ওয়েব ডেস্ক; ১৫ মে : মোবাইল নম্বর বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার হুমকি অথবা সংশ্লিষ্ট মোবাইল নম্বর বেশ কিছু অবৈধ কর্মকাণ্ডে ব্যবহার করা হচ্ছে, এ সংক্রান্ত ভুয়ো ফোন-কল না ধরার জন্য যোগাযোগ মন্ত্রকের অন্তর্গত টেলি-যোগাযোগ দপ্তর (ডিওটি) নাগরিকদের উদ্দেশে এক পরামর্শ জারি করেছে।

মানুষকে প্রতারণা করার উদ্দেশে সরকারি আধিকারিকের ছদ্মবেশে বিদেশী নম্বর থেকে (যেমন – +92-xxxxxxxxxx) আসা হোয়াটসঅ্যাপ কল সংক্রান্ত বিষয়েও ডিওটি পরামর্শ জারি করেছে।

এই ধরনের কলের মাধ্যমে সাইবার অপরাধীরা সাইবার অপরাধ / আর্থিক জালিয়াতি করার জন্য হুমকি দিয়ে থাকে বা ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করার চেষ্টা করে। ডিওটি / ট্রাই-এর পক্ষ থেকে কখনই কাউকে এ ধরনের কল করার অনুমতি দেওয়া হয় না। সাধারণ মানুষকে সতর্ক থাকতে এবং এ ধরনের ভুয়ো কল পেলে সঞ্চার সাথী (sancharsaathi ডট gov ডট in/sfc) পোর্টালের ‘চক্ষু – সন্দেহজনক ভুয়ো কল সম্পর্কে জানানো’র পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এই ধরনের তথ্য সরবরাহ করলে ডিওটি সাইবার অপরাধ, আর্থিক জালিয়াতির মতো টেলি-যোগাযোগের অপব্যবহার রুখতে সক্ষম হবে।

ইতিমধ্যেই সাইবার অপরাধ অথবা আর্থিক জালিয়াতির শিকার হয়ে থাকলে সাইবার অপরাধ হেল্পলাইন নম্বর – 1930-এ অথবা cybercrime ডট gov ডট in –এ বিষয়টি জানানোর জন্য নাগরিকদের পরামর্শ দিয়েছে ডিওটি।

সন্দেহভাজন ভুয়ো যোগাযোগের বিরুদ্ধে লড়াই করতে এবং সাইবার অপরাধ সংক্রান্ত কর্মকাণ্ড রুখতে বিভিন্ন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ‘চক্ষু’ সুবিধার আওতায় সাধারণ মানুষের ক্ষতিসাধন করা এবং প্রতারণার মাধ্যমে কারোর ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার জন্য এসএমএস পাঠানোর সঙ্গে জড়িত ৫২টি প্রধান সংস্থাকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। ৭০০টি প্রতারণামূলক এসএমএস টেমপ্লেট নিষ্ক্রিয় করে দেওয়া হয়েছে। সারা ভারতব্যাপী সমস্ত টেলিকম অপারেটরদের পরিষেবার আওতায় ৩৪৮টি মোবাইল হ্যান্ডসেট কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। সাইবার অপরাধ / আর্থিক জালিয়াতিতে জড়িত থাকার জন্য দেশব্যাপী ১.৮৬ লক্ষ মোবাইল হ্যান্ডসেট ব্লক করা হয়েছে। সন্দেহভাজন ভুয়ো কল এবং এসএমএস, সামাজিক মাধ্যম ও বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সাধারণ মানুষের ক্ষতিসাধন করতে পারে, এমন বিষয়ে জনগণকে সচেতন করে তুলতে ডিওটি / ট্রাই নিয়মিতভাবে পরামর্শ জারি করেছে।

সূত্র: পি আই বি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *