাওয়া যায়নি। তিনি মনে করিয়ে দেন যে , লোকসভা নির্বাচনের নির্ণায়ক ভুমিকা পালন করে উত্তরপ্রদেশের ৮০টি আসন । অতএব সেখানেই হানা দেওয়া তাদের মুল লক্ষ্য। এবার আজমগড় থেকে লড়ছেন দলের নেতা অখিলেশ যাদব। তার দাবী , গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি যে নির্বাচনী ইস্তেহার প্রকাশ করেছিল তার একটিও প্রতিশ্রুতি সম্পূর্ণ হয়নি।
সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বলেন তারা এরাজ্যে নিজেদের মত করে তৃণমূলের জন্য প্রচার করবে। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে তারা এখানে প্রার্থী দেওয়ার কথা ভাবছেন ,তবে সেক্ষেত্রে সমাজবাদী পার্টি তৃণমূল বা অন্য কোনো দলের সাথে গাঠছড়া বাধবে কিনা সেটা ভবিষ্যৎ বলবে।

রাস্তা অবরোধ

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,২৫ মার্চ , কলকাতা : আজ চরুমার্কেট থানা এলাকায় অটো চালককে গ্রেপ্তার করাকে কেন্দ্র করে অটো চালকরা সন্ধ্যা সাতটা থেকে আটটা পর্যন্ত টিপু সুলতান মজ্জিদের সামনে (আনোয়ার শাহ রোড) অবরোধ করে।তাদের দাবী অবিলম্বে ওই চালককে মুক্ত করতে হবে ।পরে বিশাল পুলিশ বাহিনী এসে পরিস্থিতি আয়ত্তে এনে অবরোধ তুলে দেয়।

পাশে আছি -সৃজন ভট্টাচার্য

ছবি দেবাঞ্জন দাস

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ২৩ মার্চ , দেবাঞ্জন দাস, কলকাতা :এস এস সি পরীক্ষায় প্যানেলভুক্ত চাকরি প্রার্থীদের অনশন আজ ২৪ দিনে পড়ল। একে একে এসে তাদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, যদিও অনশনকারীদের তরফ দাবী যে তাদের এই মঞ্চ সম্পুর্ণ অরাজনৈতিক।

ছবি দেবাঞ্জন দাস

আজ যৌথ ভাবে সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার থেকে মিছিল করে কলকাতার মেয়ো রোডে আসে এস এফ আই, ডি ওয়াই এফ আই এবং পশ্চিমবঙ্গ গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতি, অনশনকারীদের সাথে দেখা করেন । এস এফ আই এর রাজ্য সম্পাদক সৃজন ভট্টাচার্য দাবী করেন,” পুলিশ প্রশাসন আজ অনশকারীদের অনশন তুলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। এটি সম্পূর্ণ অনৈতিক । কিছুদিন আগে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মেট্রো চ্যানেলে ধর্নায় বসেন , সেখানে ছিলেন বিভিন্ন উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্তারাও ।” আজ উপস্থিত ছিলেন মহিলা সমিতির সদস্যা সোমা দাস সহ প্রমুখ। তারা অনশনকারীদের সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দেন । উল্লেখ্য, যেহেতু চাকরি প্রার্থীরা রাজনৈতিক রঙ লাগাতে চান না তাই সৃজন বাবুরা কোনো রকম ব্যানার বা পতাকা ছাড়াই অনশন মঞ্চে প্রবেশ করেন।

ঘরের ছেলে মিজানুর

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ২৩ মার্চ, কলকাতাঃ ‘ বসিরহাটকে আমি হাতের তালুর মতো চিনি। পিছিয়ে পড়া মানুষের পাশে কখনো প্রশাসনকে দাড়াতে দেখিনি। চোখের সামনে দেখছি টাকি রোড কিভাবে সংস্কারবিহীন হয়ে পড়ে আছে শুরু থেকেই। তাই জন্মভূমির প্রয়োজনে আজ United Socialist Partyর টিকিটে এবারের লোকসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দীতা করব।’—-গতকাল এক সাবাদিক সন্মেলনে দলের পক্ষ থেকে নিজের প্রচার এভাবেই শুরু করলেন United Socialist Partyর রাজ্য সম্পাদক মিজানুর রহমান। তিনি আরও বলেন, বসিরহাটে আলিয়া ক্যাম্পাস বানাতে চায় তাদের দল।
দলের রাজ্য সভাপতি সমীর বন্দোপাধ্যায় বলেন, তাদের দল এবার 10 টি আসনে প্রার্থী দেবে। এর মধ্যে হাওড়া, হুগলী, মালদা, মুর্শিদাবাদ, দ: দিনাজপুর, বসিরহাটও রয়েছে।

জুটি বেঁধে প্রচার

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ১৯ মার্চ, কলকাতাঃ বামফ্রন্ট তাদের প্রার্থীতালিকা ঘোষণার ঠিক কয়েকঘন্টা পরেই আজ গড়িয়া থেকে টালিগঞ্জ পর্যন্ত এবারের যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রে তাদের মনোনীত প্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য কে জয়ী করার জন্য মিছিল করেন দলীয় কর্মীরা।

উপস্থিত ছিলেন বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য সহ সুজন চক্রবর্তী। মিছিলে উল্লেখযোগ্য ভাবে মহিলাদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেল । – ছবি দেবাঞ্জন দাস।

ক্ষত্রীয় সমাজের ঘোষনা

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ১৯ মার্চ, কলকাতাঃ অখিল ভারতীয় ক্ষত্রীয় সমাজ আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগে । কেন্দ্রীয় সরকারের সাম্প্রতিক ঘোষিত অর্থিক বিচারে পিছিয়ে পর মানুষের জন্যে ১০%সংরক্ষণের বিষয়টির ভূয়সী প্রশংসা করে।আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি মহেন্দ্র সিংতোমার একথা জানিয়ে বলেন, “সংরক্ষণের বিষয়টি সংবিধান প্রণেতারাও কখন বলেননি ।ক্ষত্রীয় সমাজ যে কোনো প্রকার সংরক্ষণের বিরোধিতা করে আসছে প্রথম থেকেই ।”
সংগঠনের সাধারন সম্পাদক মনোজ সিং আদর্শ বলেন,” রাজনীতির কারনে এই সংরক্ষণের নীতিকে অবিলম্বে বন্ধ কড়া উচিত তার পরিবর্তে অর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে পরা মানুষ সংরক্ষণের আওতায়ে আসুক।” পাশাপাশি রাজ্যে হাওড়া জেলায় একটি হিন্দি বিশ্ববিদ্যালয় খোলার উদ্দোগকে তিনি সাধুবাদ জানিয়েছে।

আসরে জমিয়তে ইসলামী হিন্দ

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক,১৬ মার্চ, কলকাতাঃ ১৭ তম লোকসভা নির্বাচনের দিন ঘোষনার কয়েক দিনের মধ্যে জমিয়তে ইসলামী হিন্দ তাদের রাজনৈতিক অবস্থান সমক্ষে আনল। আজ প্রেস ক্লাবে এক সাবাদিক সন্মেলনে এ প্রসঙ্গে সংগঠনের রাজ্য সভাপতি মহ: নুর উদ্দিন বলেন, তারা সমস্ত রাজনৈতিক দলের প্রার্থী ঘোষনার পর সর্বভারতীয় স্তরে তাদের মত স্পষ্ট করবেন। তবে বিজেপি প্রার্থীদের কোন মূল্যেই সমর্থন করবেন না।

তিনি আরও বলেন, তাদের এই রাজ্যে ৮৫০ জন সদস্য এবং দেশে ৫ লাখ সমর্থক রয়েছে। প্রার্থীর গুনাগুন বিচার করে ভোট দিতে সমর্থকদের অনুরোধ করবেন তারা। এদিন সংগঠনের মিডিয়া সম্পাদক ড. মশিহুর রহমান সহ অন্য নেতারা ও উপস্থিত ছিলেন।

ভোটের মুখে ধর্মঘট

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ১৪ মার্চ, পলাশ পাত্র , কলকাতা : গোঁদের উপর বিষ ফোঁড়া। একদিকে যেমন সুনামির মতো ভাঙ্গন আচরে পড়ছে দলে অন্যদিকে চটকল শ্রমিকদের হঠাৎ ডাকা একদিনের ধর্মঘট কিছুটা হলেও, বিভ্রান্তির মুখে পড়বে রাজ্য প্রশাসন। আজ এক সাংবাদিক সন্মলনে সিটুর পক্ষ থেকে অনাদি সাউয়ের নেতৃত্বে ছ’টি ট্রেড ইউনিয়ন চটকল শ্রমিকদের বিভিন্ন দাবি দাবার কথা তুলে ধরেন। অনাদী বাবু বলেন কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের দিন প্রতিদিনের বঞ্চনার ফলে একরকম বিপদের মুখেই পরছে। তিনি দাবি করেন রাজ্যে উৎপাদিত পাট জাত জিনিষের আশি শতাংশ কিনে নেয় কেন্দ্রীয় সরকার, কিন্তুু গত ১৩ তারিখে রাজ্য সরকারের সাথে শ্রমিক সংগঠনের যে চুক্তির খসরা তৈরী হয়েছে সেটি সম্পূন্য ভাবে শ্রমিক বিরোধী, গত চার বছরে আড়াই হাজার শ্রমিকের মজুরী মাএ দুই টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই নতুন চুক্তির প্রতিবাদে চট কল শ্রমিকরা একদিনের ধর্মঘটে যাচ্ছে।

জনতার দাবী

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ৮মার্চ, কলকাতাঃ গতকাল কলকাতা প্রেস ক্লাবে, সমাজের বঞ্চিত এবং প্রন্তিক গোষ্ঠীর দাবিকে সার্বজনীন করতে এবং ১৭ তম লোকসভা নির্বাচনে সমস্ত রাজনৈতিক দলের ইস্তেহারে তাদের দাবিগুলি যুক্ত করার আবেদন নিয়ে ছ’টি এনজিও এক যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করেছিল ।

রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির প্রণয় রায়, এস ইউ সি আই(সি) এর আইনালুর হক, আর এস পির প্রাক্তন সাংসদ মনোজ ভট্টাচার্য, প্রদেশ কংগ্রেসে অন্যতম সম্পাদক প্রশান্ত কুমার দত্ত প্রমুখ।

অসংগঠিত মহিলা শ্রমিক-চা মজুর, কৃষক, মৎসজীবিদের দাবিগুলো প্রায় সব রাজনৈতিক দলগুলি সমর্থন করলেও নির্বাচনী ইস্তেহার যে শুধু কাগুজে বাঘ তা বোঝা গেল এই সাংবাদিক সম্মেলনে। তবুও দাবিগুলো সহানুভূতির সাথে রাজনৈতিক দলগুলো বিবেচনা করবে বলে আশাবাদী আয়োজক এন জি ওরা।

স্টুডেন্টস্ ম্যানিফেস্টো প্রকাশ

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ৭ মার্চ, কলকাতা: আসন্ন নির্বাচনের প্রাক্কালে আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে স্টুডেন্ট ম্যানিফেস্টো প্রকাশ করল স্টুডেন্ট ইসলামিক অরগানাইজেজেশন অফ ইন্ডিয়ার পশ্চিমবঙ্গ শাখা । রাজ্য সভাপতি ওসমান গনি বলেন, “ভোটদাতাদের মধ্যে ছাত্র এবং যুবকদের সংখ্যা কিছু কম নয়।এবং এরা হচ্ছে সমাজের ও আগামী দিনের ভবিষ্যৎ ।অতএব, সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলির কাছে আমাদের দাবী যে ছাত্র-যুবদের কল্যাণ, উন্নতি ও নিরাপত্তা সহ বহু বিষয়কে সুনিশ্চিত করতে হবে ।” এদিন তিনি কিছু গুরুত্বপুর্ণ দাবী সাংবাদিকদের সামনে পেশ করেন।

তাদের মুল দাবিগুলি হল:

– অভিভাবকদের মধ্যে শিক্ষার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা বৃদ্ধি করতে হবে।

– শিক্ষাব্যবস্থাকে সহজলভ্য করে তুলতে হবে।

– শিক্ষার গুনগত মান বৃদ্ধি করতে হবে।

– তামাক এবং মাদকাসক্ত বিরোধী আইনকে কঠোর ভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে।

– যুব সম্প্রদায়ের কর্মসংস্থান এর ব্যবস্থা করতে হবে।

-স্কুলের পরিকাঠামোর উন্নতি করতে হবে।

-ব্যক্তির গোপনীয়তা যাতে কোনো ভাবেই খর্ব না হয় সে ব্যপারে লক্ষ্য রাখতে হবে।

-উচ্চশিক্ষার জন্য UGC কে একটি স্বশাসিত সংস্থা হিসাবে বহাল রাখতে হবে।

-মুসলিম এবং সংখ্যালঘুদের ক্ষেত্রে সংরক্ষণকে বাস্তবায়ন করতে হবে।এছাড়া বহু দাবীর কথা বলেন ওসমান বাবু।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবির আহমেদ, সুজাউদ্দিন আহমেদ, ইমরান হোসেন সহ প্রমুখ।

পূর্বাঞ্চল জনতা পার্টি( সেকুলার)

শুভাবরি ওয়েবডেক্স ২ফেব্রুয়ারি, কলকাতা : রীতিমত দলের উচ্চপর্যায়ের সদস্যদের নিয়ে আগামী লোকসভা নির্বাচনের জন্যে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করলেন পূর্বাঞ্চল জনতা পার্টি ( সেকুলার) দলের জাতীয় আহ্বায়ক শ্রী মুকেশ সিং। দিল্লি থেকে এসে আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সন্মেলনে তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের 42 টি অাসন সহ দেশের 347 আসনে তারা প্রার্থী দেবেন। নেতাজী সুভাষচন্দ্র বোসের আদর্শে অনুপ্রাণিত এই দল জাতি, ধর্ম, ভাষা ও আঞ্চলিকতার উর্ধে উঠে এক জাতিয়তাবাদী সমাজ তৈরী করতে চায়।

স্মার্ট ইন্ডিয়া হ্যাকথান ২০১৯ ফাইনাল

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২৮ ফেব্রুয়ারি, কলকাতাঃ কোনও দেশের এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রনী ভূমিকা নেয় তরুণরা। প্রশাসনের কাজ আরোও গতিশীল করে তুলতে, দেশের বিভিন্ন সমস্যার মোকাবিলায় শুরু হয়ে হয়েছিল স্মার্ট ইন্ডিয়া হ্যাকথান। তৃতীয় বছর জে আই এস গোষ্ঠীর গুরু নানক ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজিতে দেশের ৪৯ টি নোডাল সেন্টার, ১৩৫০ টি দলের ১০,৮০০ র বেশি প্রতিযোগী এখানে অংশ নেবেন আগামী ২ ও ৩ মার্চ। এখানে প্রতিযোগিতায় ডিজিটাল সমস্যা এবং তার সমাধান খুঁজে বের করবেন।অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জি এন আই টি-র নোডাল প্রিন্সিপাল শান্তুনু সেন, যে আই এস গোষ্ঠীর জি এম বিদ্যুৎ মজুমদার প্রমুখ।

আন্দোলনে বুদ্ধিজীবীরা

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২৬ফেব্রুয়ারি কলকাতাঃ সংস্কৃতির উপর আক্রমণ, বাকস্বাধীনতা খর্ব হচ্ছে দেশের বর্তমান শাসকের আমলে। এমনটাই দাবি বুদ্ধিজীবীদের। আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সন্মেলনে এ বিষয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রতুল মুখোপাধ্যায় বলেন, কাশ্মীর ভারতেরই একটি অংশ। তবুও সারা দেশে তাদের অত্যাচারিত হতে হচ্ছে। সংস্কৃতি আজ বিপন্ন।

তাই আগামী ২৩মার্চ দেশের মেট্রো শহরগুলোতে বুদ্বিজীবীরা “ঘৃনা ও অসহিষ্ণুতার বিরুদ্ধে শিল্পীরা” এই শিরোনামে প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন করবেন। তা আগে কলকাতার শিল্পী কবি সমাজকর্মীরা ৪ মার্চ রামমোহন লাইব্রেরী হলে গানে কথায় কবিতায় প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন করবেন।
আন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কবি সব্যসাচী দেব, মহিদুল ইসলাম, প্রফুল্ল চক্রবর্তী প্রমুখ।

ভারতরত্নের দাবীতে

শুভাবরি ওয়েবডেক্স ,২৬ফেব্রুয়ারি,কলকাতা :প্রায়াত বিশিষ্ঠ গায়ক কিশোর কুমার ও মহ. রফী কে ভারতরত্ন প্রদানের দাবীতে মোবাইল ই পেপার কলকাতা প্রেস ক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্বপন ব্যানার্জি, ফইসাল খান,খুরসিদ আহমেদ, মহ রাহাবুদ্দিন, আয়াজ আহমেদ খান গুড্ডু, আদিত্য সাহাল।

দেহদান আইনের ২৫ বছর পুর্তি

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২৫ ফেব্রুয়ারি, কলকাতাঃ মৃত শরীর ও জীবিতের কাজে লাগবে, সেটা বিভিন্ন ভাবেই। জন মানবে সচেতনতা বাড়াতে “গন দর্পন” , তাই ১৯৯০ থেকে কাজ করে চলেছে।” এখন অবধি ২১০০ মৃতদেহ মেডিকেল কলেজে দান করাতে সাহায্য করছে। অঙ্গীকার বদ্ধ হয়েছেন প্রায় ১৩ লাখ মানুষ,” জানালেন সাধারণ সম্পাদক সুদীপ্ত সাহা রায় । উপস্থিত ছিলেন ব্রজ রায় মহাশয়ও। চিকিৎসা বিজ্ঞানের উন্নতির জন্য মরনোত্তর দেহ দান আইন ১৯৯৪ এর ২৫ বছর পুর্তিতে এটি নিঃসন্দেহে একটি গুরুত্ত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।
“দেহদানের জন্য আমাদের উদ্দ্যোগ থাকা সত্ত্বেও ডাক্তারি পড়া ছাত্রদের মধ্যে মৃতদেহে কাটাছেড়া করে জ্ঞান অর্জনে কোনো ইচ্ছে বা সুযোগ নেই বললেই চলে, যদিও প্রত্যেকটি মেডিকেল ছাত্রকে অন্তত পক্ষে ১০ টি পোস্টমর্টেম করার কথা আবশ্যক বলা হয়েছে মেডিকেল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া” বলে জানালেন সংস্থার বর্ষীয়ান সদস্য ব্রজ রায়।

Welfare party of Indiaর প্রার্থী তালিকা প্রকাশ

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২২ ফেব্রুয়ারি, কলকাতাঃ আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে ওয়েলফেয়ার পার্টি অফ ইন্ডিয়ার রাজ্য সম্পাদক এবং সর্বভারতীয় সভাপতি তাদের সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকার কথা ঘোষণা করলেন কলকাতা প্রেস ক্লাবে।
সর্বভারতীয় সভাপতি এস আর কে ইলিয়াস বলেন “মোদী সরকারের আমলে সমস্ত সরকারি সংস্থাগুলোকে অপব্যবহার করছেন। যদিও তিনটি জোট, এন ডি এ, ইউ পি এ এবং 3য় ফ্রন্ট রয়েছে, তবুও এখানে একটি সেকুলার সরকার আমাদের প্রয়োজন”। তিনি আরও বলেন এবারের লোকসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে ৬ টি, কেরালা থেকে ৭ টি, মহারাষ্ট্র থেকে ৩ টি, গুজরাট থেকে ১ টি এবং তেলাঙ্গানা থেকে ১টি প্রার্থী দেবে তার দল। আগামী দিনে বাংলা এবং অন্যান্য রাজ্যে আরও আসন বাড়তে পারে।

http://shubhabori.co.in/inshot_20190222_181006308/

রাজ্য সভাপতি মনসার সেন বলেন, “১৩০ কোটি ভারতবাসীর দাবীদাওয়া পূরন করাই হলো ওয়েল ফেয়ার পার্টির মূল লক্ষ্য”। তার সাথে সাথে গনতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থাও তারা চাইছেন। এ রাজ্যে মালদা, মুর্শিদাবাদ, ডায়মন্ড হারবার, বসিরহাট, কোচবিহার, জঙ্গীপুর লোকসভা কেন্দ্রে তারা প্রার্থী দেবেন।
উল্লেখযোগ্য ভাবে তারা জঙ্গীপুর কেন্দ্র থেকে তারা প্রার্থী করেছেন সর্বভারতীয় সভাপতি এস আর কে ইলিয়াস কে। মনসার বাবু সেক্ষেত্রে যুক্তি দিয়েছেন, এই কেন্দ্র থেকে বিগত দিনে জয়ী হয়েছেন প্রনব মুখোপাধ্যায় ও তার ছেলেও। কিন্তু কোনভাবেই সেখানে কোন উন্নতি হয়নি। এখানে যেমন ধনী এবং গরিব দু ধরনের মানুষই বসবাস করেন। তবে তারা বলেছেন যে, কোনো ভাবেই যাতে ভোট ভাগাভাগি হয়ে ফ্যাসিবাদী ও সাম্প্রদায়িক দল সুবিধা করতে না পারে তার দিকে লক্ষ্য রাখবেন।
আগামী দিনে তারা অসাম্প্রদায়িক সমাজ গড়ে তুলতে বদ্ধ পরিকর।

জনশুনানী

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ১৪ ফেব্রুয়ারি, কলকাতাঃ All Bengal Chitfund Sufferers welfare Association র রাজ্য সভাপতি রূপম চৌধুরি আজ সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন ” রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারের টালবাহানায় এজেন্ট এবং আমানতকারীরা চরম ক্ষতির মুখে পড়েছে। তাই আগামী ২ মার্চে তারা হাওড়ার শরৎ সদনে এক জন শুনানীর আয়োজন করেছে। এদিন তিনি দাবী করেন মুখ্যমন্ত্রীর নির্ধারিত ৫০০ কোটি টাকার ফান্ড যা চিটফান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের দেওয়ার কথা তা মাত্র ১৩৯ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী বলছেন যে ৩০০ কোটি টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে। যদিও এই টাকার কোন সরকারি নথি আমাদের হাতে নেই”।

NAPMর সক্রিয় সদস্য আনিতা বাগ বলেন ,”২ মার্চএর জনশুনানীতে সমাজকর্মী মেধা পাঠকর ছাড়াও উপস্থিত থাকবেন প্রাক্তন বিচারপতি মলয় সেনগুপ্ত, মীরাতুন নাহার প্রমুখ”।

ফিরিয়ে দিচ্ছেন “বাংলার গৌরব সম্মান”

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ৯ ফেব্রুয়ারী, কলকাতা: দুজন অর্জুন বিজেতা জোৎস্না দত্ত এবং ছায়া আদক ,পশ্চিমবঙ্গ সরকারের দেওয়া “বাংলার গৌরব সম্মান” ফিরিয়ে দিচ্ছেন । তারা আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে দাবী করেছেন, সম্প্রতি হয়ে যাওয়াএকটি প্রতিযোগিতায় হাওড়ার ন’জন ভারোত্তলককে সুযোগ দেওয়া হয়নি । এর প্রতিবাদে তারা গতকাল মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীকে মেইল পাঠিয়ে তাদের এই সম্মান ফিরিয়ে দেওয়ার কথা জানিয়েছেন ।

আজকের সাংবাদিক সম্মেলনে জোৎস্না দত্ত বলেন, “বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের কর্মকর্তাদের মধ্যে অনেকেই খেলার সাথে যুক্ত নন। খেলার মান আগে থেকে অনেক পড়ে গেছে। ভারোত্তলনে বাংলা বেশ কয়েকবছর ধরে যেখানে শীর্ষে ছিল, সেখানে আজ অনেক পিছিয়ে” ।
তিনি আরও বলেন, “ভারোত্তলনে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় যে ৫০,০০০ টাকা সিকিউরিটি ডিপোসিট দিতে হয়, সেই টাকা রাজ্য সরকার দিতে পারেন। কারন খেলার উন্নয়নের জন্য যখন বিভিন্ন ক্লাবগুলিকে অনুদান দেওয়া হচ্ছে, সেখানে তা প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে উঠে আসা ভারোত্তলকদেরও ফেরতযোগ্য এই টাকা সরকার দিতে পারেন।

সাংবাদিক সন্মেলনে অন্যান্য ভারোত্তলকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কে ডি মন্ডল, কমল কান্ত সাতরা, আনন্দ চন্দ প্রমুখ।

বিশ্বের প্রথম Art &Craft Hotel

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, 5 ফেব্রুয়ারি, কলকাতা: শিল্প সংগ্রহ শালা বলতে বোঝায়, প্রাচীন শিল্প কর্মকে অতি যত্নের সাথে সংরক্ষণ করা। এমনই এক হোটেলের সন্ধান পাওয়া গেল Vizag কের সমুদ্র তটে। নাম The Andhra Art and Craft Hotel. আজ এক সাংবাদিক সম্মেলন করে এই হোটেলের আনুষ্ঠানিক সুচনা করেন হোটেলের জি এম সন্দীপ রেড্ডি এবং অন্যতম প্রতিনিধি সৌময়া বেলুব্বি। তারা বলেন, “ভারত শিল্প এবং শিল্পীদের অন্যতম পিঠস্থান। পুরোনো অনেক শিল্প বর্তমানে হারিয়ে যাচ্ছে। আমাদের এই হারিয়ে যাওয়া শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। তাই সেই কাজে আমরা ব্রতী হয়েছি। হোটেলের প্রবেশ পথ থেকে শুরু করে থাকার ঘর সব স্থানেই থাকছে বিভিন্ন শিল্পের নিদর্শন। এমনকি বারান্দাতে বসলেও বাগানে দেখা যাবে বিভিন্ন স্থাপত্য এবং ভাস্কর্য”। বিশ্বের মধ্যে এই রকম হোটেল তাদেরই প্রথম, একথা তারা দাবী করেন। তাদের কথায় কলমকারী, এটিকোপ্পাকা, থলু বোমালাটা নামক শিল্প কর্মের ছোঁয়া থাকছে এখানে। বর্তমানে ৮০ ওপর ঘর, তার মধ্যে ৭ টি কর্টেজ রয়েছে এখানে।
বুকিংঃ sales@palmbeachhotel.in
www.palmbeachhotel.in
08912754027.

হাত বাড়িয়ে নাগরিক

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ৪ফেব্রুয়ারি, কলকাতাঃ নাগরিকদের সুরক্ষার দায়িত্ব শুধু সরকারের না, সাধারণ মানুষেরও একাজে এগিয়ে এগিয়ে আসা উচিত। যেমন এগিয়ে এসেছেন Road Safety Organizationএর অন্যতম পরিচালক উৎপল বিশ্বাস। আগামী দিনের পরিকল্পনা অকপটে বললেন সংবাদ মাধ্যমকে:-

http://shubhabori.co.in/inshot_20190204_170357168/

একসাথে তিন F

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২ ফেব্রুয়ারি , কলকাতাঃFashion, Food, Fiesta অর্থাৎ এই তিনটি F নিয়ে F3 সেশন। Groomএবং Bridal, Cooking এবং Fashion Competition হচ্ছে ১৬, ১৭ ফেব্রুয়ারি কলকাতার অর্কিড গার্ডেনে।

১৪৭ জন অপুর্ব প্রতিযোগীদের হারিয়ে যাওয়া খাদ্য তৈরির প্রতিযোগীতা চলবে, চলবে বিনা ফ্লেমেরর রান্না ও আধুনিক রান্নার প্রতিযোগীতা। এই ভাবেই Bridal makeup প্রতিযোগিতা চলবে একই স্থানে। তার সাথে সাথে থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সকাল ১০ টা থেকে রাত ১০ টা অবধি। অনির্বাণ ঘোষ পায়েল মজুমদারের যৌথ উদ্যোগে নীল তারা প্রোডাকশান হাউস ও কৃতি কলা লারনিং আকাডেমী এই অনুষ্ঠানের আয়োজক।
ব্রান্ড আমবাসাডার সংগীত শিল্পী পিলু ভট্টাচার্য্য সহ আয়োজকরা আজ কলকাতা এ কথা জানান।

বদলে গিয়েছে চাষীর সংজ্ঞা

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ৩০জানুয়ারি, কলকাতাঃ বর্তমানে চাষীর সংজ্ঞা বদলে গিয়েছে। ফলে NSSএর তথ্যে চাষী আত্মহত্যার হার ও কম দেখা যাচ্ছে। সাম্প্রতিক তথ্যে ১০%র কম মানুষকে চাষী বলা হচ্ছে। কিন্তু ৫0%-৬0% মানুষ ক্ষেত থেকে মান্ডি অবধি জীবিকায় র য়েছেন, মহিলারাও চাষের কাজে যুক্ত থাকেন। আসলে কর্পোরেট দুনিয়া কৃষির দিকে হাত বাড়ানোর ফলে সমস্যা ভয়ানক হচ্ছে। এটা বন্ধ করতে হবে। ভূল অর্থনৈতিক পরিকল্পনার ফলে আজ কৃষক মৃত্যুমুখে। আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে দলিত ও সংখ্যালঘু উন্নয়ন পরিষদের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আবদুল মতিন। এদিন প্রদেশ কংগ্রেসের উপ-সভাপতি ড. ওমপ্রকাশ মিশ্র বলেন, রাহুল গান্ধী সম্প্রতি কৃষি ঋন মকুব করবেন বলে ঘোষনা ও করেছেন। প্রদেশ কংগ্রেস সম্পাদক প্রশাদত্ত বলেন, ডিজিটাল ইন্ডিয়া একটি সুন্দর ধারণা। কিন্তু কৃষিক্ষেত্রে ডিজিটাল বিক্রয় ব্যবস্থা কেন চালু হচ্ছে না? কৃষিঋণ মকুবের দাবিতে কংগ্রেস দীর্ঘদিনের আন্দোলন করছে।
এদিন “কৃষিঋণ মকুবের দাবিতে ” শীর্ষক আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের জাতীয় সভাপতি রাজু ঘোষ, প্রাক্তন বিচারপতি সমরেশ ব্যানার্জী, ইমতিয়াজ আলী প্রমুখ।

উজ্জিবনের অরুণ

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২৯ জানুয়ারী, কলকাতাঃ অপহরণ এবং অন্য ধর্মে ৪ র্থ স্ত্রী না হওয়ার অনিহা থেকে একটি গল্পের সূচনা। হারিয়ে যাওয়া বোনকে ফিরে পাওয়ার ঘটনাক্রম নিয়ে অরুন দেবনাথ লিখেছেন “Drifters”। কলকাতার দেজ পাবলিশিং থেকে (২৭৩ পৃষ্ঠার) প্রকাশিত এই বইটি এ বছরের বই মেলাতে ৫ ফেব্রুয়ারী প্রকাশ করবেন চিত্রপরিচালক গৌতম ঘোষ।
বাস্তবিক বাংলাদেশের খুলনা জেলার বাসিন্দা অরুন বাবু বর্তমানে ইংলেন্ডের বাসিন্দা। শুধুমাত্র নিজের জীবনবোধ নিয়ে গল্প লেখার তাগিদে উনি Creative Writing শিখে এটি লিখেছেন। ৬৬ বছর বয়সে এই অধ্যাবসায় অবশ্য নবপ্রজন্মকে / লেখককে উদ্বুদ্ধ করবে।

বিপদের মুখে সুরক্ষা

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২৮জানুয়ারি, কলকাতাঃ ভারত ও নেপালের মধ্যে পণ্য পরিবহণের ক্ষেত্রে এবার বিপদজ্জনক ভাবে কোন রকম বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই পণ্য পরিবহণ করা যেতে পারে। সাম্প্রতিক কেন্দ্রীয় বিজ্ঞপ্তির ফলে একদিকে যেমন ৫০০০০ এর বেশী গাড়ির মালিকরা জীবিকাহীন হয়ে পড়ছেন, অন্যদিকে বৈধ কাগজপত্র ছাড়া এই পরিবহণ ব্যবস্থা যেটি ECTS  এর মাধ্যমে চালানো হচ্ছে, তা দেশের পক্ষে সম্পূর্ণ অসুরক্ষিত বলে দাবী করেন ইন্দো – নেপাল ট্রাক ট্রেডারস ওনারস ওয়েলফেয়ার অ্যাসশিয়েশান এর সভাপতি  মনোজ কুমার তিওইয়ারি । তিনি বলেন এ বিষয়ে কলকাতা কাস্টম গত ২৫/১/২০১৯ এ একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন। তিনি দাবী করেন এই ECTS   ফলে দেশের বাণিজ্যিক এবং আর্থিক পরিসংখ্যান নেপাল ও চিনের কাছে বিনা বাধাতেই পৌছতে পারে। কারন নেপাল দূতাবাসে এবং ভারতীয় কাস্টম বিভাগ বর্তমান এই পদ্ধতির নিয়ন্ত্রক। তাই আগামী ২৯ জানুয়ারী ১১ নাগাদ ডি এম জি বিল্ডিং এর সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হতে চলেছে।

সপ্তকন্যার শুভ পরিণয়

শুভাবরি ওয়েবডেক্স,২৫ জানুয়ারী কলকাতা: বহু যুগ আগে থেকেই আমরা শুনে আসছি অনেক মেয়েদের বিবাহ ভেঙ্গে যায় শুধু টাকার অভাবে। কিন্তু গত সাত বছর ধরে এই কথাকে ভূল প্রমানিত করে আসছে বরানগর বন্ধুদল স্পোর্টিং ক্লাব। সমাজের পিছিয়ে পড়া কিছু কন্যাদায়গ্রস্ত বাবার চিন্তা দূর করছে তারা। এর প্রধান উদ্যোক্তা হলেন ক্লাব সম্পাদক এবং ২৪নং ওয়ার্ডের পৌরপিতা বাসব চন্দ্র ঘোষ। তিনি জানান, ” শুধু মাত্র বিয়ের আয়োজনই নয়, আমরা তাদের বিয়েতে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীও দিয়ে থাকি। তাদের জীবন যাতে সুখে কাটে তার খেয়াল রাখি আমরা”।

ক্লাবের অন্য এক সদস্যের কথায়: এই সাত বছরে তারা মোট ৪৩ জনের বিবাহ দিয়েছেন সুষ্ঠ ভাবে। বিবাহের আগে বর ও কণের থ্যালাসেমিয়া পরীক্ষা করিয়ে নেন তারা। বরানগর সিথি ময়দানে আজ সাতজন মেয়ে নিজের জীবন সঙ্গীকে আপন করে নিল। মাঠে বিয়ের আয়োজন ছাড়া ছিল সমস্ত অতিথিদের নৈশভোজের ব্যবস্থাও ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মদন মিত্র, কামারহাটি মিউনিসিপ্যালিটির চেয়ারম্যান গোপাল সাহা, ক্লাব সভাপতি অজয় ঘোষ প্রমুখ ।
মোটের ওপর মিডিয়া বন্ধুরাও জমজমাট বিয়েবাড়ির আনন্দ উপভোগ করল আজ।

সরব সুজন

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২৪ জানুয়ারী, কলকাতাঃ সম্মিলিত কেন্দ্রীয় বাস্তুহারা পরিষদের এক সাংবাদিক সম্মেলনে বাম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তী NRC কে প্রান্তিক মানুষের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা বলে বর্ণনা করেন। ১৯৫০ সাল থেকে উদ্বাস্তুদের পক্ষে লড়াই করে আসা এই সংগঠনের আগাম কর্মসূচী ঘোষণা করে তিনি বলেন; আগামী ২৯ জানুয়ারী রাজ্যের সমস্ত জেলাশাসক দপ্তরে উদ্বাস্তু সম্বন্ধিত দাবী স্মারক পেশ করা হবে।
উদ্বাস্তু সমস্যা সমাধানে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বক্তব্যের প্রশংসা করে তিনি বলেন, আগামী দু মাসের মধ্যে যেন মূখ্যমন্ত্রী বকেয়া দলিল প্রদান সহ সুষ্ঠ পুনর্বাসনের কাজ সম্পন্ন করে।না হলে তার ঘোষণাকে ভোটের চমক বলেই ধরে নেওয়া হবে। তিনি দাবী করেন ৯৯৭৬২ টি দলিলের কাজ বাম আমলেই সম্পন্ন করা হয়েছে। বর্তমান সরকার শুধু তা প্রদান করুন। ২৬০০ র বেশী উদ্বাস্তু কলোনীকে বাম সরকার স্বীকৃতি দিয়েছিল। যার মধ্যে ১৫৫৬ টি কলোনীর স্বীকৃতি কেন্দ্র দিয়েছে। অতএব রাজ্যের পাঠানো দাবীকে কেন্দ্র অবিলম্বে মান্যতা দিক এবং উদ্বাস্তুদের কেদ্রীয় সাহায্যের আওতায় আনা হোক।

নির্বাচন লড়বে লেবার পার্টি

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২২ জানুয়ারী, কলকাতাঃ অকৃত্তিম ধর্মনিরপেক্ষতা প্রতিষ্ঠা, ফ্যাসিবাদ মুক্ত সমাজগঠন, শোষন মুক্ত শাসন ব্যবস্থা গড়তে দেশের রাজনীতিতে প্রবেশ করল “লেবার পার্টির”।
এক সাংবাদিক সন্মেলনে এ ঘোষনা করেন দলের নির্বাচিত জাতীয় সভাপতি তাবারক হোসেন। তিনি বলেন, চলতি মাসে তারা নির্বাচন কমিশন থেকে নির্বাচনে লড়াই করার অনুমতি পেয়েছেন। আসাম, ঝাড়খন্ড ও পশ্চিমবঙ্গে সংগঠন তৈরীর কাজ শেষ হয়েছে। দলের সাধারণ সম্পাদক সুমিত ব্যানার্জী বলেন. এ রাজ্যে আগামী লোকসভা নির্বাচনে ৪২ টি আসনেই তারা প্রার্থী দেবেন। ঊল্লেখ করা যেতে পারে; সুমিত বাবু গত নির্বাচনে কলকাতার বেহালা পূর্ব কেন্দ্র থেকে শিবসেনার টিকিটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। যদিও অনেক প্রস্তুতির পর তারা এই দল গঠন করেছেন। তবুও এই মুহুর্তে নির্বাচনে সফল হওয়া প্রায় অসম্ভব বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

পিঙ্কির জন্য একদিন

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, কলকাতা:সম্প্রতি উত্তর কলকাতার সুকীয়া স্ট্রিটের ১১০ বছরের বারোয়ারি দূর্গা পূজা কমিটি বৃন্দাবন মাতৃ মন্দির প্রাঙ্গনে সুকীয়া স্ট্রিটে বার্ষিক স্কলারশিপ বিতরণ অনুষ্ঠান হয়ে গেল। এবার পিঙ্কি রায় স্মৃতি স্কলারশিপ সহ মোট ২১ জন রাজ্যের নানান প্রান্তের আর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে থাকা কৃতি ছাত্রছাত্রীদের ১০,০০০ টাকা করে সর্বমোট ২,১০,০০০ টাকা অর্থমূল্যের স্কলারশিপ প্রদান করা হল।
গত প্রায় ১ বছর ধরে গ্রহণ করা অসংখ্য আবেদনের মধ্যে থেকে মোট ২১জনকে মনোনীত করা হয়েছে এই স্কলারশিপের জন্য, এটি পঞ্চম বছর।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন: আন্তর্জাতিক দাবাড়ু দিব্যেন্দু বড়ুয়া , মোহনবাগান ক্লাবের সভাপতি এবং প্রখ্যাত আইনজীবী গীতানাথ গাঙ্গুলি ,
প্রাক্তন জাতীয় ক্রিকেটার এবং অনুর্দ্ধ ২৩ মিজোরামের কোচ শিব শংকর পাল,প্রাক্তন জাতীয় ফুটবলার হুসেন মুস্তাফি ,প্রাক্তন জাতীয় ফুটবলার অনিত ঘোষ, মন্ত্রী সাধন পান্ডে ,বিধায়ক স্মিতা বক্সি,অভিনেত্রী শিউলি গোমস সহ একাধিক বিশিষ্ঠ মানুষজন উপস্থিত ছিলেন।

মাননীয় রাজ্যপাল সমীপেষু

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২২জানুয়ারী, কলকাতাঃনিখিল বঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি আজ কলকাতা র রানি রাসমনি রোডের সমাবেশ থেকে তাদের 12 দফা দাবি ঘোষনা করল।
প্রাথমিক স্তরে পাঠ্যসূচী সংশোধন, পরিকাঠামো উন্নয়ন, বকেয়া মহার্ঘভাতা প্রদান সহ অন্যান্য দাবিতে মাননীয় রাজ্যপালকে একটি স্মারক লিপি দেওয়া হবে বলে জানান সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সমর চক্রবর্তী।

নতুন রূপে লোকতান্ত্রিক জনদল

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২১জানুয়ারী, কলকাতা ঃ ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের আগে লোকতান্ত্রিক জনতা দল পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে দল সাজানো শুরু করল। আজ দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ দত্ত সংগঠনের কমিটি ঘোষনা করলেন। সাথে ছিলেন অন্য এক সাধারণ সম্পাদক অরুন কুমার শ্রিবাস্তব। রাজ্যে কমিটির চেয়ারম্যান হ য়েছেন দিলীপ প্রামানিক। এই কমিটি একমাসের মধ্যেই জেলা কমিটি গঠন করবে বলে অমিতাভবাবু জানান।

সেও এক নারী।

শুভাবরি ওয়েবডেক্স,১৯ জানুয়ারী, কলকাতাঃ বিশাল বড় জনসভা দেশের সর্বপ্রান্ত থেকে নামী নামী ব্যাক্তিরা এখানে উপস্থিত হয়েছেন। উপস্থিত হয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী সহ অনেক অনেক বিখ্যাত ব্যাক্তিরা।উপস্থিত রয়েছেন রাজ্যের তথা দেশের অন্যতম সেরা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়, মিটিংয়ের স্থলের বাইরে অর্থাৎ যেখানে ইন্দিরা গান্ধীরা মুর্তিটি আছে, যা নারী শক্তির প্রতীক। ঠিক তার মুর্তির পাশেই শুয়ে আছে আর এক নারী অথর্ব অসহায় অবস্থায়। কিভাবে এই নারীদের মুক্তি আসবে তার জবাব কিন্তু আমাদের কারোর কাছে নেই, নেই উপস্থিত এইসব নেতাদের মুখেও।

১কোটি জনসমাবেশের দাবী – ইদ্রিশ আলী

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ১৭ জানুয়ারী, কলকাতাঃ আগামী ১৯শে জানুয়ারী ময়দানে ব্রিগেড সমাবেশকে সমর্থন করে আজ এক সাংবাদিক সম্মেলন করে অল ইন্ডিয়া মাইনোরিটি ফোরাম। সংগঠনের চেয়ারম্যান সাংসদ ইদ্রিশ আলি বলেন,” ভারতবর্ষের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। আগামী ১৯শে জানুয়ারী যে সমাবেশের ডাক দিয়েছেন নেত্রী তাতে আমাদের দাবী এবার এক কোটির বেশী মানুষ আসবেন তার বার্তা শুনতে। এদিন জনসমুদ্রে কলকাতা স্তব্ধ হয়ে যাবে”।
তিনি আর জগ করেন ” আমরা আমাদের নেত্রীকে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চাই। ” এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সাংসদ আহমেদ হাসান, সাংসদ নাদিমূল হক, ডঃ অরুনজ্যোতি ভিক্ষু, কাউন্সিলর মহঃ জসীমউদ্দীন, আমিন আন্সারি, এবং সমাজসেবী এম এ আলী।

২১ শে নবান্ন অবরোধ

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ১৭ জানুয়ারী, কলকাতাঃ বছরের শুরুতেই অল বেঙ্গল চিটফান্ড সাফারাস ওয়েলফেইয়ার  অ্যাসোসিয়েশানের রাজ্য সভাপতি রুপম চৌধুরী এবং তাঁর সহযোগী আশরাফুল হক ও মহাদেব কোলে কে নিয়ে কলকাতা প্রেস ক্লাবে তাদের আগাম কর্মসূচি ঘোষণা করলেন। এই কর্মসূচি ঘোষণার আগে রুপম বাবু একরাশ অভিযোগ এবং অবসাধ তুলে ধরলেন সংবাদ মাধ্যমের সামনে। রুপম বাবু বলেন, ২০১৮ ফেব্রুয়ারী মাস থেকে জোরদার আন্দোলন শুরু করেছিলেন ঠিকই কিন্তু এই আন্দোলন সারে চার বছরের পুরনো যেখানে কয়েক কোটি আমানত কারি এবং এজেন্টের ভাগ্য জড়িয়ে। গত ১৩ ই ডিসেম্বরের ঘটনা উল্লেখ করে রুপম বাবু বলেন , রাজভবনের তিনটি মূল গেট তারা অবরোধ করেছিলেন এবং হাজার হাজার মানুষ সেদিন গ্রেপ্তার বরন করেছিল , এবং ২১ শে ডিসেম্বরে তারা রাজ্যের প্রায় ২১ টি স্থানে রেল ও সড়ক অবরোধ করেছিলেন বলে দাবী করেন তিনি। একই পথ ধরে  আগামী ২১ শে জানুয়ারী অর্থাৎ ১৯ শের ব্রিগেড সমাবেশের ঠিক পরেই নবান্ন অবরোধে সামিল হবে তারা। তিনি দাবী করেন এই নবান্ন অভিযানে নবান্ন গামী সমস্ত রাস্তা অবরোধ করে রাখবেন প্রয়োজনে তারা লাঠি গুলি গ্রহন করবেন। তিনি যোগ করেন , বিভিন্ন রাজ্য বেশ কয়েকটি চিটফান্ড সাফারার দের এবং এজেন্ট দের সংগঠন তারা একত্রিত ভাবে একই ছাতার নিচে আগামী দিনে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য তারা একসাথে পথ চলবেন এবং কর্মসূচীর অংশ হিসাবেই আগামী ২৮ ও ২৯ জানুয়ারী ধর্না এবং ডেপুটেশন দেবেন দিল্লির যন্তর মন্তরে। এখানে থাকছে প্রায় ৬ টি অন্যরাজ্যের সংগঠনও , এছাড়া তিনি উল্লেখ করেন যে দার্জিলিং ও বীরভূমে তাদের সংগঠন ততটা সঙ্গবদ্ধ নয়। তিনি আরেকটি ঘোষণা করেন যে, তারা হাইকোর্টে একটি পি আই এল করে জনস্বার্থ মামলা করবেন । এবং ১০ থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারী তারা জনশুনানি অয়োজন করতে চলেছেন কলকাতার মহাজাতি সদনে। এখানে বিভিন্ন বিচারকরা থাকবেন এবং তারা তাদের মতামত দেবেন , এখানে মেধা পাঠকরের নামও উঠে আসছে। যে আন্দোলন শুরু করেছিলেন সংগ্রামী নেতা অসীম চ্যাটার্জি , সেই সংগঠন ধীরে ধীরে ক্ষীণ হয়ে আসছে ।      

মানব সেবায় তেরাপন্থ।

শুভাবরি ওয়েবডেক্স,১৫ জানুয়ারী, কলকাতা: ধর্মের সাথে সমাজসেবা, মানবসেবাকে জুড়ে বিভিন্ন ধর্মের মানুষ এগিয়ে চলেছেন। জৈন সম্প্রদায়ও পিছিয়ে নেই । অখিল ভারতীয় তেরাপন্থ যুবক পরিষদ দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে পরিকল্পনা মাফিক রক্তদান শিবিরের আয়োজন করে আসছে । এক বছর আগেও তাদের রক্তদান শিবিরে ৯৬ হাজার ইউনিট রক্ত সংগ্রহ হয়েছিল । এবার ২০ জানুয়ারী পূর্ব ভারতের ৬০ টি শাখা এক লক্ষ ইউনিট সংগ্রহের লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছে । বিস্তারে বললেন সংগঠনের কলকাতার সভাপতি জিতেন্দ্র কুমার কুন্ডলীয়া :

https://youtu.be/aRepoZt9cUY

বাংলার সংস্কৃতিতে বেহালা ক্লাব

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ১৩ জানুয়ারি, কলকাতা: শীতের পড়ন্ত রোদে কচিকাঁচাদের নিয়ে সারা বাংলা বসে আঁকো প্রতিযোগিতা আয়োজন করেছিল বেহালা ক্লাব। বনমালী নস্কর রোডের মাঠে ছিল দারুণ উত্তেজনা ও আনন্দের সময় ।১৩ই জানুয়ারিতে প্রায় ১৫০০ প্রতিযোগী সারা বাংলা থেকে এই প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করেছে বলে জানান ক্লাব কর্তৃপক্ষ । ৫ থেকে ১৬ বছর, এই বয়সকে ক খ গ ঘ চারটি বিভাগে ভাগ করে নেওয়া হয়েছিল । ছিল যেমন খুশি আঁকো এবং বাঙালীর দুর্গাপূজা । সন্ধ্যায় থাকছে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান ।
ক্লাব সুত্রে জানা গেছে প্রতি বিভাগে ১০জন প্রতিযোগীকে বেছে নেওয়া হবে ।
৮১ তম বর্ষে বেহালা ক্লাবের সাথে তাদের অঞ্চলের মানুষও এই উৎসবে মেতে উঠেছে । বাংলার শিল্প সংস্কৃতি কৃষ্টিকে যে বেহালা ক্লাব বাঁচিয়ে রাখছে এখানেই শিল্পের সার্থকতা ।

চিকিৎসকদের প্রতিবাদ

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ১০জানুয়ারী, কলকাতাঃ দীর্ঘদিন চিকিৎসকদের বিভিন্ন কারণে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা শুনে আসছি আমরা। সে ব্যপারে রাজ্য প্রশাসনও কিছু পদক্ষেপ গ্রহন করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু তা রক্ষা করতে উদাসিন প্রশাসন, এক সাংবাদিক বৈঠকে এই অভিযোগ করেন West Bengal Doctors Forum এর সদস্য ডাক্তারা। উপস্থিত ছিলেন ডাঃ অর্জুন দাসগুপ্ত, ডাঃ রেজাউল করিম, ডাঃ সুজিত সিনহা, ডাঃ কৌশিক লাহিরি এবং ডাঃ পুর্নব্রত গুহ। তাদের দাবী রাজ্য সরকার গত বছর এপ্রিল মাসে তাদের সাথে মিটিং
করে মুল কয়েকটি সমস্যার ওপর কথা বলেন এবং তার ও পদক্ষেপ গ্রহণ করার প্রতিশ্রুতি দেন, কিন্তু তার সুরাহা হয়নি । WBDF এর তরফ থেকে অর্জুন বাবু তাদের আলোচিত বিষয়গুলি জানান,

https://youtu.be/avh4zz5Aucs

তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে আগামী এক মাসের মধ্যে যদি কোন সিদ্ধান্ত সরকারের পক্ষ থেকে না নেওয়া হয় তাহলে তারা বৃহত্তর আন্দোলনের পথে হাঁটবেন।

সিএম টু পিএম

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ৯ জানুয়ারি, কলকাতা: বরানগর জুট মিলের পি এফ কেলেঙ্কারি নিয়ে সরব হল আম আদমি পার্টির পশ্চিমবঙ্গ শাখা। বিগত বহু বছর ধরে শ্রমিকদের পিএফের টাকা ঠিকঠাক না মেটানোর জুটমিল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন আম আদমি পার্টি। এ বিষয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে তাদের দাবীগুলি বলেন। উপস্থিত ছিলেন আপের এরাজ্যের যুবসভাপতি প্রানজিৎ দে , বিশ্বজিৎ কর্মকার ,সুশিল জায়েস্ওয়াল,রাজকুমার সাউ ,বি কে সিং প্রমুখ। দাবী সম্পর্কে প্রানজিৎ বাবু বলেন

http://shubhabori.co.in/inshot_20190110_201559694/

আগামী দিনের কর্মসুচী সম্পর্কে প্রানজিৎ বাবু বলেন, ১০ জানুয়ারী জুটমিলে গেট মিটিং। ১১ জানুয়ারী শ্রমমন্ত্রীর এবং ১ ফেব্রুয়ারী মুখ্যমন্ত্রী কাছে ডেপুটেশন দেওয়া হবে। তার পরও যদি সুরাহা না হয় তাহলে রাজ্যের বিভিন্ন মন্ত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রী দপ্তরের সামনে ’ ভিক্ষা অভিযান ’ করবেন। সরকার এবং জুটমিল কর্ণধার সমস্ত পি এফ র ব্যাপারকে গুরুত্ব দেবেন সে বিষয়ে তারা আশাবাদী ।

সামাজিক মেয়র পারিষদ

শুভাবরি ওয়েবডেক্স ৬জানুয়ারী, কলকাতা ঃ শুধু প্রশাসনিক কাজই নয়, সামাজিক ক্রিয়াকর্মেও নিজেকে যুক্ত রাখেন 96 নং ওয়ার্ডের কাউপ্সিলার এবং মেয়র পারিষদ দেবব্রত মজুমদার। গত ছয় বছর ধরে এলাকার শ্রদ্ধেয় খেলোয়ার তপন নন্দী(ভুলু)র স্মরনে একটি আমন্ত্রণমুলক ফুটবল প্রতিযোগিতার আয়োজন করে আসছেন তিনি। পাশে পেয়েছেন এলাকার ক্রিয়ামোদী মানুষদের আর দেবব্রত বাবু তৈরী ” আমরা কলকাতা ” ক্লাবের সদস্যদের। নিজে মাঠে উপস্থিত থেকে উৎসাহিত করেন খেলোয়াড়দের।

বিজয়গড় মাঠের সংস্কার ও দেবব্রতবাবুই করিয়েছেন। রাজ্যের সংস্কৃতিমনা মুখ্যমন্ত্রীর যোগ্য মেয়রপারিষদ হিসেবে তিনি সর্বজনগৃহিত। এলাকাতেও তিনি আদরের মলয়দা। অন্তত খেলার মাঠের মানুষেরা আজ দেবব্রত মজুমদার কে এই সৃষ্টিশীল উদ্যোগের জন্যে বহুদিন মনে রাখবেন।

ঝুঁকির পার্কস্ট্রিট

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ৫ জানুয়ারী, কলকাতা: দারুন বিপদের ঝুকি নিয়ে পার্কস্ট্রিট উড়াল পুলের ওপরে কাজ করছে শ্রমিক। পুলের নীচ দিয়ে যাচ্ছে দ্রুতগামী গাড়ি। হাত ফসকে বাশ খুলে নীচে পড়লে অথবা শ্রমিক টি নীচে পড়ে গেলে বড় একটি দুর্ঘটনার সম্ভাবনা রয়েছে। অথচ ঠিকাদার বা সরকারি পরিদর্শকরা নিরুত্তাপ। কবে ঘুম ভাঙবে আমাদের?

উন্নয়নে দেবব্রত

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ৫জানুয়ারি কলকাতা: কলকাতা পুরসভার ৯৬ ওয়ার্ড এর পুর প্রতিনিধি এবং মেয়রপারিষদ দেবব্রত মজুমদার সারা বছর ই উন্নয়নমুলক কাজে যুক্ত থাকেন। এলাকাবাসীর সবসময়ের সাথী মলয়বাবু ২০১৯ এর শুরুতেই জলের পাইপ বদলানোর কাজ শুরু করে দিলেন। এলাকার মানুষের খুশির জন্যে বছরের শেষ দিনে আয়োজন করেন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং মেলার আয়োজন করেন প্রতিবছর।

অনির্দিষ্টকাল ধর্নার পথে সুপারভাইজাররা

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২ জানুয়ারি ২০১৯ কলকাতা:M.G.N.R.E.G.A সুপারভাইজার অ্যাসোসিয়েশনের তরফ থেকে আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয় । উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি কামরুজ্জামান, সহসভাপতি রাজুদুল ইসলাম, রাজ্য সম্পাদক লাল্টু বিশ্বাস, ছোটন দাস, সুখনন্দ সিং আলুওয়ালিয়া প্রমুখ।
তাদের দাবী সম্পর্কে সভাপতি বলেন, ” জব কার্ড থাকা সত্বেও সঠিক সময়ে পারিশ্রমিক দেওয়া হচ্ছে না, তাদের অবিলম্বে পারিশ্রমিক দেওয়া হোক । সুপারভাইজারদের নূন্যতম মাসিক ভাতার ব্যবস্থা করা, স্বাস্থ্য বীমা “। সমস্ত সুপারভাইজার কে অবিলম্বে স্হায়ীকরনের দাবিও তিনি করেন। কামরুজ্জামান বাবু আগামী ১০ জানুয়ারী থেকে ধর্মতলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্নায় বসবেন বলে জানান।

সম্পাদক লাল্টু বিশ্বাস বলেন, “মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী আমাদের অনেকবার এই সমস্ত দাবী মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন কিন্তু এখনও পর্যন্ত তার কোন সুফল মেলেনি”।
সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ভবিষ্যতে আরও বৃহত্তর আন্দোলনে যাবেন বলে তারা জানান।

বড়দিনে কচিকাঁচাদের সঙ্গে মন্ত্রী

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২৫ ডিসেম্বর, কলকাতা ঃ বড়দিনের আনন্দকে ছোটো ছোটো কচিকাঁচাদের সাথে ভাগ করে নিতে আজ ত্রিনাথ বাবা ও শ্রী শিরডী সাই বাবা মন্দির কমিটির( লেক গার্ডেনস্) উদ্যোগে কেক ও কম্বল বিতরনের আয়োজন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন চেয়ারম্যান মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়, আভিনেত্রী দেবশ্রী ভট্টাচার্য, সম্পাদক সান্তনু দাস প্রমুখ।

http://shubhabori.co.in/inshot_20181225_220929593/

এই অনুষ্ঠানে ২০০ জন শিশুকে কেক,লজেন্স ও কম্বল তুলে দেন মাননীয় মন্ত্রী এবং উপস্থিত অতিথিগন। মন্ত্রী বলেন, “আজও রাস্তায় বহু শিশু শীতের সময় কষ্ট পায়, সেখানে এই প্রচেষ্টাকে আমি স্বাগত জানাই “।

সঠিক ওজন ও দাম নিতে বার্তা বেকারিগুলিকে

শুভাবরি ওয়েবডেক্স, ২৩ ডিসেম্বর কলকাতা: ওজন ও দামের তারতম্যের জন্য বারং বার বিভিন্ন জায়গা থেকে অভিযোগ আসায় কার্যতো বেকারি কারখানা গুলিকে সাবধান করে দিলেন পশ্চিমবঙ্গ বেকারি অ্যাসোসিয়েশানের জয়েন্ট অ্যাকশান কমিটির সম্পাদক ইদ্রিশ আলী। আজ জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটি এবং পশ্চিমবঙ্গ বেকারস কো অর্ডিনেশন কমিটির যৌথ ভাবে এক সাংবাদিক বৈঠকে ইদ্রিশ আলি বলেন,” বেকারি কারখানাতে যেখানে কেক, বিস্কুট, পাউরুটি তৈরি হয় সেখানে পরিষ্কার রাখুন। প্রত্যেক জিনিসের সঠিক ওজন এবং তার পরিপুরক দাম নিন”। তিনি বলেন, ” বর্তমানে খুচরো নিয়ে সমস্যা দেখা দিচ্ছে। যে পরিমান খুচরো আমরা বাজার থেকে পাই, সেই পরিমান যদি ব্যাংকে জমা দিতে যাই তাহলে ব্যাংক কিছু সময় তাতে অনিচ্ছা প্রকাশ করে”। এর জন্য তিনি কেন্দ্রীয় সরকারকে এই বিষয়ে দৃষ্টি দেওয়ার জন্য আবেদন করেন। এখন বেকারি শিল্পে জি এস টি ১৮% আছে। সেই হারকে যদি ৫% নামিয়ে আনা হয় তার জন্য তিনি সরকারের কাছে আবেদন জানান।
ইদ্রিশ বাবু জনগণের উদেশ্য বলেন, ” কোথাও যদি ওজন বা দামের সম্পর্কে কোনো বেআইনি হচ্ছে বলে মনে হয়, তাহলে আমাদের জানাবেন উপযুক্তত প্রমান পেলে আমরা সেই বেকারি মালিকের বিরুদ্ধে করা ব্যবস্থা নেব”।
সামনে বড়দিন এবং নতুন বছরে সবাইকে শুভেচ্ছা এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি বজায় রাখার আবেদন জানান।

দুশ্চিন্তায় পেনশনভোগীরা

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, ১৪ ডিসেম্বর , কলকাতাঃ    কেউ ৩০ বছর , কেউ ৪১বছর আবার কেউ বা ২৬ বছর চাকরি করেছেন। স্বল্প আয়ে তবুও ছিল নিশ্চিন্ত জীবন, বাঁধসাধল অবসরগ্রহণ।                                রাজ্য বিদ্যুৎসংস্থারপেনশনভোগীরা এই কথাগুলি বলতে হাজির হয়েছিলেন সংবাদ মাধ্যমের সামনে। উপস্থিত ছিলেনসংগঠনের সভাপতি সুশান্ত চ্যাটার্জি , সম্পাদক মণীষ ভট্টাচার্য ।  পেনশনের ক্ষেত্রে চরমবৈষম্য এবং ২০০৯ সালে বিদ্যুৎ সংস্থা কোম্পানির হাতে চলে যাবার ফলে আগামী দিনে সম্ভাব্য সমস্যার কথা নিয়ে উদ্বিগ্ন তারা।                                           প্রায় ২৮৫০০ জন পেনশন ভোগীদের এই সংগঠন আগামী ১৭ ই ডিসেম্বর সল্টলেক বিদ্যুৎ ভবনে অবস্থান বিক্ষভে বসবে এবং বিদ্যুৎমন্ত্রীর কাছে একটি ডেপুটেশন জমা দেবেন বলে জানান।                                                  


হিন্দু রাষ্ট্রের দাবী।

 শুভাবরি ওয়েবডেক্স, 13ডিসেম্বর, কলকাতা:  হিন্দুবাদী সংগঠন নিজেদের অস্তিত্ব জানাতে বরাবরই আন্দোলন করে এসেছে। ঠিক একই ভাবে হিন্দু জাগরণ মঞ্চ আগামী ১৫ই ডিসেম্বর কলকাতার শহীদ মিনার ময়দানে হিন্দু সম্মেলনের আয়োজন করেছে।
আজ প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে সংগঠনের উপসভাপতি শ্রী বিবেক কান্ত সিং, আশুতোষ মন্ডল, স্বরুপ দত্ত, শর্মীষ্ঠা দাস উপস্থিত ছিলেন। বিবেক কান্ত সিং এর কথায় ওই দিন জনসভার প্রধানবক্তা হিসাবে থাকবেন স্বাধ্ধী সরস্বতী। হিন্দুদের স্বার্থে দাবী পেশ করেন শ্রীমতি শর্মীষ্ঠা দাস। তিনি বলেন “২০১৬ নাগরিক সংশোধনী বিলকে সংস্করণ করতে হবে, বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা হিন্দু উদবাস্তুদের ভারতীয় নাগরিক হিসাবে গন্য করা, হিন্দুদের ওপর অত্যাচারের বিরুদ্ধে আইন আনা।”

http://shubhabori.co.in/inshot_20181213_201732736/


সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বিবেক বাবু বলেন, ” ভবিষ্যতে ভারতবর্ষকে আমরা হিন্দুরাস্ট্র হিসাবে তুলে ধরতে চাই “।

নেতাজি মুর্তি স্থাপনে উদ্যোগী অন্তরাষ্ট্রীয় মানবাধিকার পরিষদ

শুভাবরি ওয়েবডেস্ক, কলকাতা, ১১ ডিসেম্বরঃ  নেতাজির মুর্তি জাপানে স্থাপন করা নিয়ে আজ প্রেস ক্লাব এ সাংবাদিক সম্মেলন করে International Human RightsCouncil এবং Netaji Subhas BoseMemorial Indo Japan.।উপস্থিত ছিলেন Indo Japanese Foundation র  শ্রী বি এস দেশমুখ, IHRCর ডঃ টি এম ওমকার, রাজ্য সভাপতি শ্রী মইনুল মোল্লা, সহ সভাপতি পৃথিজিত বিশ্বাস, আবিদ মোল্লা, বাপ্পাদিত্য সাহা প্রমুখ। শ্রী দেশমুখ বলেন,” আমরা বহু বছর ধরে জাপান থেকে অস্থি ভারতে নিয়ে আসার জন্য চেষ্টা করছি, এই বিষয়ে আমরা দুই দেশের সরকারের সাথে কথা বলেছি, নেতাজির বীরত্বের ইতিহাস সাধারণ মানুষকে জানাতে হবে”। তিনি আরও বলেন” জাপানে যে স্থানে নেতাজির মুর্তি তৈরি হবে সেটি টোকিও শহর থেকে ১৫০ কিলোমিটার দূরে নিক্কো নামক শহরে, সেখানে প্রায় ২ একর জায়গা পাওয়া গিয়েছে দান হিসেবে। নেতাজি ছাড়াও বিভিন্ন বীর স্বাধীনতা সংগ্রামীদের মু্র্তি বানানোর পরিকল্পনা আমাদের আছে”।

মানবাধিকার কাউন্সিলের পক্ষ থেকে মইনুল বাবু বলেন, ” দেশমুখ বাবুর কথায় আমরা নেতাজি সুভাষ চন্দ্রের মুর্তি স্থাপনে আমারা এগিয়ে এসেছি। সরকার এবং সাধারণ মানুষের কাছে আমাদের আবেদন বীর সৈনিকের যে শান্তি মুর্তি তৈরি হবে তাতে সবাই এগিয়ে আসুক এবং নেতাজির অস্থি ভারতে আনতে সরকার  সচেষ্ঠ   ভুমিকা নিক”। মানবাধিকার কাউন্সিলের ব্যপারে তিনি বলেন “বর্তমানে সারা ভারতে প্রায় ২৯ টি রাজ্যে আমাদের শাখা, ১০০০০ এর বেশি আমাদের সদস্য। আমরা চাই যে আরও অনেক মানুষ আমাদের সাথে আসুক, মানুষের জন্য কাজ করুক।” কাউন্সিলের পক্ষ থেকে পৃথ্বীরাজ বাবু বলেন ” আমরা মানুষের কাছে পৌছতে চাই, মানুষের দুঃখকে ভাগ করে নিতে চাই”। ডঃ টি এম ওমকার বলেন, “মানুষ নিজের অধিকার সম্পর্কে জানুক, তাদেরকে সচেতন করাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য  “। সবশেষে মইনুলবাবু যোগ করেন , “ আমরা বিনামুল্যে অ্যাম্বুলেন্স পরিশেবা শুরু করেছি”।

অতীতে বহু সংখ্যালঘু মানুষ বীর সৈনিকদের সম্মান জানিয়েছেন, মইনুল বাবু সেই পদক্ষেপকে একধাপ এগিয়েছেন, আগামী দিনে সংখ্যালঘু এবং সংখ্যাগুরু মানুষেরা একসাথে সমাজের কাজে নিজেদের অবদান রাখবেন বলে আশা করা হচ্ছে।                                                                                                                                         – লেখন ও ছবি দেবাঞ্জন দাস।

রপ্তানিতে ধাক্কা খাচ্ছে এক্সপোর্টারস্

শুভাবরি ওয়েবডেক্স: কৃষি প্রধান দেশ ভারতবর্ষে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে কাঁচা সব্জি রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রারও আমদানি হয়। তার ফলে উপকৃত হন কৃষক সহ এক্সপোর্টারাও। কিন্তু বর্তমানে কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন প্রক্রিয়ার দরুন বিদেশে সব্জি রপ্তানির ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দিচ্ছে ।

এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে সরকারের কাছে আবেদন এবং এর বিকল্প রাস্তা খোঁজার জন্য সাংবাদিক সম্মেলন করেন WEST BENGAL FRUITS AND VEG EXPORTERS ASSOCIATION । সংস্থার সহ সম্পাদক অঙ্কুশ সাহা বলেন, “ ২০১৪ সালে ইউরোপিয়ান কমিশন ভারত থেকে কিছু সব্জির আমদানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করলেও ২০১৬ সালে তা তুলেও নেওয়া হয়। সরকার জানিয়েছিল, ২০১৭ সাল থেকে আবার রপ্তানি শুরু হবে। কিন্তু তার জন্যে প্রক্রিয়া এখনও পর্যন্ত শুরু হয়নি । কিছু কিছু ক্ষেত্রে ফিটনেস্ শংসাপত্র পাওয়াতেও সমস্যা হচ্ছে”। পশ্চিমবঙ্গে অন্যতম পণ্য হল পান । অঙ্কুশ বাবু বলেন, ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে ইউরোপে কলকাতার পান এক্সপোর্ট হচ্ছে না। আগে এক্সপোর্টারসদের ট্রান্সপোর্ট অ্যাসিসট্যান্ট দেওয়া হত। ২০১৬ সালের ৩০ শে সেপ্টেম্বর থেকে সেটিও বন্ধ হয়ে যায়।
এই সমস্যার জন্য বর্তমানে শুধু ট্রান্সপোর্টসরাই নয়, কৃষকরাও নিজেদের সব্জির সঠিক মূল্য পাচ্ছেন না। তার ফলে তাদের অবস্থা খুব করুন। এর ফলে বিশ্ববাজারে তারা অনেক পিছিয়ে পড়েছে । সবশেষে অঙ্কুশবাবু বলেন এই অবস্থার সুরাহা যদি খুব তাড়াতাড়ি না হয় তাহলে আগামিদিনে কৃষকদের অবস্থা আরোও সঙ্গিন হবে।

ছবি ও লেখন দেবাঞ্জন দাস 

 

আদিত্যনাথের ইস্তফার দাবি

6ডিসেম্বর, শুভাবরি ওয়েবডেক্স:     মাদার টেরিসা মেমরিয়াল পিস কমিটি বিশ্ব শান্তির বার্তা নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেন। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন অল ইন্ডিয়া মাইনরিটি ফোরমের চেয়ারমান শ্রী ইদ্রিশ আলি। তিনি বলেন বাবরি মসজিদের ঘটনা খুবই দুঃখজনক । যাবতীয় ভুল মন্তব্যের জন্যে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের দ্রুত ইস্তফার দাবি করেন ।প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৌলানা ক্কারি সফিক কাশমী । তিনি বলেন “বাবরি মসজিদ ভাঙার জন্য যারা দায়ী তাদের অবিলম্বে তাদের শাস্তি দেওয়া হোক” । বর্ধমান পরিস্থিতিতে আমাদের উচিত কোনো প্ররোচনায় কান না দিয়ে সংবিধানকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসা”।


অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বৌদ্ধ ধর্মগুরু ড. অরুনজ্যোতি ভিক্ষু । তিনি বলেন পার্ক স্ট্রিট কে মাদার টেরিসা সরণী নাম দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে ধন্যবাদ।” বাবা সাহেব আম্বেদকরের নামে রেড রোডের নাম করণ করার আর্জি তিনি জানান । এছাড়া উপস্থিত স্বামী উত্তমানন্দ, ফাদার সি আর চ্যাটার্জি, জনাব আমিন আনসারি প্রমুখ বাবা সাহেব আম্বেদকরের মৃত্যু বার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলী জানান ।

——-(ছবি ও লেখন: দেবাঞ্জন দাস ।)

 

আত্মহত্যার অনুমতি চাই।

শুভাবরি ওয়েবডেক্স ,কলকাতা:      ছেলে রোহিত সিং এর জন্য বিচার চেয়ে না পাওয়ার জন্য বাবা অমর সিং এবার আত্মহত্যার অনুমতি চাইল সংবাদমাধ্যমের সামনে। অমর সিং এর দাবি ছেলে রোহিত সিং ও অন্যতিনজন বিহারের গোপালগন্জ্ঞে বাইক দুর্ঘটনায় পড়ে এবং এখনো পর্যন্ত চিকিৎসার জন্য ৩০ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে। কিন্তু কোনও ফল হচ্ছে না। প্রশাসন দোষিদের শাস্তি বা তার ছেলের চিকিৎসার কোনো ব্যবস্হা করছে না। তাই আর্থিক কারনে এই সিদ্ধান্ত । তবে কোনো নির্দিষ্ট সময় এখনো বলেননি অমর বাবু।

কলকাতা আন্তজার্তিক বইমেলা ২০১৯

 

আবার একটি প্রান বাঁচাল আর পি এফ.. .

কালীঘাট মেট্রো লাইন থেকে তৎপরতার সাথে একটি আত্মহত্যার চেষ্টা আটকালো আর. পি. এফ. । সুত্রে প্রকাশ বেলা ২:৩০ নাগাদ কর্তব্যরত আর. পি. এফ. কর্মীরা ৬২ বছরের এক ব্যক্তিকে লাইনে নামতে দেখে তাঁকে উদ্ধার করে।

বাড়ির লোক আসলে জানা যায় উনি মানসিক আবসাদগ্রস্থ। যদিও ঐ ব্যাক্তি স্বীকার করেছেন যে উনি আত্মহত্যার চেষ্টা করছিলেন। প্রায় বেলা ৩.৩০ নাগাদ ঐ ব্যাক্তিকে কালীঘাট থানায় হস্তান্তরিত করা হয়।

আম আদমি পার্টি সাংবাদিক সম্মেলন করে কলকাতা প্রেস ক্লাবে। আমাদের সাথে কথা বলেন তাদের অন্যতম নেতা প্রানজিত দে।

 

 

সংবিধান বাঁচাও সমিতি।

দেবাঞ্জন দাস ,৩ ডিসেম্বর ২০১৮,  শুভাবরি, ওয়েবডেক্সঃ         সংবিধানকে বাঁচিয়ে রাখার লক্ষে আগামি ৬ ই ডিসেম্বের ধর্মতলা আভিযানের ডাক দিল সংবিধান বাঁচাও সমিতি। আজ প্রেস ক্লাবে তাদের অন্যতম নেতা শ্রী সামীর দাস বলেন, ” আমরা সম্পুর্ণ অরাজনৈতিক সংগঠন, বাবা সাহেব আম্বেদকরের তৈরি সংবিধানের আজ আবমাননা হচ্ছে, গনতন্ত্রের রক্ষা কবচকে ভেঙে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। যার প্রতিবাদে আমরা এই আভিযানে সামিল হচ্ছি।”

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সমির দাস, কামারুজ্জামান, বিরেন মাহাতো প্রমুখ। ৬ ডিসেম্বের বেলা ১০ টায় হাওড়া, শিয়ালদা, খিদিরপুর থেকে মানুষ মিছিল করে সমবেত হবে রানি রাশমনী রোডে। তাদের দাবি কলকাতা স্হিত বাবা সাহেবের মুর্তিটি আসলে একটি বিদেশি মানুষের। এ বিষয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে তিন মাস আগে চিঠি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কোন ফল হয়নি।

রাজভাষা প্রচারে কলকাতা মেট্রো।

কলকাতা ২৮শে নভেম্বের, ওয়েবডেক্স ,শুভাবরি: কলকাতা মেট্রো রেল তাদের বিভিন্ন দপ্তরে রাজভাষা চালু রাখার জন্য আজ ২৮শে নভেম্বর মিটিং অনুষ্ঠিত করে। উপস্থিত ছিলেন জেনারেল ম্যানেজার শ্রী পি. সি. শর্মা , এস. পি. এস. চৌহান , ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার শ্রী প্রত্যূষ ঘোষ । সকল দপ্তরকে তাদের কাজ রাজভাষা হিন্দিতে করতে বলা হয় এবং বাকী কর্মীদের  উৎসাহিত করতে বলা হয়। এছাড়া   সর্ব ভারতীয় রেল নাট্যৎসব ২০১৮তে সেরা শিশু শিল্পী পুরস্কার পাওয়ার জন্য মেট্রো রেলের নিজস্ব নাট্য দলকে অভিনন্দন জানান।

 

মেট্রো ফেরত দিল মহিলার ব্যাগ।

কলকাতা , ২৬ নভেম্বরঃ গত ২৬ শে নভেম্বরের ঘটনা বেলা ২ টো নাগাদ কালীঘাট মেট্রো স্টেশনের মেঝেতে একটি মহিলার ব্যাগ দেখতে পান কর্তব্যরত আর. পি. এফ. । তিনি সেটি নিয়ে জমা দেন স্টেশন মাস্টারের অফিসে। কুড়িয়ে পাওয়া ব্যাগটি থেকে পরিচয় পত্র দেখে ব্যাগের আসল মালিকের হাতে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। ব্যাগে থাকা টাকা, পরিচয়পত্র ফেরৎ পেয়ে আপ্লুত মহিলা মেট্রোরেল কতৃপক্ষের দ্বায়িত্বশীলতার প্রশংসা করেন।

 

শ্রী আশিস চৌহান , সম্পাদক অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ । 30 শে নভেম্বর ছাত্র মহামিছিলের আগে আজ প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকদের মুখোমুখি ।

 

জন্মদিন পালন

আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে বিশ্ব নবীর জন্মদিন পালন করার আনুষ্ঠিক ঘোষনা করলেন সাংসদ জনাব ইদ্রিশ আলি।
কারী আহমদ ফাউন্ডেশন এবং অল ইন্ডিয়া মিলাদ উন নবী কনফারেন্স এর যৌথ উদ্যোগে 21 নভেম্বরে শহিদ মিনার ময়দানে এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন রাজ্যের গুরুত্বপূর্ন মন্ত্রীরা। থাকবেন বিভিন্ন ধর্মের নেতাগন। ইসলামের আলোকে সম্প্রীতির বানীই হবে এই অনুষ্ঠানের মূল লক্ষ্য। জানালেন সাংসদ জনাব ইদ্রিশ আলি। বৌদ্ধদের প্রতিনিধি অরুনজ্যোতি ভিক্ষু ও এই দিন উপস্থিত ছিলেন।

 

স্মরণসভা।

ওয়েবডেক্স:  বীর শহীদ সাণ্প্রদায়ীক সম্প্রীতির পথিকৃত টিপু সুলতানের 269 তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে স্মরন সভার আয়োজন করেছিল বিশ্বকোষ পরিষদ এবং টিপু সুলতানের পরিবারের সদস্যরা। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ আহমেদ ইমরান হাসান, মহ: নুরউদ্দিন,সুলতানের পরিবারের সদস্য হূশেইন সাহ এবং বকতিয়ার আলি শাহ, বিশ্বভারতীর প্রাক্তন উপাচার্য দিলিপ কুমার সিনহা।
ইমরান হাসান বলেন, কলকাতা র সাথে টিপু সুলতানের পরিবারের এক নিবিঢ় সম্পর্ক। বর্তমান রাজ্য সরকার টিপু সুলতানের সম্পত্তিগুলো টিকিয়ে রাখতে ব্যবস্থা নিয়েছে। আমার মনে হয় সত্বর টিপু সুলতানকে কালিমালিপ্ত করার প্রচেষ্টা বন্ধ হবে।

লেজেন্ড অফ বাংলা 2018 সম্মান প্রদান উৎসব ।

লেখক শিল্পী সাহিত্যিক সাংবাদিক সমন্নয় সমিতির অনুষ্ঠানে বিশেষ সস্মানে সম্মানিত হবার পরে স্বগত বক্তব্য রাখছেন ন্যাশনাল এন্টিট্রাফিকিং কমিটির চেয়ারম্যান শেখ জিন্নার আলি।

 

জাতীয় ছাত্র মহামিছিল


ওয়েব ডেস্ক: অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রমুখ শ্রীহরি বোরিকর আজ এক সংবাদ মাধ্যমকে তাদের আগাম কর্মসূচি প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, 30 নভেম্বর বেলা 1 টায় ধর্মতলায় সংগঠনের জমায়েত অনুষ্ঠিত হবে। শিয়ালদহ এবং হাওড়া ষ্ঠেশন থেকে প্রায় 25000 সদস্য এই জমায়েতে আসবে। Citizenship Amendment Bill 2016 এর পক্ষে সওয়াল করে তিনি পশ্চিমবঙ্গে তা লাগু করার দাবি করেন। তিনি বলেন, দাড়িভিটের মৃত দুই ছাত্রের এখনো দাহ সংস্কার হয়নি, ক্ষতিপূরনের টাকাও পরিবার পায়নি। আসামের মৃতদের জন্যে মমতা ব্যানার্জী টাকা বরাদ্দ করেছেন, কিন্তু দাড়িভিট পরিদর্শনের তিনি সময় পাননা।
সংগঠনের জাতীয় সম্পাদক অভিলাষ পান্ডে বলেন দাড়িভিটের ঘটনার দুই মাস পূর্ন হল। তাই আগামীকাল রাজ্যব্যাপী সংকল্প দিবস পালন করবে অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ। সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক সপ্তর্ষী সরকার ও এই সভায় উপস্থিত ছিলেন ।

পাউরুটি কিনতে হবে বর্ধিত দামে

১৭ই নভেম্বর ২০১৮, কলকাতা, ওয়েবডেস্ক ঃ আগামীকাল অর্থাৎ ১৮ই নভেম্বর থেকে পাউরুটি কিনতে গেলে দিতে হবে বেশি দাম। আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে পাউরুটির দাম প্রতি পাউন্ডে ৪ টাকা করে বাড়ানোর কথা যৌথভাবে  ঘোষণা  করল পশ্চিমবঙ্গ বেকারী মালিকদের জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটি ও পশ্চিমবঙ্গ বেকার্শ কো-অরডিনেশন কমিটি।

জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটির সম্পাদক তথা সাংসদ শ্রী ইদ্রিশ আলী জানান পাউরুটি ও বেকারীজাত দ্রব্যের জন্য  কাঁচামালের দাম বেড়ে যাওয়ায়, এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে প্রতি ৪০০গ্রাম পাউরুটির দাম ২০ টাকা, কিন্তু  আগামীকাল থেকে তা দিতে হবে ২৪ টাকা। ২০০গ্রাম পাউরুটির দাম ১০ টাকা থেকে বেড়ে হবে ১২ টাকা। প্রতি ১০০ গ্রাম পাউরুটির দাম ৫.৫০ টাকা থেকে বেড়ে হবে ৬.৫০ টাকা। শুধুমাত্র পাউরুটি নয় তার সাথে বেকারীজাত  বিভিন্ন দ্রব্য যেমন কেক , বিস্কুট প্রভৃতির দামও  ২০% করে বৃদ্ধি হবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ইদ্রিশ বাবু বলেন, শেষ দাম বেড়েছিল ২০১৬ ও ২০১৩ সালে ৪০০গ্রাম পাউরুটির দাম যথাক্রমে  ২ টাকা এবং ৪ টাকা। দেশের বাকি রাজ্যগুলির তুলনায় এ রাজ্যে পাউরুটির দাম সবচেয়ে কম। দাম বাড়ার সাথে সাথে লাইন্সম্যানদেরও কমিশন বাড়ানো হয়েছে। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শ্রী তুষারকান্তি সাহা, শ্রী প্রবীর সাহা, শেখ  ইসমাইল হোসেন প্রমুখ।

ক্ষত্রিয়, মুসলিম সমাজের মত ব্রাহ্মণ সমাজের প্রতিষ্ঠা নিয়ে প্রেস ক্লাবে বলেন এ রাজ্যের অধ্যক্ষ শ্রী বিবেক শুক্লা।

ভূখা মানুষের অভিযান

ওয়েবডেক্স: 37 টি সমাজসেবী সংগঠন কে সাথে নিয়ে লাগাতার আন্দোলনের ঘোষণা করলেন সমাজসেবী অনুরাধা তলোয়ার।
আজ কলকাতা প্রেস ক্লাবে ফাদার জ্যোতি, টি ইউ সি সির সভাপতি রবীন্দ্রনাথ চক্রবর্তী কে পাশে নিয়ে সংবাদমাধ্যমকে জানান,

আগামীকাল রামমোহন হলে “ভূখা মানুষের অভিযান ” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন নর্মদা বাচাও আন্দোলনের নেত্রী মেধা পাটকর।
18-19 নভেম্বরে তারা লালগড় যাচ্ছেন সেখানকার অভুক্ত মানুষদের পাশে দাড়াতে।
15 ডিসেম্বর রাজ্যের সব দলের সাথে খাদ্য সুরক্ষা নিয়ে আলোচনায় বসবেন।
তিনি দাবি করেন, এখন অবধি 7 জন মানুষ অনাহারে মারা গেছেন।
ফাদার জ্যোতি বলেন, আমাদের দাবি; খাদ্যসাথী প্রকল্পের সাথে খাদ্যের অধিকার কে যুক্ত করুক রাজ্য সরকার।

 

নভেম্বরে সমাজতান্ত্রিক বিপ্লবের 101 তম বার্ষিকীতে আজ ধর্মতলায় গনমিছিল করে  SUCI.

 

 

 

শিশুদিবস উপলক্ষে হাওড়ার সালকিয়ায় Dr. Rev Srikanta Das (Vice president of National Anti Trafficking Committe, WB)শিশুদের সঙ্গে সময় কাটালেন ।

 

কর্মসংস্থানের নতুন দিশা দেখাচ্ছে কর্মদিশারী

ওয়েবডেস্ক   ( কলকাতা)  ঃ  কর্মপ্রত্যাশীদের জন্য সুখবর বয়ে আনল “কর্মদিশারী” নামক সংস্থা। এক প্রেস সাক্ষাৎকারে নিজেদের সংস্থার আত্মপ্রকাশ ঘটান কর্ণধার বিবেকানন্দ দত্ত । সংস্থার অন্যতম মুখপাত্র অঙ্কিতা দত্ত তাদের পরিকল্পনার কথা জানান । তিনি বলেন আমরা বিশেষ করে গ্রামের মানুষদের কাজকর্মের দিশা দেখাতে উদ্যোগী হয়েছি। আমাদের এই কর্মকাণ্ডকে তিন  ভাগে ভাগ করে নিয়েছি , ১)  মাধ্যমিক পর্যন্ত,

২)  মাধ্যমিক থেকে স্নাতক পর্যন্ত  ,

এবং ৩)  গৃহবধূ ।

যারা নিজেদের পড়াশুনা শেষ করেছেন এবং চাকরির বাজারে পিছিয়ে পড়ছেন শুধুমাত্র সঠিক দক্ষতার অভাবে , তাদের আমরা সঠিক ভাবে প্রশিক্ষণ দিয়ে চাকরি পাওয়ার উপযোগী করে তুলব”।

আঙ্কিতা দেবী আরও বলেন যে , তারা এই যে প্রশিক্ষণ দেবেন তা সম্পূর্ণ বিনামুল্যে । প্রাথমিক ক্ষেত্রে তারা গ্রামের পঞ্চায়েত অফিসে এই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবেন এবং সেখানে যদি প্রশিক্ষণ সম্পূর্ণ না হয়ে তাহলে তারা কলকাতাতে ছাত্রছাত্রীদের এনে বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবেন। গৃহবধূদের ক্ষেত্রে তারা গ্রামের বিভিন্ন কল্যাণমূলক কাজের প্রশিক্ষণ দেবেন, যাতে তারা নিজেদের স্বচ্ছলতা খুঁজে পান।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তারা জানান যে ইতিমধ্যে তাদের সাথে অনেক বেসরকারি সংস্থার সাথে কথা হয়েছে , যাতে তাদের প্রশিক্ষিত ছাত্র ছাত্রী কর্মসংস্থান ঘটানো সম্ভব হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন BENGAL OLYMPIC ASSOCIATION র সাধারণ সম্পাদক শ্রী স্বপন ব্যানার্জী,মাননীয় সাংসদ শ্রী ইদ্রিশ আলী,    যুব তৃণমূল সাধারণ সম্পাদক  শ্রী সায়ন্দীপ চ্যাটার্জী,  প্রমুখ।

 

 

ওয়েবডেক্স: আজ সেন্ট্রাল মেট্রোরেলের গেটের সামনে নেতাজী সুভাষ মিশনের সদস্যদের প্রতিবাদ  কর্মসূচি।

 পাওয়ার পাবলিশার এর দুটি বই প্রকাশ করা হল। HIDEOUS BARAKA এবং INDIA MY COUNTRY , দুটি বই লিখেছেন সাহিত্যিক হরিপদ রায়চৌধুরী , প্রকাশ করলেন সাহিত্য আকাদেমি পুরস্কার প্রাপ্ত সাহিত্যিক শ্রী বিনোদ ঘোষাল । অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন FORMER WING COMMANDER শ্রী DEEJAY KLER , DR. P.K.BANDYOPADHYAY ,FORMER Director General, All India Radio.

 

 

একগুচ্ছ দাবী নিয়ে সরব West Bengal M. R. Dealers Association

West Bengal M. R. Dealers Associationআজ এক সাংবাদিক সন্মেলনে সংগঠনের পক্ষ থেকে ১৫ দফা দাবি পেশ করে। সংগঠনের সম্পাদক হাসান উল্লা লস্কর বলেন, প্রতি রেশন দোকানে ৩০,০০০/- রাজ্য সরকারকে দিতে হবে মজুরদের জন্য । রেশন শ্রমিকদের স্বাস্থ বীমার আওতায় আনতে হবে। মাল লোকসানের জন্য কুইন্টাল প্রতি 2 কেজি ভরতুকি দিতে হবে। কুইন্টাল প্রতি ৭০/- কমিশন দিতে হবে।
সংগঠনের সভাপতি সন্তোষ গোস্বামী বলেন, আগামী ১৯ নভেম্বরে সায়েন্স সিটিতে
কর্মী সভার আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া, নেতাজী ইন্ডোরে খাদ্যসাথী প্রকল্পের ওপরে আলোচনায় প্রধান বক্তা থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

সমস্ত প্রমানসহ পিতা মাতার খোঁজে অঙ্কিতা……

Claim of Parentage.

দক্ষিণের জ্যান্ত কালী  মন টানবে কল্লোলিনী কলকাতার।

দুর্গাপূজাতে আমরা থিম পূজার রমরমা দেখে আসছি অনেক বছর ধরেই। কালীপুজোও তাতে বাদ যায় কেন। নিজেদের ৪৬ তম কালি পুজোতে থিম প্যান্ডেলে অভিনব ছোঁয়া দিতে প্রস্তুত টালিগঞ্জ কুঁদঘাটের পূর্বপুটিয়ারী যুবসম্মিলনী ক্লাব। তাদের এবারের ভাবনা “পাগল সন্তানের ডাকে মা এলেন মর্তে”।
মন্ডপ সজ্জা ও পরিকল্পনাতে শিল্পী রুদ্র রায় ৷মণ্ডপে থাকবে আলো ছায়া ও বিভিন্ন শব্দের ছোঁয়া।সবচেয়ে আকর্ষনীয় হল জীবন্ত কালী। পুজো কমিটির সভাপতি শ্রী অজয় ঘড়ামি বলেন “বর্তমান যে সময়ে আমরা আছি সেখানে মানুষ কোন না কোন জিনিসের জন্য পাগল। কেউ পাগল অর্থের জন্য কেউ আবার প্রেমের জন্য। সেই সমস্ত বুদ্ধিভ্রম মায়ের সন্তানদের সুবুদ্ধি দিতে এবং জীবনের সঠিক পথে ফিরিয়ে দেবার জন্যই মায়ের মর্তে আগমন ঘটছে”।
শিল্পী শ্রী রুদ্র বলেন, “সমস্ত মায়ের সন্তানের এই পাগলামির জন্য যে কারনই দায়ী সেই কারন ও তার পেছনে থাকা অশুভ শাক্তিকেই বিনাশ কারার জন্য মায়ের এখানে আগমন সেটিই আলো, মন্ডপ এবং শব্দের মাধ্যমে বোঝানো হবে”। পৃথিবীতে যত বারই অশুভ শক্তি নিজের ব্যাপ্তি বিস্তার করবে মা বিভিন্ন রুপে মর্তে  এসে তার বিনাশ ঘটাবেন একথাও বলেন তারা।
এই প্রচেষ্টার মাধ্যমে মানব জাতীর মধ্যে শুভ বুদ্ধির উদয় ঘটাতে চাইছে তারা। এই প্রচেষ্টা যে সমস্ত মানুষের মন টানবে তাতে আশাবাদী ক্লাব কর্তৃপক্ষ ।

পঞ্চম জঙ্গল মহল উৎসব

বিগত চার বছর ধরে জঙ্গল মহলের মানুষদের সাথে অবিচ্ছেদ্দ্য বন্ধন রচনা করতে বিভিন্ন জীবনমুখী কর্মসূচী বাস্তবায়িত করেছে জঙ্গল মহল উদ্যোগ।
৫ম জঙ্গল মহল উৎসবের প্রাক-কালে প্রেস ক্লাবে সংস্থার সাধারণ সম্পাদক প্রিয়ব্রত বেরা উৎসবের সূচী ঘোষনা করলেন।
তিনি বলেন, আগামি ২৩ নভেম্বর কলকাতার মোহরকুঞ্জে উদ্বোধন করবেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, উপিস্থিত থাকবেন রাজ্যের আর এক মন্ত্রী শান্তিরাম মাহাত। এর আগে বেলা ২ টোয় পরিবেশ সচেতনেতা এবং লোকসংস্কৃতির বৈচিত্রময়তার বার্তা নিয়ে এক শোভায়াত্রায় অংশ নেবেন বিভিন্ন স্কুল, ক্লাব এবং কলেজ। শ্রেষ্ঠত্বের বিচারে এর মধ্য থেকে ৫ টি প্রতিষ্ঠান কে পুরস্কৃত করা হবে। এই উৎসব চলবে ২৫ নভেম্বরপর্যন্ত ।

বই প্রকাশ

আজ কলকাতা প্রেসক্লাবে উন্মোচিত হল ড.বি. কে. বন্দোপাধ্যায়ের লেখা বই Sardar Ballov Bhai Patel- A Statesman Extraordinary. উন্মোচন করলেন মেঘালয়ের রাজ্যপাল শ্রী তথাগত রায়। নিজ ভাষনে শ্রী তথাগত রায় দেশ নির্মানে সর্দার বল্লভভাই প্যটেলের ভূমিকা তুলে ধরেন।

১৪ তম সমাবর্তন  হতে চলেছে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি , দুর্গাপুর এ। আজ প্রেস ক্লাবে এ বিষয়ে বিস্তারিতভাবে জানান ডিরেক্টার অধ্যাপক অনুপম বসু।